ঢাকা ১২:১৫ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৩ জুলাই ২০২৪, ৭ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

হজযাত্রীদের সৌদি ইমিগ্রেশন এবার ঢাকাতেই সম্পন্ন হবে

ধর্ম ও জীবন ডেস্কঃ

ঝামেলা পোহাতে হবে না হজযাত্রীদের। তাঁদের ইমিগ্রেশনের সব আনুষ্ঠানিকতা বাংলাদেশেই শেষ করা হবে।

আজ শুক্রবার সচিবালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে ধর্ম প্রতিমন্ত্রী শেখ মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ বিষয়টি গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করেছেন।

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, বাংলাদেশ সফররত সৌদি আরবের ইমিগ্রেশন প্রতিনিধি দল বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় রাজধানীর হোটেল ইন্টারকন্টিনেন্টালে ধর্ম প্রতিমন্ত্রীর সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাত করেন। সেখানেই এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত হয়।

নতুন নিয়মের ফলে বাংলাদেশি হজযাত্রীদের জেদ্দা বিমানবন্দরে ৬ থেকে ৭ ঘণ্টা অপেক্ষা করার বিড়ম্বনা লাঘব হবে বলে মন্তব্য করেন প্রতিমন্ত্রী।

এ বিষয়ে ধর্ম প্রতিমন্ত্রী বলেন, এখনকার নিয়মে বাংলাদেশ বিমানের যাত্রীরা আশকোনা হজ ক্যাম্পে এবং সৌদি এয়ারলাইন্সের যাত্রীরা শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে বাংলাদেশ অংশের ইমেগ্রেশন করনে।

আসন্ন হজেও একই নিয়মে তারা হজ ক্যাম্প ও শাহজালালে বাংলাদেশের ইমিগ্রেশনের আনুষ্ঠানিকতা সারবেন। এরপর উভয় বিমানের হজযাত্রীদের শাহজালাল বিমানবন্দরের একটি এক্সক্লুসিভ জোনে নিয়ে যাওয়া হবে।

সৌদি আরবের জেদ্দায় যে ইমিগ্রেশনের কাজ হত, তা ওই এক্সক্লুসিভ জোনেই সম্পন্ন করা হবে।

ট্যাগস
আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

শিক্ষার্থীদের উপর হামলার প্রতিবাদে মুরাদনগরে বিক্ষোভ ও সড়ক অবরোধ

হজযাত্রীদের সৌদি ইমিগ্রেশন এবার ঢাকাতেই সম্পন্ন হবে

আপডেট সময় ১০:৪৪:১১ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ১২ এপ্রিল ২০১৯
ধর্ম ও জীবন ডেস্কঃ

ঝামেলা পোহাতে হবে না হজযাত্রীদের। তাঁদের ইমিগ্রেশনের সব আনুষ্ঠানিকতা বাংলাদেশেই শেষ করা হবে।

আজ শুক্রবার সচিবালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে ধর্ম প্রতিমন্ত্রী শেখ মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ বিষয়টি গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করেছেন।

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, বাংলাদেশ সফররত সৌদি আরবের ইমিগ্রেশন প্রতিনিধি দল বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় রাজধানীর হোটেল ইন্টারকন্টিনেন্টালে ধর্ম প্রতিমন্ত্রীর সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাত করেন। সেখানেই এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত হয়।

নতুন নিয়মের ফলে বাংলাদেশি হজযাত্রীদের জেদ্দা বিমানবন্দরে ৬ থেকে ৭ ঘণ্টা অপেক্ষা করার বিড়ম্বনা লাঘব হবে বলে মন্তব্য করেন প্রতিমন্ত্রী।

এ বিষয়ে ধর্ম প্রতিমন্ত্রী বলেন, এখনকার নিয়মে বাংলাদেশ বিমানের যাত্রীরা আশকোনা হজ ক্যাম্পে এবং সৌদি এয়ারলাইন্সের যাত্রীরা শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে বাংলাদেশ অংশের ইমেগ্রেশন করনে।

আসন্ন হজেও একই নিয়মে তারা হজ ক্যাম্প ও শাহজালালে বাংলাদেশের ইমিগ্রেশনের আনুষ্ঠানিকতা সারবেন। এরপর উভয় বিমানের হজযাত্রীদের শাহজালাল বিমানবন্দরের একটি এক্সক্লুসিভ জোনে নিয়ে যাওয়া হবে।

সৌদি আরবের জেদ্দায় যে ইমিগ্রেশনের কাজ হত, তা ওই এক্সক্লুসিভ জোনেই সম্পন্ন করা হবে।