শুক্রবার, ২০ মে ২০২২ ৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
অ+
অ-

আ’লীগের আধিপত্য বিস্তার নিয়ে:মুরাদনগরে ৪দিনেও খুলে দেয়া হয়নি ৪০ব্যবসা প্রতিষ্ঠান

11830674_684479698350814_1049298616_n

ডেস্ক রিপোর্টঃ

রোজ  মঙ্গলবার, ০৪ আগস্ট ২০১৫ ইং(মুরাদনগর বার্তা ডটকম):

আওয়ামীলীগের দুই গ্রুপের আদিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্রকরে কুমিল্লার মুরাদনগর উপজেলা সদর এলাকার গোমতী নিউ মার্কেটের প্রায় ৪০টি দোকানে তালা ঝুলিয়ে দেয়ার ৫দিন অতিবাহিত হলেও দোকানগুলো খুলেদিতে প্রসাশন ও রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ কেউ কোন প্রদক্ষেপ গ্রহন না করায় তালাদেয়া দোকানের ব্যবসায়দের মধ্যে চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে।

গোমতী নিউ মার্কেটের দোকান মালিকদের অভিযোগ সুত্রে জানাযায়, দীর্ঘদিন ধরে মুরাদনগর উপজেলার বর্তমান সংসদ সদস্য ইফসুফ আবদল্লাহ হারুন গ্রুপ ও কুমিল্লা উত্তর জেলা আওয়ামিলীগের সাধারন সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম সরকার গ্রুপের মধ্যে এলাকায় আধিপত্য বিস্তার, কমিটি গঠন, টেন্ডার দখল, ইজারা নিয়ে প্রকাশ্যে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষও হয়েছে বেশ কয়েকবার। গত শনিবার সেই আধিপত্য নিয়ে স্থানীয় সংসদ সদস্য ইউসুফ আবদল্লাহ হারুন গ্রুপের সদস্য মো: মোস্তফা, মোস্তাক আহাম্মেদ মাসুদ(চেয়ারম্যান) ও পার্থ সারথী দত্ত’র নেতৃত্বে ২৫ থেকে ৩০ জন সদস্যের একটি দল গোমতী নিউ মার্কেটে গিয়ে জাহাঙ্গীর আলম সরকার গ্রুপের প্রায় ৪০টি দোকানে তালা ঝুলিয়ে দেয়।

উল্লেখ্য, মুরাদনগর থানার উত্তর পাশে গর্ত দুই তিন বছর পূর্বে কুমিল্লা উত্তর জেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক মো. জাহাঙ্গীর আলম সরকারের মাধ্যমে, কুমিল্লা জেলা পরিষদ থেকে ভূমি লীজ নেয়া হয়। পরবর্তীতে ওই জায়গাটি ভরাট করে গোমতী মার্কেট নির্মান করা হয়। পরবর্তীতে লীজ গ্রহিতারা যার যার দোকান বুঝে নিয়ে ব্যাবসা শুরু করেন। দোকানে তালা ঝুলানোর পর থেকে  এলাকায় অবস্থা থমথমে বিরাজ করছে, যে কোন মুহুর্তে সংঘর্ষ হতে পারে বলে স্থানীয়রা আশংকা করছেন।

এ বিষয়ে মুরাদনগর উপজেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা সৈয়দ আহাম্মদ হোসেন আউয়াল জানান, গোমতী মার্কেটের দোকানে তালা ঝুলিয়ে দিয়েছে শুনেছি তবে এখানে উপজেলা আওয়ামীলীগের কোন সম্পৃক্ততা নেই।

দোকান মালিক জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সদস্য সচিব মোঃ সেলিম সরকার, যুগম-আহ্বায়ক মো: মানিক সরকার, জাকির হোসেন কুমিল্লা উত্তর জেলা সদস্য আজিজুল হক, ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি কাজল বলেন, আমাদের একটাই অপরাদ, আমরা কেন কুমিল্লা উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক মো. জাহাঙ্গীর আলম সরকারের নেতৃত্ব কে সমর্থন করি। সে জন্যই আজ আমাদের দোকান গুলোতে তালা দেওয়া হয়েছে।

এ বিষয়ে তালা ঝুলানো দলের পক্ষে মো: মোস্তফা বলেন দোকানগুলোর জায়গাটা আমি সহ মৃত মো. শাহ আলম (ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান), মেস্তাাক আহম্মদ, মো.হাসান, মো.মাসুক’র নামে জেলা পরিষদের নিকট থেকে লিজ আনি এবং কিছু কিছু দোকান হস্তান্তর করি। যে সব দোকানে তালা লাগিয়েছি ঐ দোকান গুলোর মালিক আমরাই। আমরা আমাদের দোকানে তালা ঝুলিয়েছি।

 

এ বিষয়ে মুরাদনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মিজানুর রহমান জানান, এ ব্যাপারে কেহ অভিযোগ করেনি, লিখিত ভাবে অভিযোগ পেলে প্রয়োজনিয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

print

আরো পড়ুন

আপনার মন্তব্য লিখুন