বুধবার, ২৫ মে ২০২২ ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
অ+
অ-

বিএনপি নির্বাচনে আসেনি, ভালো হয়েছে: প্রধানমন্ত্রী

বিএনপির নির্বাচন বর্জন প্রসঙ্গে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, বিএনপি নির্বাচনে আসেনি ভালো হয়েছে। সংসদীয় গণতন্ত্র রক্ষা পেয়েছে। তারা সংসদে না থাকায় সংসদ সুষ্ঠুভাবে চলছে।
hasina
তিনি বলেছেন, ‘এক অর্থে ভালোই হয়েছে। পার্লামেন্টে এখন খিস্তি-খেউর শোনা যায় না। সংসদ ভদ্রভাবে চলছে। সংসদের প্রতি মানুষের আস্থা ফিরে এসেছে। সংসদ ভালোভাবে চলছে।’

আওয়ামী লীগ সভানেত্রী বলেন, ‘আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় এলে দেশের মানুষ শান্তিতে বসবাস করে, উন্নয়ন ত্বরান্বিত হয়। কিন্তু বিএনপি ক্ষমতায় এলে অশান্তি শুরু হয়। বিএনপির দুই গুণ- সন্ত্রাস আর মানুষ খুন।’

শনিবার হবিগঞ্জের নিউফিল্ডে স্থানীয় আওয়ামী লীগ আয়োজিত জনসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

৫ জানুয়ারির ভোট বর্জনের পর নির্দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনের দাবিতে আন্দোলনরত খালেদা জিয়ার কুমিল্লায় জনসভার দিন এসব কথা বলেন শেখ হাসিনা।

আওয়ামী লীগ সভানেত্রী বলেন, ‘বিএনপির নেত্রী বক্তৃতা দিয়ে বেড়ায়, তার সময়ে নাকি দেশে উন্নয়নের জোয়ার বয়ে ছিল। তিনি জোয়ার দেখাতে পারেন আর না পারেন, ভাটার টান দেখিয়েছেন।’

আওয়ামী লীগ আয়োজিত ওই জনসভায় শেখ হাসিনা ৫ জানুয়ারির ভোট ঠেকাতে বিএনপি নেতৃত্বাধীন জোটের সহিংস আন্দোলনেরও সমালোচনা করেন।
একই সঙ্গে বিভিন্ন ক্ষেত্রে সরকারের সাফল্য তুলে ধরে বিভিন্ন প্রকল্প উদ্বোধন ও ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপনের বর্ণনা দেন প্রধানমন্ত্রী।

এর আগে তিনি সুনামগঞ্জের বিবিয়ানা গ্যাস ফিল্ডের সম্প্রসারণ প্রকল্পের গ্যাস উৎপাদন এবং বিবিয়ানা-ধনুয়া গ্যাস সঞ্চালন পাইপ লাইনে গ্যাস সরবরাহের উদ্বোধন করেন।

ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন বিবিয়ানা দক্ষিণ ৪০০ মেগাওয়াট কম্বাইন্ড সাইকেল বিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মাণ প্রকল্পের। পরে বিবিয়ানা গ্যাস ফিল্ড এলাকায় মতবিনিময় অনুষ্ঠানে যোগ দেন।

এছাড়া বিবিয়ানা-ধুনুয়া ৩৬ ইঞ্চি গ্যাসবিশিষ্ট উচ্চচাপ পাইপ সঞ্চালন লাইন, ঢাকা-সিলেট মহাসড়ক (এন-২) থেকে বিবিয়ানা বিদ্যুৎ প্রকল্পের সংযোগ সড়ক, বিজনা সেতু রসুলগঞ্জ ভায়া রইছগঞ্জ পানিউমদা ৯০ দশমিক ১০০ মিটার গার্ডার আরসিসি সেতু নির্মাণের ভিত্তিপ্রস্তরসহ নয়টি প্রকল্পের উদ্বোধন ও ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন।

বিবিয়ানা গ্যাসক্ষেত্রে ৪০০ মেগাওয়াট ক্ষমতাসম্পন্ন বিদ্যুৎ প্রকল্প উদ্বোধনের পর অনুষ্ঠিত এক সমাবেশে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ২০২০ সালে দেশের বিদ্যুৎ উৎপাদন ২০ হাজার মেগাওয়াটে পৌঁছাবে। এ সময়ের মধ্যে বাংলাদেশ জ্বালানি ও খনিজ সম্পদে সমৃদ্ধ হবে বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ২০০৮ সালে দেশে দৈনিক এক হাজার ৭৪৪ মিলিয়ন ঘনফুট গ্যাস উত্তোলন করা হতো। এখন ২০১৪ সালে গ্যাসের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে দুই হাজার ৪৫৪ মিলিয়ন ঘনফুট।

তিনি বলেন, আমরা সুন্দলপুর, শ্রীকাইল ও রূপগঞ্জ গ্যাসক্ষেত্র আবিষ্কার করেছি। এই গ্যাসক্ষেত্রগুলোর উন্নয়ন কাজ শেষ হলে অতিরিক্ত ৭১০ মিলিয়ন ঘনফুট গ্যাস উৎপাদন বাড়ানো সম্ভব হবে।

print

আরো পড়ুন

আপনার মন্তব্য লিখুন