রবিবার, ২৯ মে ২০২২ ১৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
অ+
অ-

বুড়িচংয়ে গণধর্ষণের অভিযোগে তিন ধর্ষক গ্রেপ্তার

10846449_411192245719336_4446663184355620351_n

০ে৯ ডিসেম্বর (মুরাদনগর বার্তা ডটকম ডেস্ক):

কুমিল্লার বুড়িচংয়ে রাতভর এক কিশোরীকে গণধর্ষণের অভিযোগে অভিযুক্ত তিন ধর্ষককে গ্রেপ্তার করেছে বুড়িচং থানা পুলিশ।
মঙ্গলবার সকালে তাদেরকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। এ সময় পুলিশ ধর্ষণকারীদের কাছ থেকে ধর্ষিতা কিশোরীকেও উদ্ধার করে।
এ ব্যাপারে বুড়িচং থানার ওসি মো. জহিরুল ইসলাম জানান, ধর্ষিতা কিশোরী লাকসাম থানাধীন উত্তর পশ্চিম গাঁও গ্রামের পশ্চিমা পাড়ার বাসিন্দা। মেয়েটি গতকাল সোমবার সন্ধ্যায় তার খালাত ভাইয়ের সাথে ঢাকা যাওয়ার জন্য লাকসাম থেকে নাসিরাবাদ ট্রেনে করে কুমিল্লা রেলওয়ে ষ্টেশনে আসে। ওই ষ্টেশনে পৌঁছানোর পর সে ট্রেন থেকে নেমে অন্য আরেকটি ট্রেনের জন্য অপেক্ষা করতে থাকে। রাত ১০টার দিকে কুমিল্লার সদর উপজেলার চম্পকনগর সাতরা (দক্ষিন পাড়া) এলাকার মোঃ নূরুন্নবীর পুত্র মোঃ মোখলেছ তাকে নানা কথার ছলে সাতরা চৌমূহুনী এলাকায় ইব্রাহিমের ডেকোরেটারের লাইটিং দোকানের ষ্টোর রুমে নিয়ে যায়। সেখানে নিয়ে যাওয়ার পর চম্পক নগর সাতরা (শীল বাড়ী) মৃত মুসা মিয়ার পুত্র মোঃ ইব্রাহিম(২০), একই এলাকার মধ্যপাড়া এলাকার রবিউল ইসলামের পুত্র মোঃ জুয়েল (২৮), একই এলাকার মোঃ রাজ্জাকের পুত্র মোঃ নাজিম উদ্দিন (৩৫) ও দক্ষিন পাড়া এলাকার মোঃ নূরুন্নবীর পুত্র মোঃ মোখলেছ (৩২) কিশোরীকে রাতভর ধর্ষণ করে।

ওসি আরো জানান, পরে আজ মঙ্গলবার ভোরে ধর্ষিতাকে সিএনজিযোগে কুমিল্লা-বাগড়া সড়ক দিয়ে অন্যত্রে নিয়ে যাওয়ার সময় ভোর ৫টায় বুড়িচং উপজেলার রাজাপুর ইউনিয়নের শংকুচাইল বাজার এলাকায় বুড়িচং থানার এসআই মনিরুজ্জামান সঙ্গীয় ফোর্সসহ সিএনজিটিকে আটক করে। পরে সিএনজিতে থাকা ধর্ষণের শিকার কিশোরীটি পুলিশের কাছে সব ঘটনা খুলে বলে। এ সময় পুলিশ অভিযুক্ত তিন ধর্ষণকারীকে আটক করে বুড়িচং থানায় নিয়ে আসে। পরে ধর্ষিতার কথা অনুযায়ী অভিযোগপত্র লিখে ধর্ষিতা ও ধর্ষণকারীদের কুমিল্লা কোতয়ালী মডেল থানায় হস্তান্তর করা হয়।

print

আরো পড়ুন

আপনার মন্তব্য লিখুন