মঙ্গলবার, ২৪ মে ২০২২ ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
অ+
অ-

মুরাদনগরে আ’লীগ থেকে মনোনয়ন প্রশ্যাশি চেয়ারম্যান প্রার্থীদের বিক্ষাভ

আজিজুর রহমান রনিঃ

কুমিল্লার মুরাদনগরে আসন্ন ইউপি নির্বাচনে আ’মীলীগ থেকে মনোনয়ন দেয়ার আশ্বাসে কুমিল্লা (উত্তর) জেলা আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম সরকার কর্তৃক চেয়ারম্যান প্রার্থীদের নিকট থেকে হাতিয়ে নেয়া প্রায় ৫ কোটি টাকা ফেরতের দাবিতে প্রতিবাদ-বিক্ষোভ, মানববন্ধন ও সাংবাদিক সম্মেলন করেছে উপজেলা আওয়ামীলীগ ও ভোক্তভোগী চেয়ারম্যান প্রার্থীগণ।

বুধবার দুপুরে উপজেলা আওয়ামীলীগ কার্যালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলন শেষে উপজলা পরিষদের সামনের সড়কে ওই মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিল করেন।

সাংবাদিক সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে উপজেলা আ’লীগের সহসভাপতি ও বর্তমান বাঙ্গরা ইউপির চেয়ারম্যান আবদুল হাকিম বলেন, আসন্ন ইউপি নির্বাচনে উপজেলার ২২ ইউনিয়নে আ’মীলীগ থেকে মনোনয়ন দেয়ার আশ্বাসে প্রতারণা পূর্বক কুমিল্লা (উত্তর) জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর সরকার বিভিন্ন ইউনিয়নের প্রার্থীদের নিকট থেকে প্রায় ৫ কোটি টাকা হাতিয়ে নিলেও তৃণমুলের মতামত ছাড়াই তার একক স্বাক্ষরে ও মনগড়া পছন্দের লোকদের প্রস্তাবিত তালিকা কেন্দ্রে জমা দিয়েছেন। এতে অনেকেই এখন টাকা ফেরৎ পেতে জাহাঙ্গীর সরকারের ঢাকার অফিস  ও বাসায় ভীড় করছেন। তাছাড়া তিনি অনুরুপ কায়দায় কুমিল্লা উত্তর জেলার ৭ উপজেলা থেকে প্রায় ১৫ কোটি টাকা হাতিয়ে নিয়েছেন। এই বিষয়ে কুমিল্লা উত্তর জেলা আ’লীগের সভাপতি আ: আউয়াল সরকারের কাছে বিষয়টি জানালে তিনি এমন ঘটনায় ক্ষুব্ধ হয়েছে। বর্তমানে তিনি অসুস্থ্য হয়ে পরেছেন।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত টনকী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আ’লীগের প্রচার সম্পাদক জাকির হোসেন সরকার বলেন, ‘আমাকে দলীয় মনোনয়ন দেয়ার আশ্বাসে জাহাঙ্গীর সরকার ২০ লাখ টাকা হাতিয়ে নিলেও পরে ৭০ লাখ টাকার বিনিময়ে বিএনপি-জামায়াত সমর্থক অন্য একজনকে মনোনয়নের জন্য কেন্দ্রে প্রস্তাব পাঠিয়েছেন। আমি আমার টাকা ফেরৎ চাইলে এখন উল্টো আমাকে হুমকী দেয়া হচ্ছে।’
ইউপি চেয়ারম্যান ওমর ফারুক ও বন কুমার শীব চেয়ারম্যান অভিযোগ করে বলেন, ‘জাহাঙ্গীর আলম সরকার আমাদের নিকট থেকে মনোনয়ন দেয়ার আশ্বাসে ১০ লাখ টাকা করে হাতিয়ে নিয়েছেন। এখন আমাদের নাম মনোনয়ন প্রস্তাবে কেন্দ্রে না পাঠিয়ে অন্য প্রার্থী থেকে বেশি টাকা পেয়ে তাদের নাম কেন্দ্রে পাঠিয়েছে। আমাদের কাছ থেকে মনোনয়নের নামে যে টাকা নিয়েছে তা ফেরত দিচ্ছেনা। এ সময় আরো অভিযোগ করা হয় প্রতারিত চেয়ারম্যান প্রার্থীদের অনেকেই টাকা ফেরত চেয়ে এখন হুমকির মুখে পালিয়ে বেড়াচ্ছেন।

সংবাদ সম্মেলনে জাহাঙ্গীর সরকারের নানা অনিয়ম ও অর্থ হাতিয়ে নেয়ার অভিযোগ তুলে আরও বক্তব্য রাখেন মুক্তিযোদ্ধা, ইদ্রিস আলী, বাচ্চু মিয়া,্ উপজেলা আ’লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ভিপি জাকির হোসেন, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক কাজী আবুল খায়ের চেয়ারম্যান, ইউনিয়ন আ’লীগের সভাপতি শরীফুল ইসলাম চেয়ারম্যান, ওমর ফারুক চেয়ারম্যান. চেয়ারম্যান প্রার্থী সুমন আহমেদ সরকার, ছাত্রলীগের সভাপতি রুহর আমিন, ছাত্রলীগ নেতা ওমর ফারুক। পরে উপজেলা পরিষদের সামনে আয়োজিত বিক্ষোভ মিছিল ও মানবন্ধনের আয়োজন করা হয়। এ সময় এক মনোনয়নের জন্য হাতিয়ে নেয়া টাকা ফেরতের দাবিতে প্রতারীত চেয়ারম্যান প্রার্থীগণ বক্তব্য রাখেন।

print

কুমিল্লা : আরো পড়ুন

আপনার মন্তব্য লিখুন