বুধবার, ২৫ মে ২০২২ ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
অ+
অ-

মুরাদনগরে সম্পত্ত্বি দখল নিয়ে সংঘর্ষ: আহত ১২

file

মোঃ মোশাররফ হোসেন মনিরঃ

৩০ মে ২০১৫ ইং (মুরাদনগর বার্তা ডটকম):

মুরাদনগর উপজেলার যাত্রাপুর ইউনিয়নের মোচাগড়া গ্রামে সম্পত্ত্বি দখলকে কেন্দ্র করে  গতকাল শনিবার সকাল সাড়ে ৭টায় দুই পরিবারের মধ্যে ব্যাপক সংঘর্ষ হয়েছে। এ ঘটনায় দু’পক্ষের নারী, পুরুষসহ ১২জন আহত হয়।

আহতদের মধ্যে ১০ জনকে মুরাদনগর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

আহতরা হলেন, মোচাগড়া গ্রামের মৃত কামাল হোসেনের ছেলে রাসেল(১১), লিল মিয়ার স্ত্রী রাজিয়া বেগম(৪০), মৃত মোর্শেদ মিয়ার ছেলে সফিকুল ইসলাম(৪০), মৃত লিল মিয়ার ছেলে আলামিন(২৫) ও তার বোন শামছুন্নাহার(৩০), রফিকুল ইসলামের ছেলে সোহাগ(২০), মৃত সিরাজুল ইসলামের ছেলে রফিকুল ইসলাম(৪০), মৃত খোরশেদ মিয়ার ছেলে সবুর হোসেন(৩৫), রফিকুল ইসলামের স্ত্রী নাছিমা বেগম(৩৫), ও মেয়ে লিপি আক্তার(১৫), আব্দুস সালামের ছেলে হেলাল(২২) ও ভাই বিল্লাল(২০)।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, উপজেলার মোচাগড়া গ্রামের মালু মিয়ার কোন পুত্র সন্তান না থাকায় তার মৃত্যুর পর তার তিন মেয়ে রাজিয়া, রেজিয়া ও রৌশনআরা বেগম তাদের পৈত্রিক বাড়ীতে দীর্ঘ ১০বছর যাবত বসবাস করে আসছেন। অপরদিকে একই গ্রামের তাদের পার্শ্ববর্তী বসবাসকারী রফিকুল ইসলাম নামের এক ব্যাক্তি মৃত মালু মিয়ার নিকট থেকে উক্ত সম্পিত্ত্ব ক্রয় করেছেন বলে দাবি করে আসছিলেন। এ নিয়ে দুই পরিবারের মধ্যে আদালতে মামলা বিচারাধীন রয়েছে। মামলা বিচারাধীন থাকা সত্ত্বেও শনিবার সকাল সাড়ে ৭টায় রাজিয়া বেগমের বাড়িতে প্রভাবশালী রফিকুল ইসলামের নেতৃত্বে একদল সন্ত্রাসী দেশীয় অস্ত্র নিয়ে বসত বাড়ী দখল করার জন্য হামলা চালিয়ে ৮ জনকে কুপিয়ে আহত করে এবং ভাংচুরও  লুটপাট চালায়। এ ঘটনায় দু’পক্ষের ১২ জন আহত হয়। আদালতে মামলা বিচারাধীন থাকা অবস্থায় চালানো এই হামলায় জনমনে তীব্র ক্ষোভ বিরাজ করছে।

এ ব্যাপারে মুরাদনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মিজানুর রহমান বলেন, ঘটনাটি আমরা শুনেছি, থানায় লিখিত ভাবে অভিযোগ করার জন্য বলা হয়েছে। লিখিত অভিযোগ পেলে প্রয়োজনীয় ব্যাবস্থা নেওয়া হবে।

print

আরো পড়ুন

আপনার মন্তব্য লিখুন