ঢাকা ০১:৪৪ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২৩ জুন ২০২৪, ৮ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

‘আওয়ামীলীগ ক্ষমতায় থাকলে প্রতিবছর বই উৎসব হয়’—ক্যা.তাজ এমপি

সালমা আহমেদ,বাঞ্ছারামপুর(ব্রাহ্মণবাড়িয়া)  থেকেঃ

‘এখন আর কাউকে পুরনো বই পড়তে হয়না।বইয়ের জন্য হাহাকার নেই।ধনী-দরিদ্র সকলে প্রতি বছর ১জানুয়ারি বই হাতে পায়।বই এখন উৎসবে পরিনত হয়েছে’।

শনিবার ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বাঞ্ছারামপুর বিশ^বিদ্যালয় প্রাঙ্গনে দুপুরে বাঞ্ছারামপুর উপজেলা,পৌর,কলেজ ও টেকনিক্যাল কলেজের দ্বিবার্ষিক ছাত্রলীগের সম্মলন উপলক্ষ্যে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।

সদ্য বিদায়ী উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি সিরাজুল ইসলামের সভাপতিত্বে সম্মলনের উদ্ধোধক ছিলেন জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি এডভোকেট মাসুম বিল্লাহ।

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন নারায়নগঞ্জ২(আড়াইহাজার) আসনের সংসদ সদস্য ও সাবেক ছাত্রলীগনেতা নজরুল ইসলাম বাবু,ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় সংসদের সভাপতি মো.সাইফুর রহমান সোহাগ,সমবায় ব্যাংকের চেয়ারম্যান ও যুবলীগ কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্মসম্পাদক মহিউদ্দিন মহি,ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় কমিটির সহসভাপতি মো.মনির হোসেন,জেলা আওয়ামীলীগের সহসভাপতি প্রিন্সিপাল আবুল খায়ের দুলাল,উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি মো.সিরাজুল ইসলাম,যুবলীগ সভাপতি সায়েদুল ইসলাম ভুইয়া বকুল,স্বেচ্ছাসেবকলীগ সভাপতি মাহমুদুর হাসান ভূইয়াসহ স্থানীয় ও কেন্দ্রীয় কমিটির নের্তৃবর্গ।

ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি সোহাগ বলেন,-‘গাড়ি পুড়ানো,মানুষ পুড়ানো বিএনপিকে জনগন আর দেখতে চায়না।জনগন উন্নয়ন চায়। আওয়ামীলীগ হলো উন্নয়নের সরকার।তাই এই সরকারকে আবারো ভোট দিয়ে ক্ষমতায় আনতে হবে।
আড়াইহাজারের এমপি নজরুল ইসলাম বাবু বলেন,-‘ছাত্রদের আগে ভালো মানুষ হতে হবে,এরপর ছাত্রলীগ।ছাত্রলীগ করতে হলে তাকে তাকে সেবামূলক মানসিকতা থাকতে হবে’।

ট্যাগস
আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

‘আওয়ামীলীগ ক্ষমতায় থাকলে প্রতিবছর বই উৎসব হয়’—ক্যা.তাজ এমপি

আপডেট সময় ০১:৫৪:২০ অপরাহ্ন, শনিবার, ৩০ ডিসেম্বর ২০১৭
সালমা আহমেদ,বাঞ্ছারামপুর(ব্রাহ্মণবাড়িয়া)  থেকেঃ

‘এখন আর কাউকে পুরনো বই পড়তে হয়না।বইয়ের জন্য হাহাকার নেই।ধনী-দরিদ্র সকলে প্রতি বছর ১জানুয়ারি বই হাতে পায়।বই এখন উৎসবে পরিনত হয়েছে’।

শনিবার ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বাঞ্ছারামপুর বিশ^বিদ্যালয় প্রাঙ্গনে দুপুরে বাঞ্ছারামপুর উপজেলা,পৌর,কলেজ ও টেকনিক্যাল কলেজের দ্বিবার্ষিক ছাত্রলীগের সম্মলন উপলক্ষ্যে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।

সদ্য বিদায়ী উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি সিরাজুল ইসলামের সভাপতিত্বে সম্মলনের উদ্ধোধক ছিলেন জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি এডভোকেট মাসুম বিল্লাহ।

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন নারায়নগঞ্জ২(আড়াইহাজার) আসনের সংসদ সদস্য ও সাবেক ছাত্রলীগনেতা নজরুল ইসলাম বাবু,ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় সংসদের সভাপতি মো.সাইফুর রহমান সোহাগ,সমবায় ব্যাংকের চেয়ারম্যান ও যুবলীগ কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্মসম্পাদক মহিউদ্দিন মহি,ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় কমিটির সহসভাপতি মো.মনির হোসেন,জেলা আওয়ামীলীগের সহসভাপতি প্রিন্সিপাল আবুল খায়ের দুলাল,উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি মো.সিরাজুল ইসলাম,যুবলীগ সভাপতি সায়েদুল ইসলাম ভুইয়া বকুল,স্বেচ্ছাসেবকলীগ সভাপতি মাহমুদুর হাসান ভূইয়াসহ স্থানীয় ও কেন্দ্রীয় কমিটির নের্তৃবর্গ।

ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি সোহাগ বলেন,-‘গাড়ি পুড়ানো,মানুষ পুড়ানো বিএনপিকে জনগন আর দেখতে চায়না।জনগন উন্নয়ন চায়। আওয়ামীলীগ হলো উন্নয়নের সরকার।তাই এই সরকারকে আবারো ভোট দিয়ে ক্ষমতায় আনতে হবে।
আড়াইহাজারের এমপি নজরুল ইসলাম বাবু বলেন,-‘ছাত্রদের আগে ভালো মানুষ হতে হবে,এরপর ছাত্রলীগ।ছাত্রলীগ করতে হলে তাকে তাকে সেবামূলক মানসিকতা থাকতে হবে’।