ঢাকা ০৩:১৪ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ১৫ এপ্রিল ২০২৪, ১ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

আরো পাঁচ বছর ক্ষমতায় থাকতে শেখ হাসিনা ভারতের সঙ্গে চুক্তি করেছে : খালেদা জিয়া

জাতীয় ডেস্ক;

বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া বলেছেন, আগামী আরো পাঁচ বছর ক্ষমতায় থাকতে শেখ হাসিনা দেশের স্বার্থ বিকিয়ে দিয়ে ভারতের সঙ্গে চুক্তি করেছে। আওয়ামী লীগের উদ্দেশ্য হলো পাঁচবছর ক্ষমতায় থাকতে হবে, থাকতে দিতে হবে। তিনি বলেন, পাঁচ বছর পর কাগজ কলমে দেশটা ভারতের কাছে বিক্রি করে দিয়ে আওয়ামী লীগ বিদায় নেবে।

গতকাল রাতে গুলশান কার্যালয়ে সুপ্রিম কোর্ট বার অ্যাসোসিয়েশনের নবনির্বাচিত নেতাদের সঙ্গে শুভেচ্ছা বিনিময়কালে  খালেদা জিয়া এ কথা বলেন।

খালেদা জিয়া বলেন, আওয়ামী লীগ সবসময় চোরাই পথে ক্ষমতায় আসে। চোরাইপথে ক্ষমতায় এসে তারা ষড়যন্ত্র করে। তারপর দেশের মানুষের বিরুদ্ধে কাজ করে।

তিনি  বলেন, বর্তমানে যে নির্বাচন কমিশন আছে, বিশেষ করে প্রধান নির্বাচন কমিশনার তিনি মোটেও নিরপেক্ষ নয়। তার কাছ থেকে আমরা নিরপেক্ষ নির্বাচন আশা করতি পারি না। আর  যে সরকার আছে, তাদের কাছে তো কখনই নিরপেক্ষ নির্বাচন আশা করা যায় না। স্থানীয় সরকার নির্বাচন, সিটি নির্বাচন থেকে শুরু করে উপজেলা নির্বাচন সবগুলো একই অবস্থা হয়েছে। বিএনপি যে সব মেয়র নির্বাচিত হয়েছে তাদেরকে এখন মিথ্যা মামলা দিয়ে বহিষ্কার করে  ক্ষমতাসীনদের লোক বসিয়ে দেওয়া হয়। প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশেই এগুলো হচ্ছে।

সর্বশেষ কুমিল্লা সিটি নির্বাচনে কথা উল্লেখ করে বেগম জিয়া বলেন, এ নির্বাচনেও ব্যাপক কারচুপি হয়েছে। আগে যে নির্বাচন কমিশনার ছিল বর্তমানে যিনি আছেন তিনি তার পথই অনুসরণ করেছেই চলেছেন। এর বাইরে যাচ্ছেন না। না হলে আমার কুমিল্লা সিটি নির্বাচনে ৫০ হাজার ভোটের ব্যবধানে জিততাম।’

এ সময় উপস্থিত ছিলেন- বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ অহমদ, ব্যারিস্টার জমির উদ্দিন সরকার, সুপ্রিম কোর্ট বার অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি আইনজীবী জয়নাল আবেদিন, সেক্রেটারি ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকনসহ নবনির্বাচিত কমিটির সদস্যরা।

ইত্তেফাক

ট্যাগস
আপলোডকারীর তথ্য

মুরাদনগর ভয়াবহ আগুন কয়ক কাটি টাকার ক্ষতি 

আরো পাঁচ বছর ক্ষমতায় থাকতে শেখ হাসিনা ভারতের সঙ্গে চুক্তি করেছে : খালেদা জিয়া

আপডেট সময় ০৪:৩৫:১২ অপরাহ্ন, সোমবার, ১০ এপ্রিল ২০১৭
জাতীয় ডেস্ক;

বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া বলেছেন, আগামী আরো পাঁচ বছর ক্ষমতায় থাকতে শেখ হাসিনা দেশের স্বার্থ বিকিয়ে দিয়ে ভারতের সঙ্গে চুক্তি করেছে। আওয়ামী লীগের উদ্দেশ্য হলো পাঁচবছর ক্ষমতায় থাকতে হবে, থাকতে দিতে হবে। তিনি বলেন, পাঁচ বছর পর কাগজ কলমে দেশটা ভারতের কাছে বিক্রি করে দিয়ে আওয়ামী লীগ বিদায় নেবে।

গতকাল রাতে গুলশান কার্যালয়ে সুপ্রিম কোর্ট বার অ্যাসোসিয়েশনের নবনির্বাচিত নেতাদের সঙ্গে শুভেচ্ছা বিনিময়কালে  খালেদা জিয়া এ কথা বলেন।

খালেদা জিয়া বলেন, আওয়ামী লীগ সবসময় চোরাই পথে ক্ষমতায় আসে। চোরাইপথে ক্ষমতায় এসে তারা ষড়যন্ত্র করে। তারপর দেশের মানুষের বিরুদ্ধে কাজ করে।

তিনি  বলেন, বর্তমানে যে নির্বাচন কমিশন আছে, বিশেষ করে প্রধান নির্বাচন কমিশনার তিনি মোটেও নিরপেক্ষ নয়। তার কাছ থেকে আমরা নিরপেক্ষ নির্বাচন আশা করতি পারি না। আর  যে সরকার আছে, তাদের কাছে তো কখনই নিরপেক্ষ নির্বাচন আশা করা যায় না। স্থানীয় সরকার নির্বাচন, সিটি নির্বাচন থেকে শুরু করে উপজেলা নির্বাচন সবগুলো একই অবস্থা হয়েছে। বিএনপি যে সব মেয়র নির্বাচিত হয়েছে তাদেরকে এখন মিথ্যা মামলা দিয়ে বহিষ্কার করে  ক্ষমতাসীনদের লোক বসিয়ে দেওয়া হয়। প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশেই এগুলো হচ্ছে।

সর্বশেষ কুমিল্লা সিটি নির্বাচনে কথা উল্লেখ করে বেগম জিয়া বলেন, এ নির্বাচনেও ব্যাপক কারচুপি হয়েছে। আগে যে নির্বাচন কমিশনার ছিল বর্তমানে যিনি আছেন তিনি তার পথই অনুসরণ করেছেই চলেছেন। এর বাইরে যাচ্ছেন না। না হলে আমার কুমিল্লা সিটি নির্বাচনে ৫০ হাজার ভোটের ব্যবধানে জিততাম।’

এ সময় উপস্থিত ছিলেন- বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ অহমদ, ব্যারিস্টার জমির উদ্দিন সরকার, সুপ্রিম কোর্ট বার অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি আইনজীবী জয়নাল আবেদিন, সেক্রেটারি ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকনসহ নবনির্বাচিত কমিটির সদস্যরা।

ইত্তেফাক