ঢাকা ০৬:৫৫ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২৪ মে ২০২৪, ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ইউপিতে বিএনপির প্রার্থী হতে লাগবে পাঁচজনের সুপারিশ

মুরাদগর বার্তা ডেস্কঃ

রোজ শনিবার, ১৩ ফেব্রুয়ারী ২০১৬ ইং (মুরাদনগর বার্তা ডটকম):

ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনে বিএনপির প্রার্থী মনোনয়নে উপজেলা ও ইউনিয়ন কমিটির পাঁচজন নেতার যৌথ সুপারিশ লাগবে। এই পাঁচজন হলেন উপজেলা বিএনপির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক এবং ইউনিয়ন কমিটির সভাপতি, সাধারণ সম্পাদক ও সাংগঠনিক সম্পাদক। তাঁদের সুপারিশের ভিত্তিতে প্রার্থীর নাম অনুমোদন করবেন বিএনপির চেয়ারপারসন।

শনিবার বিকেলে বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভীর স্বাক্ষরে গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিজ্ঞপ্তিতে এ সিদ্ধান্তের কথা জানানো হয়।

এ ছাড়া সুপারিশকৃত চেয়ারম্যান পদপ্রার্থীর নির্ভুল নাম এবং ভোটার আইডি নম্বর (ভোটার তালিকা থেকে সংগৃহীত) সংগ্রহ করে মনোনয়নপত্র দাখিলের সাত দিন আগে অবশ্যই বিএনপির কেন্দ্রীয় দপ্তরে পাঠানোর জন্য জেলা বিএনপির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকদের অনুরোধ করা হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, আহ্বায়ক কমিটির ক্ষেত্রে উপজেলা বিএনপির আহ্বায়ক ও সদস্যসচিব সুপারিশ করবেন। সদস্যসচিব না থাকলে ১ নম্বর যুগ্ম আহ্বায়ক সুপারিশ করবেন। একইভাবে ইউনিয়ন বিএনপির আহ্বায়ক কমিটির ক্ষেত্রেও আহ্বায়ক ও সদস্যসচিব সুপারিশ করবেন। সদস্যসচিব না থাকলে ১ নম্বর যুগ্ম আহ্বায়ক ও ২ নম্বর যুগ্ম আহ্বায়কসহ যৌথভাবে পাঁচজন দলীয় চেয়ারম্যান পদপ্রার্থীর নাম সুপারিশ করবেন।

আহ্বায়ক কমিটিতে যদি যুগ্ম আহ্বায়কের পদ না থাকে, সে ক্ষেত্রে উপজেলা বিএনপির কমিটির ক্ষেত্রে আহ্বায়ক ও সদস্যসচিব, সদস্যসচিব না থাকলে ১ নম্বর সদস্য এবং ইউনিয়ন বিএনপির কমিটির ক্ষেত্রে আহ্বায়ক ও সদস্যসচিব, আর সদস্যসচিব না থাকলে ১ নম্বর সদস্য ও ২ নম্বর সদস্য অর্থাৎ, অনুরূপ পাঁচজন যৌথভাবে প্রার্থীর নাম অনুমোদনের জন্য সুপারিশ করবেন।

ট্যাগস
জনপ্রিয় সংবাদ

মুরাদনগর বাবুটিপাড়া ইউনিয়ন বিএনপি’র সভাপতির ইন্তেকাল

ইউপিতে বিএনপির প্রার্থী হতে লাগবে পাঁচজনের সুপারিশ

আপডেট সময় ০৫:১৫:০০ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৩ ফেব্রুয়ারী ২০১৬

মুরাদগর বার্তা ডেস্কঃ

রোজ শনিবার, ১৩ ফেব্রুয়ারী ২০১৬ ইং (মুরাদনগর বার্তা ডটকম):

ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনে বিএনপির প্রার্থী মনোনয়নে উপজেলা ও ইউনিয়ন কমিটির পাঁচজন নেতার যৌথ সুপারিশ লাগবে। এই পাঁচজন হলেন উপজেলা বিএনপির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক এবং ইউনিয়ন কমিটির সভাপতি, সাধারণ সম্পাদক ও সাংগঠনিক সম্পাদক। তাঁদের সুপারিশের ভিত্তিতে প্রার্থীর নাম অনুমোদন করবেন বিএনপির চেয়ারপারসন।

শনিবার বিকেলে বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভীর স্বাক্ষরে গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিজ্ঞপ্তিতে এ সিদ্ধান্তের কথা জানানো হয়।

এ ছাড়া সুপারিশকৃত চেয়ারম্যান পদপ্রার্থীর নির্ভুল নাম এবং ভোটার আইডি নম্বর (ভোটার তালিকা থেকে সংগৃহীত) সংগ্রহ করে মনোনয়নপত্র দাখিলের সাত দিন আগে অবশ্যই বিএনপির কেন্দ্রীয় দপ্তরে পাঠানোর জন্য জেলা বিএনপির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকদের অনুরোধ করা হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, আহ্বায়ক কমিটির ক্ষেত্রে উপজেলা বিএনপির আহ্বায়ক ও সদস্যসচিব সুপারিশ করবেন। সদস্যসচিব না থাকলে ১ নম্বর যুগ্ম আহ্বায়ক সুপারিশ করবেন। একইভাবে ইউনিয়ন বিএনপির আহ্বায়ক কমিটির ক্ষেত্রেও আহ্বায়ক ও সদস্যসচিব সুপারিশ করবেন। সদস্যসচিব না থাকলে ১ নম্বর যুগ্ম আহ্বায়ক ও ২ নম্বর যুগ্ম আহ্বায়কসহ যৌথভাবে পাঁচজন দলীয় চেয়ারম্যান পদপ্রার্থীর নাম সুপারিশ করবেন।

আহ্বায়ক কমিটিতে যদি যুগ্ম আহ্বায়কের পদ না থাকে, সে ক্ষেত্রে উপজেলা বিএনপির কমিটির ক্ষেত্রে আহ্বায়ক ও সদস্যসচিব, সদস্যসচিব না থাকলে ১ নম্বর সদস্য এবং ইউনিয়ন বিএনপির কমিটির ক্ষেত্রে আহ্বায়ক ও সদস্যসচিব, আর সদস্যসচিব না থাকলে ১ নম্বর সদস্য ও ২ নম্বর সদস্য অর্থাৎ, অনুরূপ পাঁচজন যৌথভাবে প্রার্থীর নাম অনুমোদনের জন্য সুপারিশ করবেন।