ঢাকা ১০:৩৫ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৬ জুন ২০২৪, ২ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ইজতেমার দ্বিতীয় পর্ব শুরু শুক্রবার

 ধর্ম ও জীবন ডেস্কঃ

বিশ্ব ইজতেমার দ্বিতীয় পর্ব শুরু হচ্ছে আগামীকাল শুক্রবার। এদিন বাদ ফজর আমবয়ানের মধ্য দিয়ে তিন দিনের ইজতেমার কার্যক্রম শুরু হবে। কাল তুরাগ তীরে হবে বৃহত্তম জুমার জামাত। ২১ জানুয়ারি আখেরি মোনাজাতের মাধ্যমে শেষ হবে এবারের ইজতেমা।

শুক্রবার ইজতেমা শুরু হলেও ইতোমধ্যে ইজতেমা মাঠে চলে এসেছেন বেশির ভাগ মুসল্লি। আজকের মধ্যে ইজতেমা মাঠ ভরে যাবে বলে আশা করছেন আয়োজকরা। প্রথম পর্বের মত দ্বিতীয় পর্বের ইজতেমাও সফল করতে সরকারি ৭৫টি সংস্থা একযোগে কাজ করছে।

ইজতেমার এই পর্বে ঢাকা ১, ২, ৩, ৪, ৫, ৬, ৭, ১৯, ২০, ২১, ২২, ২৩, জামালপুর ১, ২, ফরিদপুর, কুড়িগ্রাম, সুনামগঞ্জ, ঝিনাইদহ, ফেনী, কুমিল্লা ১, ২, চুয়াডাঙ্গা, রাজশাহী ১, ২, খুলনা ১, ২, পিরোজপুর ও ঠাকুরগাঁও জেলার মুসল্লিরা অংশ নেবেন।

ইজতেমা আয়োজক কমিটি সূত্রে জানা গেছে, গত ১৪ জানুয়ারি প্রথম পর্বের আখেরি মোনাজাতের পর দ্বিতীয় পর্বের ইজতেমার ময়দান প্রস্তুতের জন্য ইজতেমায় আগত তাবলিগ জামাতের কর্মীরা কাজ করে যাচ্ছেন। তারা ইজতেমার প্রথম পর্বের ময়লা-আবর্জনা সরিয়ে পুরো ময়দানকে উপযোগী করে তুলছেন। এজন্য ময়দানে তাবলিগের কর্মীরা বেশ কয়েকটি দলে বিভক্ত হয়ে পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা কার্যক্রম চালাচ্ছেন। গাজীপুর সিটি করপোরেশনের পক্ষ থেকেও ময়দান পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন করার কাজ সম্পন্ন করা হচ্ছে।

গাজীপুর সিটি করপোরেশনের বর্জ্য ব্যবস্থাপনা কর্মকর্তা আরিফুর রহমান জানান, ইজতেমা ময়দান ও এর আশপাশের সকল বর্জ্য অপসারণ করা হয়েছে। দ্বিতীয় পর্বেও সুষ্ঠুভাবে ইজতেমা সম্পন্ন হবে বলে তিনি আশাবাদ করেন।

ইজতেমা আয়োজক কমিটির মুরব্বি মোহাম্মদ ইলিয়াছ বলেন, প্রথম পর্বে তীব্র শীতের কারণে অনেক মুসল্লি ইজতেমায় যোগ দিতে পারেননি। মুসল্লিরা দ্বিতীয় পর্বে যোগ দিতে ইতোমধ্যে ইজতেমা ময়দানে আসতে শুরু করেছেন। দ্বিতীয় পর্বের ইজতেমায় আগত মুসল্লিরা ২৬টি খিত্তায় অবস্থান করবেন।

প্রথম পর্বের মতো দ্বিতীয় পর্বেও পুরো ইজতেমা এলাকায় কঠোর নিরাপত্তা বলয় গড়ে তোলা হবে। গাজীপুরের পুলিশ সুপার হারুন অর রশিদ জানান, প্রথম পর্বের মত দ্বিতীয় পর্বে অংশ নেয়া মুসল্লিদের সার্বিক নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে ইজতেমা ময়দান ও তার আশপাশ এলাকায় আট স্তরের নিরাপত্তা বলয় সৃষ্টি করা হয়েছে।

সাড়ে সাত হাজার পুলিশ সদস্য ইজতেমা ময়দান ও এর আশপাশের এলাকায় মোতায়েন করা হয়েছে। সিসি টিভি ও ওয়াচ টাওয়ার এর মাধ্যমে পুরো ময়দান মনিটরিং করা হচ্ছে। ইজতেমা ময়দানে প্রতিটি খিত্তায় সাদা পোশাকে পর্যাপ্ত পুলিশ সদস্য দায়িত্ব পালন করছেন।

ট্যাগস
আপলোডকারীর তথ্য

ইজতেমার দ্বিতীয় পর্ব শুরু শুক্রবার

আপডেট সময় ০৭:৩৭:২৮ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৮ জানুয়ারী ২০১৮
 ধর্ম ও জীবন ডেস্কঃ

বিশ্ব ইজতেমার দ্বিতীয় পর্ব শুরু হচ্ছে আগামীকাল শুক্রবার। এদিন বাদ ফজর আমবয়ানের মধ্য দিয়ে তিন দিনের ইজতেমার কার্যক্রম শুরু হবে। কাল তুরাগ তীরে হবে বৃহত্তম জুমার জামাত। ২১ জানুয়ারি আখেরি মোনাজাতের মাধ্যমে শেষ হবে এবারের ইজতেমা।

শুক্রবার ইজতেমা শুরু হলেও ইতোমধ্যে ইজতেমা মাঠে চলে এসেছেন বেশির ভাগ মুসল্লি। আজকের মধ্যে ইজতেমা মাঠ ভরে যাবে বলে আশা করছেন আয়োজকরা। প্রথম পর্বের মত দ্বিতীয় পর্বের ইজতেমাও সফল করতে সরকারি ৭৫টি সংস্থা একযোগে কাজ করছে।

ইজতেমার এই পর্বে ঢাকা ১, ২, ৩, ৪, ৫, ৬, ৭, ১৯, ২০, ২১, ২২, ২৩, জামালপুর ১, ২, ফরিদপুর, কুড়িগ্রাম, সুনামগঞ্জ, ঝিনাইদহ, ফেনী, কুমিল্লা ১, ২, চুয়াডাঙ্গা, রাজশাহী ১, ২, খুলনা ১, ২, পিরোজপুর ও ঠাকুরগাঁও জেলার মুসল্লিরা অংশ নেবেন।

ইজতেমা আয়োজক কমিটি সূত্রে জানা গেছে, গত ১৪ জানুয়ারি প্রথম পর্বের আখেরি মোনাজাতের পর দ্বিতীয় পর্বের ইজতেমার ময়দান প্রস্তুতের জন্য ইজতেমায় আগত তাবলিগ জামাতের কর্মীরা কাজ করে যাচ্ছেন। তারা ইজতেমার প্রথম পর্বের ময়লা-আবর্জনা সরিয়ে পুরো ময়দানকে উপযোগী করে তুলছেন। এজন্য ময়দানে তাবলিগের কর্মীরা বেশ কয়েকটি দলে বিভক্ত হয়ে পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা কার্যক্রম চালাচ্ছেন। গাজীপুর সিটি করপোরেশনের পক্ষ থেকেও ময়দান পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন করার কাজ সম্পন্ন করা হচ্ছে।

গাজীপুর সিটি করপোরেশনের বর্জ্য ব্যবস্থাপনা কর্মকর্তা আরিফুর রহমান জানান, ইজতেমা ময়দান ও এর আশপাশের সকল বর্জ্য অপসারণ করা হয়েছে। দ্বিতীয় পর্বেও সুষ্ঠুভাবে ইজতেমা সম্পন্ন হবে বলে তিনি আশাবাদ করেন।

ইজতেমা আয়োজক কমিটির মুরব্বি মোহাম্মদ ইলিয়াছ বলেন, প্রথম পর্বে তীব্র শীতের কারণে অনেক মুসল্লি ইজতেমায় যোগ দিতে পারেননি। মুসল্লিরা দ্বিতীয় পর্বে যোগ দিতে ইতোমধ্যে ইজতেমা ময়দানে আসতে শুরু করেছেন। দ্বিতীয় পর্বের ইজতেমায় আগত মুসল্লিরা ২৬টি খিত্তায় অবস্থান করবেন।

প্রথম পর্বের মতো দ্বিতীয় পর্বেও পুরো ইজতেমা এলাকায় কঠোর নিরাপত্তা বলয় গড়ে তোলা হবে। গাজীপুরের পুলিশ সুপার হারুন অর রশিদ জানান, প্রথম পর্বের মত দ্বিতীয় পর্বে অংশ নেয়া মুসল্লিদের সার্বিক নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে ইজতেমা ময়দান ও তার আশপাশ এলাকায় আট স্তরের নিরাপত্তা বলয় সৃষ্টি করা হয়েছে।

সাড়ে সাত হাজার পুলিশ সদস্য ইজতেমা ময়দান ও এর আশপাশের এলাকায় মোতায়েন করা হয়েছে। সিসি টিভি ও ওয়াচ টাওয়ার এর মাধ্যমে পুরো ময়দান মনিটরিং করা হচ্ছে। ইজতেমা ময়দানে প্রতিটি খিত্তায় সাদা পোশাকে পর্যাপ্ত পুলিশ সদস্য দায়িত্ব পালন করছেন।