ঢাকা ০৭:৩৮ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪, ১ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

কুমিল্লায় ছুরিকাঘাতে পত্রিকার হকার নিহত

জেলা প্রতিনিধি, কুমিল্লাঃ
কুমিল্লায় ফারুক হোসেন নামে এক পত্রিকার হকারকে উপর্যুপরি ছুরিকাঘাতে নৃশংসভাবে হত্যা করেছে দুর্বৃৃত্তরা। মঙ্গলবার ভোরে জেলার আদর্শ সদর উপজেলার পালপাড়া এলাকায় পালপাড়া ব্রিজসংলগ্ন বাবুবাজার এলাকায় এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। সে একই উপজেলার উত্তর জামবাড়ি এলাকার আবদুল মান্নানের ছেলে।

 

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, মঙ্গলবার ভোরে গোমতী নদীর পালপাড়া ব্রিজসংলগ্ন বাবুবাজার এলাকায় ফারুক হোসেনের (২৬) শরীরের বিভিন্ন স্থানে ছুরিকাঘাতে ক্ষতবিক্ষত লাশ দেখতে পেয়ে স্থানীয়রা পুলিশকে খবর দেয়। বেলা সাড়ে ১০টার দিকে পুলিশ গিয়ে লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য কুমিল্লা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করে।

 

নিহতের পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, ফারুক প্রতিদিনের ন্যায় ভোরে এজেন্টের নিকট থেকে পত্রিকা আনতে আলেখারচর বিশ্বরোডের উদ্দেশে বাড়ি থেকে বের হন। সকালে স্থানীয়দের মাধ্যমে খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিবারের লোকজন তার লাশ শনাক্ত করেন। নিহতের বাবা আবদুল মান্নান সাংবাদিকদের জানান, ১২-১৩ বছর বয়স থেকে ফারুক জাতীয় ও স্থানীয় পত্রিকার হকারি করে আসছিল। সে অত্যন্ত শান্ত প্রকৃতির ছিল। তার স্ত্রী ও এক মেয়ে। তার কোনো শত্রু ছিল কি-না কিংবা কি কারণে এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটলো তা তিনি জানেন না বলে জানিয়েছেন। এ বিষয়ে কোতয়ালি মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ আবু ছালাম মিয়া জানান, আর্থিক কিংবা ব্যক্তিগত বিরোধের কারণে এ হত্যাকাণ্ড হতে পারে। মৃত্যু নিশ্চিত করতে দুর্বৃত্তরা তার শরীরের বিভিন্ন স্থানে ৬টি ছুরিকাঘাত করেছে। ওসি আরো জানান, হত্যাকাণ্ডের নেপথ্যে বেশ কিছু আলামত ও তথ্য পাওয়া গেছে। এসব যাচাই-বাছাই করার পাশাপাশি ঘাতকদের গ্রেফতারে অভিযান চালানো হচ্ছে।
ট্যাগস
আপলোডকারীর তথ্য

কুমিল্লায় ছুরিকাঘাতে পত্রিকার হকার নিহত

আপডেট সময় ০৬:০৩:২৫ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১১ এপ্রিল ২০১৭
জেলা প্রতিনিধি, কুমিল্লাঃ
কুমিল্লায় ফারুক হোসেন নামে এক পত্রিকার হকারকে উপর্যুপরি ছুরিকাঘাতে নৃশংসভাবে হত্যা করেছে দুর্বৃৃত্তরা। মঙ্গলবার ভোরে জেলার আদর্শ সদর উপজেলার পালপাড়া এলাকায় পালপাড়া ব্রিজসংলগ্ন বাবুবাজার এলাকায় এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। সে একই উপজেলার উত্তর জামবাড়ি এলাকার আবদুল মান্নানের ছেলে।

 

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, মঙ্গলবার ভোরে গোমতী নদীর পালপাড়া ব্রিজসংলগ্ন বাবুবাজার এলাকায় ফারুক হোসেনের (২৬) শরীরের বিভিন্ন স্থানে ছুরিকাঘাতে ক্ষতবিক্ষত লাশ দেখতে পেয়ে স্থানীয়রা পুলিশকে খবর দেয়। বেলা সাড়ে ১০টার দিকে পুলিশ গিয়ে লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য কুমিল্লা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করে।

 

নিহতের পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, ফারুক প্রতিদিনের ন্যায় ভোরে এজেন্টের নিকট থেকে পত্রিকা আনতে আলেখারচর বিশ্বরোডের উদ্দেশে বাড়ি থেকে বের হন। সকালে স্থানীয়দের মাধ্যমে খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিবারের লোকজন তার লাশ শনাক্ত করেন। নিহতের বাবা আবদুল মান্নান সাংবাদিকদের জানান, ১২-১৩ বছর বয়স থেকে ফারুক জাতীয় ও স্থানীয় পত্রিকার হকারি করে আসছিল। সে অত্যন্ত শান্ত প্রকৃতির ছিল। তার স্ত্রী ও এক মেয়ে। তার কোনো শত্রু ছিল কি-না কিংবা কি কারণে এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটলো তা তিনি জানেন না বলে জানিয়েছেন। এ বিষয়ে কোতয়ালি মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ আবু ছালাম মিয়া জানান, আর্থিক কিংবা ব্যক্তিগত বিরোধের কারণে এ হত্যাকাণ্ড হতে পারে। মৃত্যু নিশ্চিত করতে দুর্বৃত্তরা তার শরীরের বিভিন্ন স্থানে ৬টি ছুরিকাঘাত করেছে। ওসি আরো জানান, হত্যাকাণ্ডের নেপথ্যে বেশ কিছু আলামত ও তথ্য পাওয়া গেছে। এসব যাচাই-বাছাই করার পাশাপাশি ঘাতকদের গ্রেফতারে অভিযান চালানো হচ্ছে।