ঢাকা ০৪:০৭ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই ২০২৪, ৩ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

কুমিল্লায় বাস-সিএনজি সংঘর্ষে নিহত ২, আহত ৪

মো: মাসুম মুন্সী, স্টাফ রিপোর্টার:

০১ জানুয়ারী (মুরাদনগর বার্তা ডটকম):

কুমিল্লার বুড়িচংয়ে যাত্রীবাহী বাস ও সিএনজি অটোরিকশার মুখোমুখি সংঘর্ষে দুজন নিহত ও চারজন আহত হয়েছে। এ ঘটনার পর ঘাতক বাসটিতে আগুন দিয়েছে বিক্ষুব্ধ জনতা। আজ

বৃহস্পতিবার দুপুর পৌনে ১টায় ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে কুমিল্লার বুড়িচং উপজেলার পরিহলপাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন : কুমিল্লার আদর্শ সদর উপজেলার ঘোড়ামাড়া এলাকার আব্দুল করিমের ছেলে সিএনজি অটোরিকশার চালক রনি (৩২) ও একই জেলার বুড়িচং উপজেলার কাকিয়ারচর গ্রামের জয়নাল আবেদীনের ছেলে ইব্রাহীম খলিল (৪০)।

আহতরা হলেন: জেলার বুড়িচং উপজেলার মাধবপুর গ্রামের অহিদুল ইসলামের স্ত্রী নিলুফা আক্তার (২৭), তাঁর মেয়ে আঁখি আক্তার (১৩), আমির হোসেনের মেয়ে সুরভী (১৩) এবং অজ্ঞাত আরও এক ব্যক্তি। এদের মধ্যে আঁখি আক্তার ও সুরভী এবারের জেএসসি পরীক্ষায় পাশ করেছে।
প্রত্যক্ষদর্শী ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, বৃহস্পতিবার দুপুর পৌনে ১টায় জামায়াতের ডাকা হরতালের দ্বিতীয় দিনে ঢাকাগামী যাত্রীবাহী এশিয়া পরিবহনের একটি বাস ও বিপরীত দিক থেকে ছেড়ে আসা যাত্রীবাহী সিএনজি অটোরিকশার মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে ঘটনাস্থলেই দুইজন নিহত ও চারজন আহত হন। আহতদের উদ্ধার করে কাবিলা এলাকার কুমিল্লা ইস্টার্ন মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসার পর উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসাপাতালে পাঠানো হয়। এ ঘটনায় বিক্ষুদ্ধ জনতা ঘাতক এশিয়া পরিবাহনের বাসটিতে অগ্নিসংযোগ করে।

খবর পেয়ে বুড়িচং উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা আ ন ম নাজিম উদ্দিন, হাইওয়ে পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জাহাঙ্গীর আলম, শাহজাহান মিয়া, আশরাফ হোসেন, হাইওয়ে পুলিশ ময়নামতি ক্রসিং ফাঁড়ির ইনচার্জ সোহেল আহমেদ ঘটনাস্থলে পৌঁছান।

ট্যাগস
জনপ্রিয় সংবাদ

শিক্ষার্থীদের উপর হামলার প্রতিবাদে মুরাদনগরে বিক্ষোভ ও সড়ক অবরোধ

কুমিল্লায় বাস-সিএনজি সংঘর্ষে নিহত ২, আহত ৪

আপডেট সময় ০২:১৮:৫২ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১ জানুয়ারী ২০১৫

মো: মাসুম মুন্সী, স্টাফ রিপোর্টার:

০১ জানুয়ারী (মুরাদনগর বার্তা ডটকম):

কুমিল্লার বুড়িচংয়ে যাত্রীবাহী বাস ও সিএনজি অটোরিকশার মুখোমুখি সংঘর্ষে দুজন নিহত ও চারজন আহত হয়েছে। এ ঘটনার পর ঘাতক বাসটিতে আগুন দিয়েছে বিক্ষুব্ধ জনতা। আজ

বৃহস্পতিবার দুপুর পৌনে ১টায় ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে কুমিল্লার বুড়িচং উপজেলার পরিহলপাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন : কুমিল্লার আদর্শ সদর উপজেলার ঘোড়ামাড়া এলাকার আব্দুল করিমের ছেলে সিএনজি অটোরিকশার চালক রনি (৩২) ও একই জেলার বুড়িচং উপজেলার কাকিয়ারচর গ্রামের জয়নাল আবেদীনের ছেলে ইব্রাহীম খলিল (৪০)।

আহতরা হলেন: জেলার বুড়িচং উপজেলার মাধবপুর গ্রামের অহিদুল ইসলামের স্ত্রী নিলুফা আক্তার (২৭), তাঁর মেয়ে আঁখি আক্তার (১৩), আমির হোসেনের মেয়ে সুরভী (১৩) এবং অজ্ঞাত আরও এক ব্যক্তি। এদের মধ্যে আঁখি আক্তার ও সুরভী এবারের জেএসসি পরীক্ষায় পাশ করেছে।
প্রত্যক্ষদর্শী ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, বৃহস্পতিবার দুপুর পৌনে ১টায় জামায়াতের ডাকা হরতালের দ্বিতীয় দিনে ঢাকাগামী যাত্রীবাহী এশিয়া পরিবহনের একটি বাস ও বিপরীত দিক থেকে ছেড়ে আসা যাত্রীবাহী সিএনজি অটোরিকশার মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে ঘটনাস্থলেই দুইজন নিহত ও চারজন আহত হন। আহতদের উদ্ধার করে কাবিলা এলাকার কুমিল্লা ইস্টার্ন মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসার পর উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসাপাতালে পাঠানো হয়। এ ঘটনায় বিক্ষুদ্ধ জনতা ঘাতক এশিয়া পরিবাহনের বাসটিতে অগ্নিসংযোগ করে।

খবর পেয়ে বুড়িচং উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা আ ন ম নাজিম উদ্দিন, হাইওয়ে পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জাহাঙ্গীর আলম, শাহজাহান মিয়া, আশরাফ হোসেন, হাইওয়ে পুলিশ ময়নামতি ক্রসিং ফাঁড়ির ইনচার্জ সোহেল আহমেদ ঘটনাস্থলে পৌঁছান।