ঢাকা ০১:৩৫ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ১৫ এপ্রিল ২০২৪, ১ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

কুমিল্লায় সাক্কু না চাইলেও দুদুর দাবি সেনা

বিশেষ প্রতিনিধিঃ
কুমিল্লা সিটি করপোরেশন নির্বাচনে বিএনপি দলীয় প্রার্থী মনিরুল হক সাক্কু সেনাবাহিনী চান না। সেনাবাহিনীর বদলে প্রতিটি ওয়ার্ডে একজন করে ম্যাজিস্ট্রেট চান তিনি। তবে বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান শামসুজ্জামান দুদু সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচনের জন্য সেখানে সেনাবাহিনী মোতায়েনের দাবি করেছেন। দুদু বলছেন, সেনাবাহিনী মোতায়েন না হলে কুমিল্লায় নির্বাচন সুষ্ঠু হবে না। অবিলম্বে এই সিদ্ধান্ত গ্রহণ করতে নির্বাচন কমিশনের কাছে দাবি জানান তিনি।
সোমবার জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে সম্মিলিত গণতান্ত্রিক জোট আয়োজিত মানববন্ধনে দুদু এই দাবি জানান। জাতীয় নির্বাচনকালীন সহায়ক সরকার প্রতিষ্ঠায় কুমিল্লায় সেনাবাহিনী মোতায়েনের দাবিতেই এই কর্মসূচি পালন করা হয়। জোটের সমন্বয়কারী কাজী মনিরুজ্জামান মনিরের সভাপতিত্বে ন্যাপের মহাসচিব গোলাম মোস্তফা ভুইয়া, বিএনপি নির্বাহী কমিটির সদস্য রফিক শিকদার প্রমুখ বক্তব্য দেন।
প্রসঙ্গত, বিএনপির প্রার্থীরা প্রায় সব সিটি নির্বাচনেই সেনাবাহিনী মোতায়েনের দাবি জানিয়ে আসলেও সাক্কু এই দিক থেকে ব্যতিক্রম। তিনি এখন পর্যন্ত এই দাবি জানান নি।
দুদু বলেন, বর্তমান প্রধান নির্বাচন কমিশনার ছাত্রলীগ ও জনতার মঞ্চের ক্যাডার। তার কাছে কীভাবে নিরপেক্ষ নির্বাচন প্রত্যাশা করা যায়?।
ট্যাগস
আপলোডকারীর তথ্য

মুরাদনগর ভয়াবহ আগুন কয়ক কাটি টাকার ক্ষতি 

কুমিল্লায় সাক্কু না চাইলেও দুদুর দাবি সেনা

আপডেট সময় ০৩:১৬:২০ অপরাহ্ন, সোমবার, ২০ মার্চ ২০১৭
বিশেষ প্রতিনিধিঃ
কুমিল্লা সিটি করপোরেশন নির্বাচনে বিএনপি দলীয় প্রার্থী মনিরুল হক সাক্কু সেনাবাহিনী চান না। সেনাবাহিনীর বদলে প্রতিটি ওয়ার্ডে একজন করে ম্যাজিস্ট্রেট চান তিনি। তবে বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান শামসুজ্জামান দুদু সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচনের জন্য সেখানে সেনাবাহিনী মোতায়েনের দাবি করেছেন। দুদু বলছেন, সেনাবাহিনী মোতায়েন না হলে কুমিল্লায় নির্বাচন সুষ্ঠু হবে না। অবিলম্বে এই সিদ্ধান্ত গ্রহণ করতে নির্বাচন কমিশনের কাছে দাবি জানান তিনি।
সোমবার জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে সম্মিলিত গণতান্ত্রিক জোট আয়োজিত মানববন্ধনে দুদু এই দাবি জানান। জাতীয় নির্বাচনকালীন সহায়ক সরকার প্রতিষ্ঠায় কুমিল্লায় সেনাবাহিনী মোতায়েনের দাবিতেই এই কর্মসূচি পালন করা হয়। জোটের সমন্বয়কারী কাজী মনিরুজ্জামান মনিরের সভাপতিত্বে ন্যাপের মহাসচিব গোলাম মোস্তফা ভুইয়া, বিএনপি নির্বাহী কমিটির সদস্য রফিক শিকদার প্রমুখ বক্তব্য দেন।
প্রসঙ্গত, বিএনপির প্রার্থীরা প্রায় সব সিটি নির্বাচনেই সেনাবাহিনী মোতায়েনের দাবি জানিয়ে আসলেও সাক্কু এই দিক থেকে ব্যতিক্রম। তিনি এখন পর্যন্ত এই দাবি জানান নি।
দুদু বলেন, বর্তমান প্রধান নির্বাচন কমিশনার ছাত্রলীগ ও জনতার মঞ্চের ক্যাডার। তার কাছে কীভাবে নিরপেক্ষ নির্বাচন প্রত্যাশা করা যায়?।