ঢাকা ০১:২১ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২১ মে ২০২৪, ৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

কুমিল্লা উত্তর জেলা আ’লীগের সম্মেলনকে ঘিরে উজ্জিীবিত মুরানগর আ’লীগ

মো: নাজিম উদ্দিন,

রোজ শনিবার, ০৬ ফেব্রুয়ারী ২০১৬ ইং (মুরাদনগর বার্তা ডটকম):
দীর্ঘ ১৮ বছর পর আগামী ১৩ই ফেব্রুয়ারী  অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া কুমিল্লা উত্তর জেলা আওয়ামীলীগের সম্মেলনকে ঘিরে উজ্জীবিত হয়ে ওঠেছে মুরাদনগর উপজেলা আ’লীগের তৃনমূলের নেতা কর্মীরা। কুমিল্লা (উঃ) জেলা আওয়ামীলিগের প্রভাশালী নেতা ও বর্তমান সাধারন সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম সরকারের নেতৃত্বে ঐক্যবদ্ধ মুরাদনগর উপজেলা তথা কুমিল্লা উত্তর জেলার ৭টি উপজেলা ও থানা আওয়ামীলিগের  সকল নেতৃবৃন্দ এবারের অনুষ্ঠেয় সম্মেলনে তাকে সভাপতি নির্বাচিত করার দৃঢ প্রত্যয় ব্যক্ত করেছেন।

সরেজমিনে দেখা যায়, কুমিল্লা উত্তর জেলা আওয়ামীলিগের সম্মেলনকে তৃনমূল নেতা কর্মীদের মধ্যে ব্যাপক উৎসাহ উদ্দীপনা প্রানচাঞ্চল্য মনোভাব বিরাজ করছে। সম্মেলনকে সফল করার লক্ষ্যে বিভিন্নস্থানে আলোচনা সভা থেকে শুরু করছেন বিভিন্ন কর্মকান্ড। তাদের লক্ষ্য এখন একটাই সম্মেলনকে সফল করা।

নেতাকর্মীরা জানান,  আমরা  দলীয় এবং নেতাকর্মীদের প্রয়োজনে সব সময় জাহাঙ্গীর আলম সরকারকে পাশে পাই এবং তিনি সকল নেতাকর্মীদেরকে ঐক্যবদ্ধ রাখার জন্য সবর্দা সচেষ্ট রয়েছেন। আমরা এবারের সম্মেলনে তাকে কুমিল্লা উত্তর জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি হিসেবে পেতে চাই।

মুরাদনগর উপজেলা আ’লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি সৈয়দ আহাম্মদ হোসেন আউয়াল জানান, কুমিল্লা উঃ জেলা আ’লীগের সম্মেলনের ব্যাপারে আমরা স্বত্বঃফুর্ত ভাবে প্রস্তুুত। কাউন্সিলরদের সাথে আমাদের সর্বদিক সমন্নয় রয়েছে। আমরা সাংগঠনিক ভাবে সম্মেলনে অংশ গ্রহনের মাধ্যমে সম্মেলনকে সফল করব। জাহাঙ্গীর আলম সরকারকে সভাপতি পদে অধিষ্ঠিত করার প্রত্যয় ব্যাক্ত করে তিনি বলেন, বর্তমান প্রধানমন্ত্রী দেশরতœ শেখ হাসিনা কেন্দ্রীয় ভাবে যে কোন সময় যে সিদ্ধান্ত গ্রহন করবেন আমরা নেতাকর্মীরা তা মানতে সবর্দা সচেষ্ট।

index

উপজেলা আ’লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আবুল কালাম আজাদ বলেন জননেত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করার লক্ষ্যে এবং কুমিল্লা উঃ জেলা আ’লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনকে সফল করার লক্ষ্যে সকল নেতাকর্মীরা ঐক্যবদ্ধ ভাবে সকল প্রস্তুতি গ্রহন করেছি এবং উক্ত সম্মেলনে জননেতা জাহাঙ্গীর আলম সরকারকে সভাপতি হিসেবে দেখতে চাই।

জানা যায়, ১৯৯৩ সালে কুমিল্লা উত্তর জেলা আওয়ামীলীগের প্রথম কমিটি গঠনের পর ১৯৯৮ সালে দ্বিতীয় বারের মত কমিটি পুর্নগঠণ করা হয়। ওই কমিটিতে প্রবীণ আওয়ামীলীগ নেতা সাবেক ডেপুটি স্পীকার অধ্যাপক মো. আলী আশরাফ এম.পিকে সভাপতি ও মুরাদনগর উপজেলা আওয়ামীলীগের প্রভাবশালী নেতা জাহাঙ্গীর আলমকে সাধারণ সম্পাদক করে কমিটি গঠন করা হয়। ২০০১ সালে অধ্যাপক আলী আশরাফ এম.পি কেন্দ্রিয় আওয়ামীলীগের অর্থ ও পরিকল্পনা বিষয়ক সম্পাদক হওয়ায় সভাপতির পদটি শূন্য হয়। নিয়মানুযায়ী ওই কমিটির সিনিয়র সহ-সভাপতি আব্দুল আউয়াল সরকারকে ভারপ্রাপ্ত সভাপতি করা হয়।

সংগঠনের বিধি মোতাবেক প্রতি তিন বছর পর ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনের মাধ্যমে কমিটি পুর্ণগঠনের কথা থাকলেও সঠিক নেতৃত্বের অভাবে কুমিল্লা জেলা আওয়ামীলীগ অনেকটাই ঝিমিয়ে পড়ে। কুমিল্লা উত্তর জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম সরকার বিভিন্ন সভা-সমাবেশসহ দলীয় কর্মকান্ডে অংশ গ্রহণ করায় সাধারণ সম্পাদক পদটি ছাড়া উত্তর জেলা আওয়ামীলীগের আর কোন নেতার অস্তিত্ব খুঁজে পাওয়া যায়নি।
পরবর্তীতে কেন্দ্রীয় আওয়ামীলীগের নির্দেশে নড়ে উঠে কুমিল্লা জেলা আওয়ামীলীগ। আওয়াজ উঠে কুমিল্লা উত্তর জেলা আওয়ামীলীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনের। আগামী ১৩ই ফেব্রুয়ারী চান্দিনায় কুমিল্লা উত্তর জেলা আওয়ামীলিগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে।

সম্মেলনকে সামনে রেখে অধ্যাপক আলী আশরাফ এমপিকে চেয়ারম্যান ও জাহাঙ্গীর আলম সরকারকে সদস্য সচিব করে সম্মেলন প্রস্তুুতি কমিটি গঠন করা হয়েছে।

ট্যাগস
জনপ্রিয় সংবাদ

কুমিল্লা উত্তর জেলা আ’লীগের সম্মেলনকে ঘিরে উজ্জিীবিত মুরানগর আ’লীগ

আপডেট সময় ০১:৪৯:০৮ অপরাহ্ন, শনিবার, ৬ ফেব্রুয়ারী ২০১৬

মো: নাজিম উদ্দিন,

রোজ শনিবার, ০৬ ফেব্রুয়ারী ২০১৬ ইং (মুরাদনগর বার্তা ডটকম):
দীর্ঘ ১৮ বছর পর আগামী ১৩ই ফেব্রুয়ারী  অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া কুমিল্লা উত্তর জেলা আওয়ামীলীগের সম্মেলনকে ঘিরে উজ্জীবিত হয়ে ওঠেছে মুরাদনগর উপজেলা আ’লীগের তৃনমূলের নেতা কর্মীরা। কুমিল্লা (উঃ) জেলা আওয়ামীলিগের প্রভাশালী নেতা ও বর্তমান সাধারন সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম সরকারের নেতৃত্বে ঐক্যবদ্ধ মুরাদনগর উপজেলা তথা কুমিল্লা উত্তর জেলার ৭টি উপজেলা ও থানা আওয়ামীলিগের  সকল নেতৃবৃন্দ এবারের অনুষ্ঠেয় সম্মেলনে তাকে সভাপতি নির্বাচিত করার দৃঢ প্রত্যয় ব্যক্ত করেছেন।

সরেজমিনে দেখা যায়, কুমিল্লা উত্তর জেলা আওয়ামীলিগের সম্মেলনকে তৃনমূল নেতা কর্মীদের মধ্যে ব্যাপক উৎসাহ উদ্দীপনা প্রানচাঞ্চল্য মনোভাব বিরাজ করছে। সম্মেলনকে সফল করার লক্ষ্যে বিভিন্নস্থানে আলোচনা সভা থেকে শুরু করছেন বিভিন্ন কর্মকান্ড। তাদের লক্ষ্য এখন একটাই সম্মেলনকে সফল করা।

নেতাকর্মীরা জানান,  আমরা  দলীয় এবং নেতাকর্মীদের প্রয়োজনে সব সময় জাহাঙ্গীর আলম সরকারকে পাশে পাই এবং তিনি সকল নেতাকর্মীদেরকে ঐক্যবদ্ধ রাখার জন্য সবর্দা সচেষ্ট রয়েছেন। আমরা এবারের সম্মেলনে তাকে কুমিল্লা উত্তর জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি হিসেবে পেতে চাই।

মুরাদনগর উপজেলা আ’লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি সৈয়দ আহাম্মদ হোসেন আউয়াল জানান, কুমিল্লা উঃ জেলা আ’লীগের সম্মেলনের ব্যাপারে আমরা স্বত্বঃফুর্ত ভাবে প্রস্তুুত। কাউন্সিলরদের সাথে আমাদের সর্বদিক সমন্নয় রয়েছে। আমরা সাংগঠনিক ভাবে সম্মেলনে অংশ গ্রহনের মাধ্যমে সম্মেলনকে সফল করব। জাহাঙ্গীর আলম সরকারকে সভাপতি পদে অধিষ্ঠিত করার প্রত্যয় ব্যাক্ত করে তিনি বলেন, বর্তমান প্রধানমন্ত্রী দেশরতœ শেখ হাসিনা কেন্দ্রীয় ভাবে যে কোন সময় যে সিদ্ধান্ত গ্রহন করবেন আমরা নেতাকর্মীরা তা মানতে সবর্দা সচেষ্ট।

index

উপজেলা আ’লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আবুল কালাম আজাদ বলেন জননেত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করার লক্ষ্যে এবং কুমিল্লা উঃ জেলা আ’লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনকে সফল করার লক্ষ্যে সকল নেতাকর্মীরা ঐক্যবদ্ধ ভাবে সকল প্রস্তুতি গ্রহন করেছি এবং উক্ত সম্মেলনে জননেতা জাহাঙ্গীর আলম সরকারকে সভাপতি হিসেবে দেখতে চাই।

জানা যায়, ১৯৯৩ সালে কুমিল্লা উত্তর জেলা আওয়ামীলীগের প্রথম কমিটি গঠনের পর ১৯৯৮ সালে দ্বিতীয় বারের মত কমিটি পুর্নগঠণ করা হয়। ওই কমিটিতে প্রবীণ আওয়ামীলীগ নেতা সাবেক ডেপুটি স্পীকার অধ্যাপক মো. আলী আশরাফ এম.পিকে সভাপতি ও মুরাদনগর উপজেলা আওয়ামীলীগের প্রভাবশালী নেতা জাহাঙ্গীর আলমকে সাধারণ সম্পাদক করে কমিটি গঠন করা হয়। ২০০১ সালে অধ্যাপক আলী আশরাফ এম.পি কেন্দ্রিয় আওয়ামীলীগের অর্থ ও পরিকল্পনা বিষয়ক সম্পাদক হওয়ায় সভাপতির পদটি শূন্য হয়। নিয়মানুযায়ী ওই কমিটির সিনিয়র সহ-সভাপতি আব্দুল আউয়াল সরকারকে ভারপ্রাপ্ত সভাপতি করা হয়।

সংগঠনের বিধি মোতাবেক প্রতি তিন বছর পর ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনের মাধ্যমে কমিটি পুর্ণগঠনের কথা থাকলেও সঠিক নেতৃত্বের অভাবে কুমিল্লা জেলা আওয়ামীলীগ অনেকটাই ঝিমিয়ে পড়ে। কুমিল্লা উত্তর জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম সরকার বিভিন্ন সভা-সমাবেশসহ দলীয় কর্মকান্ডে অংশ গ্রহণ করায় সাধারণ সম্পাদক পদটি ছাড়া উত্তর জেলা আওয়ামীলীগের আর কোন নেতার অস্তিত্ব খুঁজে পাওয়া যায়নি।
পরবর্তীতে কেন্দ্রীয় আওয়ামীলীগের নির্দেশে নড়ে উঠে কুমিল্লা জেলা আওয়ামীলীগ। আওয়াজ উঠে কুমিল্লা উত্তর জেলা আওয়ামীলীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনের। আগামী ১৩ই ফেব্রুয়ারী চান্দিনায় কুমিল্লা উত্তর জেলা আওয়ামীলিগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে।

সম্মেলনকে সামনে রেখে অধ্যাপক আলী আশরাফ এমপিকে চেয়ারম্যান ও জাহাঙ্গীর আলম সরকারকে সদস্য সচিব করে সম্মেলন প্রস্তুুতি কমিটি গঠন করা হয়েছে।