ঢাকা ১২:৪৪ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৬ জুলাই ২০২৪, ৩১ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

খালেদাকে সুপরিকল্পিতভাবে হত্যার চেষ্টা চলছে: ফখরুল

জাতীয় :

দুর্নীতি মামলায় সাজা হওয়ার পর কারাবন্দি বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে সুপরিকল্পিতভাবে হত্যার চেষ্টা চলছে বলে অভিযোগ করেছেন মির্জা ফখরুল। তিনি বলেছেন, বিএনপি চেয়ারপারসনের মুক্তি সম্পূর্ণটাই নির্ভর করছে সরকারের ওপর।

বুধবার দুপুরে নয়াপল্টনে দলের যৌথসভা শেষে সংবাদ সম্মেলনে এই মন্তব্য করেন তিনি।

মির্জা ফখরুল বলেন, ‘সরকার সুপরিকল্পিতভাবে খালেদা জিয়াকে হত্যা করার জন্য বেআইনিভাবে কারাগারে আটকে রেখেছে। আমরা তাকে বাঁচাতে চাই। তার মুক্তির জন্য সাংবিধানিকভাবে যতরকমের চেষ্টা করার আমরা সবই করছি।’

বিএনপি মহাসচিব বলেন, ‘আইনগতভাবেও যতরকম পথ আছে সবরকম চেষ্টা করে যাচ্ছি। তবে এটা আইনের মধ্যে নেই। সেজন্য জনগণকে সঙ্গে নিয়ে তার মুক্তির জন্য চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি।’

এক প্রশ্নের জবাবে মির্জা ফখরুল বলেন, ‘পরিবারের পক্ষ থেকে প্যারোলের জন্য আবেদন করা হয়েছে কি না সেটা আমার জানা নেই। পরিবারের পক্ষ থেকেও এ বিষয়ে কিছু জানানো হয়নি।’

বিএনপি মহাসচিব বলেন, ‘এখন খালেদার মুক্তির পুরো ইচ্ছেটাই সরকারের হাতে। অন্যায়ভাবে তাকে গ্রেপ্তারের জন্য সরকারই দায়ী। এ ধরনের মামলায় সাত দিনের মধ্যে জামিন হওয়ার কথা। সাধারণ নাগরিকও সাত দিনে জামিন পায়। কিন্তু উনাকে (খালেদা জিয়া) দু’বছর ধরে আটকে রাখা হয়েছে।’

সংবাদ সম্মেলনে খালেদা জিয়ার মুক্তির জন্য নতুন কর্মসূচি ঘোষণার কথা জানান মির্জা ফখরুল। কর্মসূচি অনুযায়ী আগামী শনিবার ঢাকায় মিছিল করবে দলটি। এছাড়া একইদিন দেশব্যাপী বিক্ষোভ মিছিল করবে বিএনপি। 

ট্যাগস
আপলোডকারীর তথ্য

মুরাদনগরে হত্যা মামলায় যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত আসামী গ্রেফতার

খালেদাকে সুপরিকল্পিতভাবে হত্যার চেষ্টা চলছে: ফখরুল

আপডেট সময় ০১:২৭:৩৯ অপরাহ্ন, বুধবার, ১২ ফেব্রুয়ারী ২০২০

জাতীয় :

দুর্নীতি মামলায় সাজা হওয়ার পর কারাবন্দি বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে সুপরিকল্পিতভাবে হত্যার চেষ্টা চলছে বলে অভিযোগ করেছেন মির্জা ফখরুল। তিনি বলেছেন, বিএনপি চেয়ারপারসনের মুক্তি সম্পূর্ণটাই নির্ভর করছে সরকারের ওপর।

বুধবার দুপুরে নয়াপল্টনে দলের যৌথসভা শেষে সংবাদ সম্মেলনে এই মন্তব্য করেন তিনি।

মির্জা ফখরুল বলেন, ‘সরকার সুপরিকল্পিতভাবে খালেদা জিয়াকে হত্যা করার জন্য বেআইনিভাবে কারাগারে আটকে রেখেছে। আমরা তাকে বাঁচাতে চাই। তার মুক্তির জন্য সাংবিধানিকভাবে যতরকমের চেষ্টা করার আমরা সবই করছি।’

বিএনপি মহাসচিব বলেন, ‘আইনগতভাবেও যতরকম পথ আছে সবরকম চেষ্টা করে যাচ্ছি। তবে এটা আইনের মধ্যে নেই। সেজন্য জনগণকে সঙ্গে নিয়ে তার মুক্তির জন্য চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি।’

এক প্রশ্নের জবাবে মির্জা ফখরুল বলেন, ‘পরিবারের পক্ষ থেকে প্যারোলের জন্য আবেদন করা হয়েছে কি না সেটা আমার জানা নেই। পরিবারের পক্ষ থেকেও এ বিষয়ে কিছু জানানো হয়নি।’

বিএনপি মহাসচিব বলেন, ‘এখন খালেদার মুক্তির পুরো ইচ্ছেটাই সরকারের হাতে। অন্যায়ভাবে তাকে গ্রেপ্তারের জন্য সরকারই দায়ী। এ ধরনের মামলায় সাত দিনের মধ্যে জামিন হওয়ার কথা। সাধারণ নাগরিকও সাত দিনে জামিন পায়। কিন্তু উনাকে (খালেদা জিয়া) দু’বছর ধরে আটকে রাখা হয়েছে।’

সংবাদ সম্মেলনে খালেদা জিয়ার মুক্তির জন্য নতুন কর্মসূচি ঘোষণার কথা জানান মির্জা ফখরুল। কর্মসূচি অনুযায়ী আগামী শনিবার ঢাকায় মিছিল করবে দলটি। এছাড়া একইদিন দেশব্যাপী বিক্ষোভ মিছিল করবে বিএনপি।