ঢাকা ০৯:৪৪ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২০ জুলাই ২০২৪, ৫ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

খালেদা কীভাবে বাঁচবে, প্রশ্ন বোন সেলিমার

জাতীয় ডেস্ক:

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ) হাসপাতালে চিকিৎসাধীন দুর্নীতি মামলায় দণ্ডিত বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার সঙ্গে দেখা করে এসে তার স্বজনেরা জানিয়েছেন, সাবেক এই প্রধানমন্ত্রীর শারীরিক অবস্থার আরও অবনতি হয়েছে। এই অবস্থা চলতে থাকলে খালেদা জিয়া কীভাবে বাঁচবেন এটা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন তার বড় বোন সেলিমা ইসলাম। বোনের যথাযথ চিকিৎসা হচ্ছে না বলেও অভিযোগ করেছেন সেলিমা।

সোমবার বিকালে খালেদা জিয়ার পরিবারের পাঁচজন সদস্য এক মাসেরও বেশি সময় পর তার সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন। পরে বেরিয়ে এসে বাইরে অপেক্ষারত সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন সেলিমা ইসলাম।

স্বজনদের মধ্যে আরও ছিলেন সেলিমার স্বামী রফিকুল ইসলাম, ছোট ভাই শামীম ইস্কান্দার ও তার স্ত্রী কানিজ ফাতেমা এবং শামীম ইস্কান্দারের ছেলে অভিক ইস্কান্দার।

স্বজনরা প্রায় দেড় ঘণ্টা সময় খালেদা জিয়ার কাছে ছিলেন। বেরিয়ে এসে সেলিমা ইসলাম সাংবাদিকদের বলেন, ‘ওনার শরীর খুবই খারাপ। হাঁটাচলা করতে পারছেন না, খেতে পারছেন না, খেলেই বমি হয়ে যাচ্ছে। সুগার কন্ট্রোলে (নিয়ন্ত্রণ) আসছে না। এ অবস্থায় তার তো উন্নত চিকিৎসা দরকার। আদালত তো জামিন দিলেন না। পেটে ব্যথা হচ্ছে, ডাক্তার ওষুধ দিচ্ছে না, চিকিৎসা ঠিকমতো হচ্ছে না। এখানে কীভাবে সে বাঁচবে।’

সেলিমা ইসলাম জানান, খালেদা জিয়ার সুগার লেভেল এখন ১৪। তিনি দেশবাসীর কাছে বিএনপি চেয়ারপারসনের জন্য দোয়া চান।

খালেদা জিয়া জামিন না পাওয়ায় ক্ষোভ প্রকাশ করে সেলিমা ইসলাম বলেন, ‘ওনার বয়স, অসুস্থতা বিবেচনা করে তো জামিন দেওয়া উচিত ছিল। জামিন মানে তো ছেড়ে দেওয়া না। জামিন তো দিতেই পারত।’

আদালতে দেয়া মেডিকেল প্রতিবেদনের সঙ্গে বাস্তবতার কোনো মিল নেই বলে দাবি করেন খালেদা জিয়ার বোন। তিনি বোনের উন্নত চিকিৎসার ব্যবস্থা করতে সরকারের প্রতি দাবি জানান।

ট্যাগস
আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

শিক্ষার্থীদের উপর হামলার প্রতিবাদে মুরাদনগরে বিক্ষোভ ও সড়ক অবরোধ

খালেদা কীভাবে বাঁচবে, প্রশ্ন বোন সেলিমার

আপডেট সময় ০২:২৫:১২ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৬ ডিসেম্বর ২০১৯

জাতীয় ডেস্ক:

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ) হাসপাতালে চিকিৎসাধীন দুর্নীতি মামলায় দণ্ডিত বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার সঙ্গে দেখা করে এসে তার স্বজনেরা জানিয়েছেন, সাবেক এই প্রধানমন্ত্রীর শারীরিক অবস্থার আরও অবনতি হয়েছে। এই অবস্থা চলতে থাকলে খালেদা জিয়া কীভাবে বাঁচবেন এটা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন তার বড় বোন সেলিমা ইসলাম। বোনের যথাযথ চিকিৎসা হচ্ছে না বলেও অভিযোগ করেছেন সেলিমা।

সোমবার বিকালে খালেদা জিয়ার পরিবারের পাঁচজন সদস্য এক মাসেরও বেশি সময় পর তার সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন। পরে বেরিয়ে এসে বাইরে অপেক্ষারত সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন সেলিমা ইসলাম।

স্বজনদের মধ্যে আরও ছিলেন সেলিমার স্বামী রফিকুল ইসলাম, ছোট ভাই শামীম ইস্কান্দার ও তার স্ত্রী কানিজ ফাতেমা এবং শামীম ইস্কান্দারের ছেলে অভিক ইস্কান্দার।

স্বজনরা প্রায় দেড় ঘণ্টা সময় খালেদা জিয়ার কাছে ছিলেন। বেরিয়ে এসে সেলিমা ইসলাম সাংবাদিকদের বলেন, ‘ওনার শরীর খুবই খারাপ। হাঁটাচলা করতে পারছেন না, খেতে পারছেন না, খেলেই বমি হয়ে যাচ্ছে। সুগার কন্ট্রোলে (নিয়ন্ত্রণ) আসছে না। এ অবস্থায় তার তো উন্নত চিকিৎসা দরকার। আদালত তো জামিন দিলেন না। পেটে ব্যথা হচ্ছে, ডাক্তার ওষুধ দিচ্ছে না, চিকিৎসা ঠিকমতো হচ্ছে না। এখানে কীভাবে সে বাঁচবে।’

সেলিমা ইসলাম জানান, খালেদা জিয়ার সুগার লেভেল এখন ১৪। তিনি দেশবাসীর কাছে বিএনপি চেয়ারপারসনের জন্য দোয়া চান।

খালেদা জিয়া জামিন না পাওয়ায় ক্ষোভ প্রকাশ করে সেলিমা ইসলাম বলেন, ‘ওনার বয়স, অসুস্থতা বিবেচনা করে তো জামিন দেওয়া উচিত ছিল। জামিন মানে তো ছেড়ে দেওয়া না। জামিন তো দিতেই পারত।’

আদালতে দেয়া মেডিকেল প্রতিবেদনের সঙ্গে বাস্তবতার কোনো মিল নেই বলে দাবি করেন খালেদা জিয়ার বোন। তিনি বোনের উন্নত চিকিৎসার ব্যবস্থা করতে সরকারের প্রতি দাবি জানান।