ঢাকা ১১:৫৮ অপরাহ্ন, বুধবার, ১২ জুন ২০২৪, ২৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

খালেদা জিয়া ভালো আছেন : চিকিৎসক

জাতীয় ডেস্ক:

বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল- বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া ভালো আছেন বলে জানিয়েছেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) পরিচালক আবদুল্লাহ আল হারুন। তিনি বলেন, আপাতদৃষ্টিতে তিনি ভালো আছেন।

শনিবার সাংবাদিদের ব্রিফিংকালে তিনি এই দাবি করেন। আজ এই হাসপাতালে কারাবন্দী খালেদা জিয়ার এক্স-রে করা হয়েছে। তিনি বলেন, বিএনপির চেয়ারপারসন হেঁটে ৫১২ নম্বর কক্ষ থেকে এক্স-রে কক্ষে ঢুকেছেন। সেখান থেকে হেঁটে গাড়িতে উঠেছেন। তিনি আরও বলেন, তার (খালেদা জিয়া) জন্য হুইলচেয়াররের ব্যবস্থা ছিল। কিন্তু তিনি আমাকে বলেছেন, হেঁটে যেতে পারবেন।

আবদুল্লাহ আল হারুন বলেন, বিএনপির চেয়ারপারসন তার পছন্দের ৪জন চিকিৎসককে এক্স-রে কক্ষে রাখার অনুরোধ করেছিলেন। সেই অনুযায়ী ওই চিকিৎসকদের সেখানে রাখা হয়। তারা হলেন ডা. ওয়াহিদুর রহমান, ডা. মামুন, ডা. এফ এম সিদ্দিকী এবং কারাগারে তার ব্যক্তিগত চিকিৎসক।

বিএসএমএমইউয়র পরিচালক বলেন, বিএনপির চেয়ারপারসনের স্বাস্থ্যের প্রকৃত অবস্থা জানা যাবে তার হাড়ের বিভিন্ন অংশের যেসব এক্স-রে করা হয়েছে সেগুলোর প্রতিবেদন পাওয়ার পর। সেই পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে। হাসপাতাল থেকে মেডিকেল প্রতিবেদন কারা কর্তৃপক্ষের কাছে পাঠানো হবে। কারা কর্তৃপক্ষ ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের গঠন করা মেডিকেল বোর্ডকে দেবে। বোর্ডই পরবর্তী করণীয় নির্ধারণ করবে।

ট্যাগস
আপলোডকারীর তথ্য

খালেদা জিয়া ভালো আছেন : চিকিৎসক

আপডেট সময় ০৩:২১:২৪ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ৮ এপ্রিল ২০১৮
জাতীয় ডেস্ক:

বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল- বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া ভালো আছেন বলে জানিয়েছেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) পরিচালক আবদুল্লাহ আল হারুন। তিনি বলেন, আপাতদৃষ্টিতে তিনি ভালো আছেন।

শনিবার সাংবাদিদের ব্রিফিংকালে তিনি এই দাবি করেন। আজ এই হাসপাতালে কারাবন্দী খালেদা জিয়ার এক্স-রে করা হয়েছে। তিনি বলেন, বিএনপির চেয়ারপারসন হেঁটে ৫১২ নম্বর কক্ষ থেকে এক্স-রে কক্ষে ঢুকেছেন। সেখান থেকে হেঁটে গাড়িতে উঠেছেন। তিনি আরও বলেন, তার (খালেদা জিয়া) জন্য হুইলচেয়াররের ব্যবস্থা ছিল। কিন্তু তিনি আমাকে বলেছেন, হেঁটে যেতে পারবেন।

আবদুল্লাহ আল হারুন বলেন, বিএনপির চেয়ারপারসন তার পছন্দের ৪জন চিকিৎসককে এক্স-রে কক্ষে রাখার অনুরোধ করেছিলেন। সেই অনুযায়ী ওই চিকিৎসকদের সেখানে রাখা হয়। তারা হলেন ডা. ওয়াহিদুর রহমান, ডা. মামুন, ডা. এফ এম সিদ্দিকী এবং কারাগারে তার ব্যক্তিগত চিকিৎসক।

বিএসএমএমইউয়র পরিচালক বলেন, বিএনপির চেয়ারপারসনের স্বাস্থ্যের প্রকৃত অবস্থা জানা যাবে তার হাড়ের বিভিন্ন অংশের যেসব এক্স-রে করা হয়েছে সেগুলোর প্রতিবেদন পাওয়ার পর। সেই পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে। হাসপাতাল থেকে মেডিকেল প্রতিবেদন কারা কর্তৃপক্ষের কাছে পাঠানো হবে। কারা কর্তৃপক্ষ ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের গঠন করা মেডিকেল বোর্ডকে দেবে। বোর্ডই পরবর্তী করণীয় নির্ধারণ করবে।