ঢাকা ০৬:৩২ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২০ মে ২০২৪, ৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

হোমনায় ৪০ দোকান উচ্ছেদ ৩২ হাজার টাকা জরিমানা

তপন সরকার, হোমনা প্রতিনিধিঃ

কুমিল্লার হোমনা উপজেলা সদরের রাস্তার অবৈধ ২০টি ফলের ও ২০কাপড়ের দোকান উচ্ছেদ করা হয়েছে।

এ সময় রাস্তায় বালু ফেলে যানচলাচলের বিঘ্নসৃষ্ঠি করায় শিলামনি গার্মেন্সের মালিককে ২০ হাজার এবং ড্রাগ লাইসেন্স না থাকায় মনোরঞ্জন ফার্মেসীর মালিককে ২ হাজার টাকা জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমান আদালত।

এ ছাড়া একই দিনে দুই মাদকাসক্ত ব্যক্তিকে মাদক সেবনের দায়ে ৫ হাজার টাকা করে ১০ হাজার টাকা মোট ৩২ হাজার টাকা জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমান আদালত।

বৃহস্পতিবার বেলা ১১টার দিকে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা কাজী শহিদুল ইসলাম এ আদালত পরিচালনা করে হোমনা পোষ্ট অফিসের সামনে থেকে ২০টি ফলের দোকান ও সরকারী উচ্চ বিদ্যালয়ের পাশথেকে ২০ কাপড়ের দোকান উচ্ছেদ করে। পরে একই আদালত মাদক সেবনের দায়ে আরও দুই ব্যক্তিকে ৫ হাজার করে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করে।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কার্যালয় সুত্রে জানা গেছে, উপজেলা সদরের পোস্ট অফিসের উল্টো দিকে রাস্তা দখল করে ফল ও সবজির প্রায় ২০টি দোকান দেয় এলাকার কিছু ব্যক্তি। অপর দিকে হোমনা সরকারি উচ্চবিদ্যালয়ের উত্তর দিকে রাস্তা দখল করে আরও প্রায় ২০টি কাপড়ের দোকান দেয়। এতে রাস্তায় প্রায়ই জানজটের সৃষ্টি হতো। এলাকাবাসির অভিযোগের প্রেক্ষিতে বৃহস্পতিবার বেলা ১১টার দিকে উপজেলা সদরের শিলামনি গার্মেন্টসের মালিক উজ্জল চন্দ্র পোদ্দারকে রাস্তায় বালু রাখার দায়ে ২০ হাজার, ড্রাগ লাইসেন্স না থাকায় মনোরঞ্জন ফার্মেসীর মালিক শ্রীমদ্দি গ্রামের মনোরঞ্জন বিশ্বাসকে ২ হাজার এবং মাদক সেকনের দায়ে উপজেলার শোভারামপুর গ্রামের আবদুল মালেকের ছেলে আমজাদ হোসেন(১৯) ও আমির আলীর ছেলে খায়রুল ইসলাম(২১) প্রত্যেককে ৫ হাজার টাকা করে মোট ১০ হাজার টাকা জরিমানা করেন। হোমনা থানা পুলিশ গতকাল সকাল নয়টার দিকে হোমনা থানাপুলিশ এ দুই মাদকসেবীকে গ্রেফতার করে বেলা ১২টার দিকে আদালতে হাজির করলে আদালত এ রায় দেন।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা কাজী শহিদুল ইসলাম এর সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, রাস্তা দখল করে দোকান দেওয়া এবং বালু ফেলায় উচ্ছেদ ও জরিমানা করা হয়েছে।

ট্যাগস

হোমনায় ৪০ দোকান উচ্ছেদ ৩২ হাজার টাকা জরিমানা

আপডেট সময় ০৩:৩৬:৪৪ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৬ জুন ২০১৬

তপন সরকার, হোমনা প্রতিনিধিঃ

কুমিল্লার হোমনা উপজেলা সদরের রাস্তার অবৈধ ২০টি ফলের ও ২০কাপড়ের দোকান উচ্ছেদ করা হয়েছে।

এ সময় রাস্তায় বালু ফেলে যানচলাচলের বিঘ্নসৃষ্ঠি করায় শিলামনি গার্মেন্সের মালিককে ২০ হাজার এবং ড্রাগ লাইসেন্স না থাকায় মনোরঞ্জন ফার্মেসীর মালিককে ২ হাজার টাকা জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমান আদালত।

এ ছাড়া একই দিনে দুই মাদকাসক্ত ব্যক্তিকে মাদক সেবনের দায়ে ৫ হাজার টাকা করে ১০ হাজার টাকা মোট ৩২ হাজার টাকা জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমান আদালত।

বৃহস্পতিবার বেলা ১১টার দিকে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা কাজী শহিদুল ইসলাম এ আদালত পরিচালনা করে হোমনা পোষ্ট অফিসের সামনে থেকে ২০টি ফলের দোকান ও সরকারী উচ্চ বিদ্যালয়ের পাশথেকে ২০ কাপড়ের দোকান উচ্ছেদ করে। পরে একই আদালত মাদক সেবনের দায়ে আরও দুই ব্যক্তিকে ৫ হাজার করে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করে।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কার্যালয় সুত্রে জানা গেছে, উপজেলা সদরের পোস্ট অফিসের উল্টো দিকে রাস্তা দখল করে ফল ও সবজির প্রায় ২০টি দোকান দেয় এলাকার কিছু ব্যক্তি। অপর দিকে হোমনা সরকারি উচ্চবিদ্যালয়ের উত্তর দিকে রাস্তা দখল করে আরও প্রায় ২০টি কাপড়ের দোকান দেয়। এতে রাস্তায় প্রায়ই জানজটের সৃষ্টি হতো। এলাকাবাসির অভিযোগের প্রেক্ষিতে বৃহস্পতিবার বেলা ১১টার দিকে উপজেলা সদরের শিলামনি গার্মেন্টসের মালিক উজ্জল চন্দ্র পোদ্দারকে রাস্তায় বালু রাখার দায়ে ২০ হাজার, ড্রাগ লাইসেন্স না থাকায় মনোরঞ্জন ফার্মেসীর মালিক শ্রীমদ্দি গ্রামের মনোরঞ্জন বিশ্বাসকে ২ হাজার এবং মাদক সেকনের দায়ে উপজেলার শোভারামপুর গ্রামের আবদুল মালেকের ছেলে আমজাদ হোসেন(১৯) ও আমির আলীর ছেলে খায়রুল ইসলাম(২১) প্রত্যেককে ৫ হাজার টাকা করে মোট ১০ হাজার টাকা জরিমানা করেন। হোমনা থানা পুলিশ গতকাল সকাল নয়টার দিকে হোমনা থানাপুলিশ এ দুই মাদকসেবীকে গ্রেফতার করে বেলা ১২টার দিকে আদালতে হাজির করলে আদালত এ রায় দেন।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা কাজী শহিদুল ইসলাম এর সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, রাস্তা দখল করে দোকান দেওয়া এবং বালু ফেলায় উচ্ছেদ ও জরিমানা করা হয়েছে।