ঢাকা ০৬:১৩ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৬ জুলাই ২০২৪, ১ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

চান্দিনায় ধর্ষণ চেষ্টাকালে যুবলীগ নেতাকে পিটিয়ে হত্যা

চান্দিনা (কুমিল্লা) প্রতিনিধিঃ

কুমিল্লার চান্দিনায় এক অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূকে ধর্ষণের চেষ্টার সময় যুবলীগ নেতা তানভীর আহমেদ ভূঁইয়াকে (৩২) পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। ওই গৃহবধূর দাবি, তাকে ধর্ষণের চেষ্টাকালে তার স্বামী তাকে পিটিয়ে হত্যা করে। তবে, এই হত্যাকাণ্ড নিয়ে এলাকায় ধুম্রজাল বিরাজ করছে।

বুধবার সকালে তার লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। এর আগে, মঙ্গলবার চান্দিনা উপজেলার বাড়েরা ইউনিয়নের গড়ামারা গ্রামের আক্কাস আলীর বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য গৃহবধূর স্বামী সেলিম মিয়াকে (৩৫) আটক করে পুলিশ।

তানভীর আহমেদ ভূঁইয়া একই ইউনিয়নের গনিপুর গ্রামের বাবুল ভূইয়ার ছেলে এবং বাড়েরা ইউনিয়ন যুবলীগের সহ-সভাপতি।

পুলিশ জানায়, খবর পেয়ে আজ সকালে তানভীরের লাশ উদ্ধার করা হয়। ঘটনাস্থল যেখানে ওই এলাকাটি খুবই ঘনবসতিপূর্ণ। তারপরও এই হত্যাকাণ্ড নিয়ে স্থানীয় কেউ কিছুই জানে না বলে জানায়। তবে, তার বিরুদ্ধে অস্ত্র মামলাসহ একাধিক মামলা রয়েছে।

এ দিকে, রাবেয়া নামে এক অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূ জানান, মঙ্গলবার রাত ২টায় তানভীর তার ঘরে ঢুকে তাকে ধর্ষণের চেষ্টা করে। এ সময় তার স্বামী যুবলীগ নেতা তানভীরকে মারধর করলে তিনি অচেতন হয়ে পড়ে যান। একপর্যায়ে তার মৃত্যু হয়।

তানভীরের মা নিলুফা বেগম জানান, ‘আমার ছেলেকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে। ওই মহিলা যা বলছেন তা মোটেও সত্য না। আমি এই হত্যাকাণ্ডের বিচার চাই।’

বাড়েরা ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান আহসান হাবিব ভূঁইয়া জানান, ‘আমিও ঘটনাস্থলে গিয়েছি, হত্যাকাণ্ডটি সন্দেহজনক। ঘটনাস্থলটি এতই ঘনবসতিপূর্ণ যে ওই বাড়িতে কোনো উঠান নেই। বাড়ির বা পাশের মানুষ ঘটনাটি জানবে না সেটা হতে পারে না। স্থানীয় কোনো মানুষ মুখ খুলছে না।’

চান্দিনা থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) সুজন দত্ত জানান, তার শরীরে আঘাতের চিহ্ন ও পায়ে কাটা চিহ্ন আছে। তবে, কী কারণে হত্যা করেছে এ বিষয়ে এখনো কোনো সুনির্দিষ্ট তথ্য জানা যায়নি।

তিনি আরো বলেন, জিজ্ঞাসাবাদের জন্য সেলিমকে (গৃহবধূর স্বামী) থানায় আনা হয়েছে। তদন্তের পর বিস্তারিত জানানো যাবে।

ট্যাগস
আপলোডকারীর তথ্য

মুরাদনগরে হত্যা মামলায় যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত আসামী গ্রেফতার

চান্দিনায় ধর্ষণ চেষ্টাকালে যুবলীগ নেতাকে পিটিয়ে হত্যা

আপডেট সময় ০৮:৪৪:৩৬ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ৫ জুন ২০২৪

চান্দিনা (কুমিল্লা) প্রতিনিধিঃ

কুমিল্লার চান্দিনায় এক অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূকে ধর্ষণের চেষ্টার সময় যুবলীগ নেতা তানভীর আহমেদ ভূঁইয়াকে (৩২) পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। ওই গৃহবধূর দাবি, তাকে ধর্ষণের চেষ্টাকালে তার স্বামী তাকে পিটিয়ে হত্যা করে। তবে, এই হত্যাকাণ্ড নিয়ে এলাকায় ধুম্রজাল বিরাজ করছে।

বুধবার সকালে তার লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। এর আগে, মঙ্গলবার চান্দিনা উপজেলার বাড়েরা ইউনিয়নের গড়ামারা গ্রামের আক্কাস আলীর বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য গৃহবধূর স্বামী সেলিম মিয়াকে (৩৫) আটক করে পুলিশ।

তানভীর আহমেদ ভূঁইয়া একই ইউনিয়নের গনিপুর গ্রামের বাবুল ভূইয়ার ছেলে এবং বাড়েরা ইউনিয়ন যুবলীগের সহ-সভাপতি।

পুলিশ জানায়, খবর পেয়ে আজ সকালে তানভীরের লাশ উদ্ধার করা হয়। ঘটনাস্থল যেখানে ওই এলাকাটি খুবই ঘনবসতিপূর্ণ। তারপরও এই হত্যাকাণ্ড নিয়ে স্থানীয় কেউ কিছুই জানে না বলে জানায়। তবে, তার বিরুদ্ধে অস্ত্র মামলাসহ একাধিক মামলা রয়েছে।

এ দিকে, রাবেয়া নামে এক অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূ জানান, মঙ্গলবার রাত ২টায় তানভীর তার ঘরে ঢুকে তাকে ধর্ষণের চেষ্টা করে। এ সময় তার স্বামী যুবলীগ নেতা তানভীরকে মারধর করলে তিনি অচেতন হয়ে পড়ে যান। একপর্যায়ে তার মৃত্যু হয়।

তানভীরের মা নিলুফা বেগম জানান, ‘আমার ছেলেকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে। ওই মহিলা যা বলছেন তা মোটেও সত্য না। আমি এই হত্যাকাণ্ডের বিচার চাই।’

বাড়েরা ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান আহসান হাবিব ভূঁইয়া জানান, ‘আমিও ঘটনাস্থলে গিয়েছি, হত্যাকাণ্ডটি সন্দেহজনক। ঘটনাস্থলটি এতই ঘনবসতিপূর্ণ যে ওই বাড়িতে কোনো উঠান নেই। বাড়ির বা পাশের মানুষ ঘটনাটি জানবে না সেটা হতে পারে না। স্থানীয় কোনো মানুষ মুখ খুলছে না।’

চান্দিনা থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) সুজন দত্ত জানান, তার শরীরে আঘাতের চিহ্ন ও পায়ে কাটা চিহ্ন আছে। তবে, কী কারণে হত্যা করেছে এ বিষয়ে এখনো কোনো সুনির্দিষ্ট তথ্য জানা যায়নি।

তিনি আরো বলেন, জিজ্ঞাসাবাদের জন্য সেলিমকে (গৃহবধূর স্বামী) থানায় আনা হয়েছে। তদন্তের পর বিস্তারিত জানানো যাবে।