ঢাকা ১১:৪৬ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল ২০২৪, ৬ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

চিকিৎসার জন্য ভারতে গেলেন আল্লামা শফী

????? ???????? ???? ????? ????? ??????? ???

জাতীয় ডেস্কঃ
চিকিৎসার জন্য ভারতে গেছেন হেফাজতে ইসলামের আমির আল্লামা শাহ আহমদ শফী। শনিবার সকালে ঢাকার শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর হয়ে তিনি ভারতের রাজধানী নয়াদিল্লীতে পৌঁছান। সংগঠন সূত্রে জানা গেছে, দিল্লীর ইন্দিরা গান্ধী আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে হেফাজত আমিরকে স্বাগত জানান, ভারতের দেওবন্দ মাদ্রাসার মুহাদ্দিস আলহাজ সৈয়দ আরশাদ মাদানী।
হেফাজতে ইসলামের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক মাওলানা আজিজুল হক ইসলামাবাদী ইত্তেফাককে জানান, হুজুর বার্ধক্যজনিত কিছু সমস্যায় ভুগছেন। বাংলাদেশি চিকিত্সকদের পরামর্শ অনুযায়ী উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে দিল্লীর অ্যাপোলো হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। হুজুরের সঙ্গে তার দুই ছেলে মাওলানা মোহাম্মদ আনাস মাদাসী ও মাওলানা মোহাম্মদ ইউসুফ এবং ব্যক্তিগত সহকারী মাওলানা শফীসহ কয়েকজন হেফাজত নেতাও রয়েছেন।
উল্লেখ্য, শারীরিক দুর্বলতা ও শ্বাসকষ্টসহ নানা সমস্যা নিয়ে গত ১৮ মে আল্লামা শফী চট্টগ্রাম নগরীর একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি হন। অবস্থার  উন্নতি না হওয়ায় গত ৬ জুন এয়ার অ্যাম্বুলেন্সে করে তাকে ঢাকায় নেয়া হয়। রাজধানীর একটি হাসপাতালে চিকিত্সা শেষে গত ১০ জুলাই নিজ কর্মস্থল চট্টগ্রামের হাটহাজারী মাদ্রাসায় ফেরেন তিনি। অবস্থার অবনতি হওয়ায় চিকিত্সকদের পরামর্শ অনুযায়ী ৯৬ বছর বয়স্ক এই আলেমকে গতকাল ভারতে নিয়ে যাওয়া হয়।
ট্যাগস
আপলোডকারীর তথ্য

মুরাদনগর ভয়াবহ আগুন কয়ক কাটি টাকার ক্ষতি 

চিকিৎসার জন্য ভারতে গেলেন আল্লামা শফী

আপডেট সময় ০৩:৫৫:৩২ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৩ জুলাই ২০১৭
জাতীয় ডেস্কঃ
চিকিৎসার জন্য ভারতে গেছেন হেফাজতে ইসলামের আমির আল্লামা শাহ আহমদ শফী। শনিবার সকালে ঢাকার শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর হয়ে তিনি ভারতের রাজধানী নয়াদিল্লীতে পৌঁছান। সংগঠন সূত্রে জানা গেছে, দিল্লীর ইন্দিরা গান্ধী আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে হেফাজত আমিরকে স্বাগত জানান, ভারতের দেওবন্দ মাদ্রাসার মুহাদ্দিস আলহাজ সৈয়দ আরশাদ মাদানী।
হেফাজতে ইসলামের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক মাওলানা আজিজুল হক ইসলামাবাদী ইত্তেফাককে জানান, হুজুর বার্ধক্যজনিত কিছু সমস্যায় ভুগছেন। বাংলাদেশি চিকিত্সকদের পরামর্শ অনুযায়ী উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে দিল্লীর অ্যাপোলো হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। হুজুরের সঙ্গে তার দুই ছেলে মাওলানা মোহাম্মদ আনাস মাদাসী ও মাওলানা মোহাম্মদ ইউসুফ এবং ব্যক্তিগত সহকারী মাওলানা শফীসহ কয়েকজন হেফাজত নেতাও রয়েছেন।
উল্লেখ্য, শারীরিক দুর্বলতা ও শ্বাসকষ্টসহ নানা সমস্যা নিয়ে গত ১৮ মে আল্লামা শফী চট্টগ্রাম নগরীর একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি হন। অবস্থার  উন্নতি না হওয়ায় গত ৬ জুন এয়ার অ্যাম্বুলেন্সে করে তাকে ঢাকায় নেয়া হয়। রাজধানীর একটি হাসপাতালে চিকিত্সা শেষে গত ১০ জুলাই নিজ কর্মস্থল চট্টগ্রামের হাটহাজারী মাদ্রাসায় ফেরেন তিনি। অবস্থার অবনতি হওয়ায় চিকিত্সকদের পরামর্শ অনুযায়ী ৯৬ বছর বয়স্ক এই আলেমকে গতকাল ভারতে নিয়ে যাওয়া হয়।