ঢাকা ১২:১২ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৩ জুলাই ২০২৪, ৭ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

চীনা নাগরিক প্রবেশ ঠেকাতে সিঙ্গাপুর সীমান্তে কড়াকড়ি

প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাসের বিস্তার ঠেকাতে নতুন করে যাতে কোনো চীনা নাগরিক প্রবেশ করতে না পারে, সেজন্য সীমান্ত বন্ধ করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সিঙ্গাপুর। একইসঙ্গে গত ১৪ দিন ধরে চীনে যেসব পর্যটক অবস্থান করছেন তারাও সিঙ্গাপুরে প্রবেশে নেওয়া সিদ্ধান্তের আওতাভুক্ত রয়েছেন।

সিঙ্গাপুরের এমন সিদ্ধান্তের ফলে করোনা ভাইরাস ঠেকাতে দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার প্রথম কোনো দেশ তাদের সব সীমান্ত বন্ধ করার সিদ্ধান্ত জানালো।

চীনের বৃহৎ বাণিজ্য সহযোগী দেশগুলোর মধ্যে অন্যতম একটি দ্বীপরাষ্ট্র সিঙ্গাপুর। শুধু তাই নয়, চীনা পর্যটকদের কাছে সিঙ্গাপুর অন্যতম জনপ্রিয় স্থান।

সিঙ্গাপুর পর্যটন বোর্ড সূত্রে পাওয়া এক তথ্যে জানা যায়, গত বছরের নভেম্বরে অন্তত আড়াই লাখ চীনা পর্যটক দেশটিতে ভ্রমণে গিয়েছেন। আর ২০১৮ সালে পর্যটকদের সংখ্যা ছিলো ২৪ লাখের বেশি।

এদিকে সিঙ্গাপুরের সব সীমান্ত বন্ধ করার ঘোষণার পর পর্যটকদের ভিসা দেওয়া বন্ধ করার বিষয়টি দ্রুতই জানিয়ে দেবে কর্তৃপক্ষ। আর শনিবার (০১ ফেব্রুয়ারি) স্থানীয় সময় রাত ১১টা ৫৯ মিনিট থেকে সিঙ্গাপুরে ভ্রমণে কড়াকড়ি বিষয়টি কার্যকর হবে।

এদিকে শুক্রবার (৩১ জানুয়ারি) পর্যন্ত দেশটিতে ১৩ জন করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার তথ্য জানিয়েছে সিঙ্গাপুর।

করোনা ভাইরাসে চীনের মূল ভূখণ্ডে শেষ তথ্য পাওয়া পর্যন্ত মোট মৃতের সংখ্যা ২১৩ জনে দাঁড়িয়েছে। একইসঙ্গে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে নতুন করে ভাইরাসটিতে আক্রান্তের সংখ্যাও, যা প্রায় নয় হাজার ছাড়িয়েছে।

অন্যদিকে সবশেষ যুক্তরাজ্যে করোনা ভাইরাসে একই পরিবারের দুই সদস্য আক্রান্ত হওয়ার তথ্য নিশ্চিত করেছে কর্তৃপক্ষ। এর মাধ্যমে দেশটিতে প্রথমবারের মতো ভাইরাসটিতে আক্রান্ত রোগী শনাক্ত করা হলো।

ট্যাগস
আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

শিক্ষার্থীদের উপর হামলার প্রতিবাদে মুরাদনগরে বিক্ষোভ ও সড়ক অবরোধ

চীনা নাগরিক প্রবেশ ঠেকাতে সিঙ্গাপুর সীমান্তে কড়াকড়ি

আপডেট সময় ০১:৫৬:৪৪ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ৩১ জানুয়ারী ২০২০

প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাসের বিস্তার ঠেকাতে নতুন করে যাতে কোনো চীনা নাগরিক প্রবেশ করতে না পারে, সেজন্য সীমান্ত বন্ধ করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সিঙ্গাপুর। একইসঙ্গে গত ১৪ দিন ধরে চীনে যেসব পর্যটক অবস্থান করছেন তারাও সিঙ্গাপুরে প্রবেশে নেওয়া সিদ্ধান্তের আওতাভুক্ত রয়েছেন।

সিঙ্গাপুরের এমন সিদ্ধান্তের ফলে করোনা ভাইরাস ঠেকাতে দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার প্রথম কোনো দেশ তাদের সব সীমান্ত বন্ধ করার সিদ্ধান্ত জানালো।

চীনের বৃহৎ বাণিজ্য সহযোগী দেশগুলোর মধ্যে অন্যতম একটি দ্বীপরাষ্ট্র সিঙ্গাপুর। শুধু তাই নয়, চীনা পর্যটকদের কাছে সিঙ্গাপুর অন্যতম জনপ্রিয় স্থান।

সিঙ্গাপুর পর্যটন বোর্ড সূত্রে পাওয়া এক তথ্যে জানা যায়, গত বছরের নভেম্বরে অন্তত আড়াই লাখ চীনা পর্যটক দেশটিতে ভ্রমণে গিয়েছেন। আর ২০১৮ সালে পর্যটকদের সংখ্যা ছিলো ২৪ লাখের বেশি।

এদিকে সিঙ্গাপুরের সব সীমান্ত বন্ধ করার ঘোষণার পর পর্যটকদের ভিসা দেওয়া বন্ধ করার বিষয়টি দ্রুতই জানিয়ে দেবে কর্তৃপক্ষ। আর শনিবার (০১ ফেব্রুয়ারি) স্থানীয় সময় রাত ১১টা ৫৯ মিনিট থেকে সিঙ্গাপুরে ভ্রমণে কড়াকড়ি বিষয়টি কার্যকর হবে।

এদিকে শুক্রবার (৩১ জানুয়ারি) পর্যন্ত দেশটিতে ১৩ জন করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার তথ্য জানিয়েছে সিঙ্গাপুর।

করোনা ভাইরাসে চীনের মূল ভূখণ্ডে শেষ তথ্য পাওয়া পর্যন্ত মোট মৃতের সংখ্যা ২১৩ জনে দাঁড়িয়েছে। একইসঙ্গে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে নতুন করে ভাইরাসটিতে আক্রান্তের সংখ্যাও, যা প্রায় নয় হাজার ছাড়িয়েছে।

অন্যদিকে সবশেষ যুক্তরাজ্যে করোনা ভাইরাসে একই পরিবারের দুই সদস্য আক্রান্ত হওয়ার তথ্য নিশ্চিত করেছে কর্তৃপক্ষ। এর মাধ্যমে দেশটিতে প্রথমবারের মতো ভাইরাসটিতে আক্রান্ত রোগী শনাক্ত করা হলো।