ঢাকা ১২:৪০ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৬ জুলাই ২০২৪, ৩১ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ছবিতে নিজের যৌনদৃশ্য নিয়ে অকপট মধুমিতা

বিনোদন :

কলকাতার টেলিভিশনের তুমুল জনপ্রিয় অভিনেত্রী মধুমিতা সরকার। ‘বোঝে না সে বোঝে না’, ‘কেয়ার করি না’, ‘কুসুমদোলা’ সিরিয়ালগুলোর মাধ্যমে তিনি এই জনপ্রিয়তা অর্জন করেছেন। সেটাকে পুঁজি করে সম্প্রতি তার অভিষেক হয়েছে চলচ্চিত্রেও। অভিনয় করেছেন প্রতীম ডি গুপ্ত পরিচালিত ও শ্রী ভেঙ্কটেশ ফিল্মস প্রযোজিত ‘লাভ আজ কাল পরশু’ ছবিতে। সেখানে তিনি জুঁটি বেঁধেছেন অর্জুন চক্রবর্তীর সঙ্গে।

সম্প্রতি মুক্তি পেয়েছে ‘লাভ আজ কাল পরশু’র টিজার। সেখানে একটি দৃশ্যে অর্জুন ও মধুমিতা খুবই অন্তরঙ্গ অবস্থায় ধরা দিয়েছেন। সেই দৃশ্য নিয়ে তোলপাড় সোশ্যাল মিডিয়ার নানা মাধ্যম। শুরু হয়েছে বিতর্ক ও সমালোচনা। অতি সম্প্রতি ভারতীয় একটি পত্রিকাকে দেয়া সাক্ষাৎকারে নিজের সেই প্রেম ও যৌনদৃশ্য নিয়ে খোলাখুলি আলোচনা করেন নবাগত এই নায়িকা।

মধুমিতা জানান, তিনি ছোটপর্দার পাখি, ইমন বা সাধারণ কোনো মেয়ে হয়েই শুধু থাকতে চান না। বড় পর্দায় অভিনয় করে নিজেকে ভাঙতে চান। সেই কারণেই চলচ্চিত্রে আসা। তাই বলে প্রথম ছবিতেই এরকম যৌনদৃশ্য! এ প্রসঙ্গে মধুমিতার বক্তব্য, ‘২০২০ সালে দাঁড়িয়ে প্রেমের ছবিতে কোনো যৌনতা থাকবে না, এটা আশা করাই তো ভুল। প্রাপ্তবয়স্ক ছেলে-মেয়ে যদি বন্ধু হয়, তারা একান্তে সময় কাটাবে, একে-অপরকে চুমু খাবে এটাই তো স্বাভাবিক।’

নায়িকা দাবি করেন, ‘হলিউডের ছবিতে আমরা অবাধ যৌনদৃশ্য দেখি। বিদেশিদের অজস্র বার চুমু খেতে দেখি। পার্কে তরুণ-তরুণীদেরও চুমু খেতে দেখা যায়। কিন্তু সেটা বাংলা ছবিতে দেখতে পেলেই একেবারে রে রে করে উঠব! এরকম আর কত দিন চলবে? আসলে আমাদের উপযুক্ত যৌন শিক্ষার অভাব রয়েছে।’

অভিনেতা অর্জুনের সঙ্গে মধুমিতার অন্তরঙ্গ দৃশ্য ছড়িয়ে পড়ার পর তাদের প্রেমের গুঞ্জনও রটে। এ বিষয়ে মধুমিতার জবাব, ‘ছবির টিজার বেরোনোর পর আমার ও অর্জুনের অন্তরঙ্গ দৃশ্য মিডিয়ায় যেভাবে প্রচার করা হয়েছে, তাতে বলার কিছু নেই। অর্জুন ট্যালেন্টেড একজন মানুষ। ওর একটা হ্যাপি ফ্যামিলি আছে, বাচ্চাও আছে। ওর বউকে পর্যন্ত এ ঘটনায় টেনে আনা হয়েছে।’

কিন্তু প্রথম ছবিতে এরকম দৃশ্য কীভাবে করলেন মধুমিতা? অভিনেত্রী বলেন, চিত্রনাট্য পড়েই রাজি হয়ে গিয়েছিলাম। প্রথমেই এত বড় সুযোগ। তবে চুমুর দৃশ্যটা নিয়ে প্রথমে চিন্তিত ছিলাম। প্রতীমদাকে বলেছিলাম, বাড়ির বউ হিসেবে দেখা আমাকে অন্তরঙ্গ দৃশ্যে দেখলে দর্শক কী ভাববে? তখন কি ইউনিটের সবাই থাকবে, নাকি অন্য কিছু হবে? তারপর দেখলাম, শ্যুট করতে করতে জাস্ট হয়ে গেল।’

ব্যক্তিগত জীবনে মধুমিতা ডিভোর্সি। ২০১৫ সালে পরিচালক, প্রযোজক ও অভিনেতা সৌরভ চক্রবর্তীকে বিয়ে করেছিলেন তিনি। টেকেনি সে সংসার। সৌরভের সঙ্গে ডিভোর্স নিয়েও নানা কথা শুনতে হয়েছে তাকে। এ প্রসঙ্গে ক্ষোভ প্রকাশ করে মধুমিতা বলেন, ‘আমার ডিভোর্স হল। মিডিয়া বলতে শুরু করল, আমার নাকি অন্য পুরুষের সঙ্গে সম্পর্ক। মানে অন্য কোনো কারণ থাকতেই পারে না!’

প্রসঙ্গত, টেলিভিশন তারকা মধুমিতা সরকারের অভিষেক ছবি ‘লাভ আজ কাল পরশু’র শুটিং, এডিটিং, পোস্ট প্রোডাকশন শেষ। এখন রয়েছে মুক্তির অপেক্ষায়। এই ছবিতে মধুমিতা এবং অর্জুন ছাড়াও কলকাতার হট সেনসেশন নায়িকা পাওলি দামও রয়েছেন। দুটি বিশেষ চরিত্রে আছেন অনিন্দিতা বসু ও অনিবার্ণ চক্রবর্তী। প্রেমের গল্পের এই ছবি মুক্তি পাবে আগামী ১৪ ফেব্রুয়ারি বিশ্ব ভালোবাসা দিবসে।

ট্যাগস
আপলোডকারীর তথ্য

মুরাদনগরে হত্যা মামলায় যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত আসামী গ্রেফতার

ছবিতে নিজের যৌনদৃশ্য নিয়ে অকপট মধুমিতা

আপডেট সময় ০৩:০০:৪৪ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১১ ফেব্রুয়ারী ২০২০

বিনোদন :

কলকাতার টেলিভিশনের তুমুল জনপ্রিয় অভিনেত্রী মধুমিতা সরকার। ‘বোঝে না সে বোঝে না’, ‘কেয়ার করি না’, ‘কুসুমদোলা’ সিরিয়ালগুলোর মাধ্যমে তিনি এই জনপ্রিয়তা অর্জন করেছেন। সেটাকে পুঁজি করে সম্প্রতি তার অভিষেক হয়েছে চলচ্চিত্রেও। অভিনয় করেছেন প্রতীম ডি গুপ্ত পরিচালিত ও শ্রী ভেঙ্কটেশ ফিল্মস প্রযোজিত ‘লাভ আজ কাল পরশু’ ছবিতে। সেখানে তিনি জুঁটি বেঁধেছেন অর্জুন চক্রবর্তীর সঙ্গে।

সম্প্রতি মুক্তি পেয়েছে ‘লাভ আজ কাল পরশু’র টিজার। সেখানে একটি দৃশ্যে অর্জুন ও মধুমিতা খুবই অন্তরঙ্গ অবস্থায় ধরা দিয়েছেন। সেই দৃশ্য নিয়ে তোলপাড় সোশ্যাল মিডিয়ার নানা মাধ্যম। শুরু হয়েছে বিতর্ক ও সমালোচনা। অতি সম্প্রতি ভারতীয় একটি পত্রিকাকে দেয়া সাক্ষাৎকারে নিজের সেই প্রেম ও যৌনদৃশ্য নিয়ে খোলাখুলি আলোচনা করেন নবাগত এই নায়িকা।

মধুমিতা জানান, তিনি ছোটপর্দার পাখি, ইমন বা সাধারণ কোনো মেয়ে হয়েই শুধু থাকতে চান না। বড় পর্দায় অভিনয় করে নিজেকে ভাঙতে চান। সেই কারণেই চলচ্চিত্রে আসা। তাই বলে প্রথম ছবিতেই এরকম যৌনদৃশ্য! এ প্রসঙ্গে মধুমিতার বক্তব্য, ‘২০২০ সালে দাঁড়িয়ে প্রেমের ছবিতে কোনো যৌনতা থাকবে না, এটা আশা করাই তো ভুল। প্রাপ্তবয়স্ক ছেলে-মেয়ে যদি বন্ধু হয়, তারা একান্তে সময় কাটাবে, একে-অপরকে চুমু খাবে এটাই তো স্বাভাবিক।’

নায়িকা দাবি করেন, ‘হলিউডের ছবিতে আমরা অবাধ যৌনদৃশ্য দেখি। বিদেশিদের অজস্র বার চুমু খেতে দেখি। পার্কে তরুণ-তরুণীদেরও চুমু খেতে দেখা যায়। কিন্তু সেটা বাংলা ছবিতে দেখতে পেলেই একেবারে রে রে করে উঠব! এরকম আর কত দিন চলবে? আসলে আমাদের উপযুক্ত যৌন শিক্ষার অভাব রয়েছে।’

অভিনেতা অর্জুনের সঙ্গে মধুমিতার অন্তরঙ্গ দৃশ্য ছড়িয়ে পড়ার পর তাদের প্রেমের গুঞ্জনও রটে। এ বিষয়ে মধুমিতার জবাব, ‘ছবির টিজার বেরোনোর পর আমার ও অর্জুনের অন্তরঙ্গ দৃশ্য মিডিয়ায় যেভাবে প্রচার করা হয়েছে, তাতে বলার কিছু নেই। অর্জুন ট্যালেন্টেড একজন মানুষ। ওর একটা হ্যাপি ফ্যামিলি আছে, বাচ্চাও আছে। ওর বউকে পর্যন্ত এ ঘটনায় টেনে আনা হয়েছে।’

কিন্তু প্রথম ছবিতে এরকম দৃশ্য কীভাবে করলেন মধুমিতা? অভিনেত্রী বলেন, চিত্রনাট্য পড়েই রাজি হয়ে গিয়েছিলাম। প্রথমেই এত বড় সুযোগ। তবে চুমুর দৃশ্যটা নিয়ে প্রথমে চিন্তিত ছিলাম। প্রতীমদাকে বলেছিলাম, বাড়ির বউ হিসেবে দেখা আমাকে অন্তরঙ্গ দৃশ্যে দেখলে দর্শক কী ভাববে? তখন কি ইউনিটের সবাই থাকবে, নাকি অন্য কিছু হবে? তারপর দেখলাম, শ্যুট করতে করতে জাস্ট হয়ে গেল।’

ব্যক্তিগত জীবনে মধুমিতা ডিভোর্সি। ২০১৫ সালে পরিচালক, প্রযোজক ও অভিনেতা সৌরভ চক্রবর্তীকে বিয়ে করেছিলেন তিনি। টেকেনি সে সংসার। সৌরভের সঙ্গে ডিভোর্স নিয়েও নানা কথা শুনতে হয়েছে তাকে। এ প্রসঙ্গে ক্ষোভ প্রকাশ করে মধুমিতা বলেন, ‘আমার ডিভোর্স হল। মিডিয়া বলতে শুরু করল, আমার নাকি অন্য পুরুষের সঙ্গে সম্পর্ক। মানে অন্য কোনো কারণ থাকতেই পারে না!’

প্রসঙ্গত, টেলিভিশন তারকা মধুমিতা সরকারের অভিষেক ছবি ‘লাভ আজ কাল পরশু’র শুটিং, এডিটিং, পোস্ট প্রোডাকশন শেষ। এখন রয়েছে মুক্তির অপেক্ষায়। এই ছবিতে মধুমিতা এবং অর্জুন ছাড়াও কলকাতার হট সেনসেশন নায়িকা পাওলি দামও রয়েছেন। দুটি বিশেষ চরিত্রে আছেন অনিন্দিতা বসু ও অনিবার্ণ চক্রবর্তী। প্রেমের গল্পের এই ছবি মুক্তি পাবে আগামী ১৪ ফেব্রুয়ারি বিশ্ব ভালোবাসা দিবসে।