ঢাকা ০২:০১ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২৩ জুন ২০২৪, ৮ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

জিম্বাবুয়েকে উড়িয়ে ত্রিদেশীয় সিরিজ শুরু বাংলাদেশের

খেলাধূলা ডেস্কঃ

জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে বাংলাদেশই ছিল পরিস্কার ফেভারিট। সেই তকমার যথার্থতাও দারুণভাবে প্রমাণ করলেন মাশরাফি-সাকিব-তামিমরা।

জিম্বাবুয়েকে উড়িয়ে দিয়ে শুভসূচনা করলেন ত্রিদেশীয় সিরিজের। সাকিবের অলরাউন্ড পারফরম্যান্স আর তামিমের দারুন ব্যাটিংয়ে বাংলাদেশ পেয়েছে ৮ উইকেটের দাপুটে জয়। ১৭১ রানের জয়ের লক্ষ্যে বাংলাদেশ পৌঁছে গেছে ২৮.৩ ওভার ব্যাটিং করেই।

দীর্ঘদিন পর জাতীয় দলের জার্সি গায়ে মাঠে নেমেছিলেন এনামুল হক বিজয়। শুরুটাও করেছিলেন দারুণভাবে। ঝড়ো ব্যাটিং করে সংগ্রহ করেছিলেন ১৯ রান।

কিন্তু ইনিংসটা লম্বা করতে পারেননি ডানহাতি এই ওপেনার। সাজঘরে ফিরে গেছেন চতুর্থ ওভারে। তবে তামিম ইকবাল ও সাকিব আল হাসানের ব্যাটে ভর করে জয়ের পথে অনেকখানি এগিয়ে গিয়েছিল বাংলাদেশ। দ্বিতীয় উইকেটে এই দুই ব্যাটসম্যান গড়েছিলেন ৭৮ রানের জুটি। ২০তম ওভারে সাকিব ৩৭ রান করে ফিরে গেলেও শেষপর্যন্ত উইকেটে থেকে দলকে জিতিয়েই মাঠ ছেড়েছেন তামিম। ৮৪ রানের দারুন ইনিংস খেলে অপরাজিত ছিলেন এই বাঁহাতি ওপেনার। ১৪ রানের ছোট্ট ইনিংস এসেছে মুশফিকুর রহিমের ব্যাট থেকে।

ইমরুল কায়েস ইনজুরির কবলে পড়ায় প্রায় তিন বছর পর আবার জাতীয় দলে জায়গা পেয়েছিলেন এনামুল। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ত্রিদেশীয় সিরিজের প্রথম ম্যাচে ওপেন করতে নেমেছিলেন তামিম ইকবালের সঙ্গে। চারটি চার মেরে শুরুটা ভালোভাবে করলেও খুব বেশিক্ষণ উইকেটে থাকতে পারেননি এনামুল। ফিরে গেছেন ১৯ রান করে।

এর আগে টস হেরে ব্যাট করতে নেমে সিকান্দার রাজার ৫২, পিজে মুরের ৩৩, ব্রেন্ডন টেলরের ২৪ রানের ইনিংসগুলোতে ভর করে স্কোরবোর্ডে ১৭০ রান জমা করতে পেরেছে জিম্বাবুয়ে।

বাংলাদেশের পক্ষে দারুণ বোলিং করে তিনটি উইকেট নিয়েছেন সাকিব। দুটি করে উইকেট গেছে মুস্তাফিজুর রহমান ও সানজামুল ইসলামের ঝুলিতে।

ট্যাগস
আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

জিম্বাবুয়েকে উড়িয়ে ত্রিদেশীয় সিরিজ শুরু বাংলাদেশের

আপডেট সময় ০২:০৮:০৫ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৫ জানুয়ারী ২০১৮
খেলাধূলা ডেস্কঃ

জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে বাংলাদেশই ছিল পরিস্কার ফেভারিট। সেই তকমার যথার্থতাও দারুণভাবে প্রমাণ করলেন মাশরাফি-সাকিব-তামিমরা।

জিম্বাবুয়েকে উড়িয়ে দিয়ে শুভসূচনা করলেন ত্রিদেশীয় সিরিজের। সাকিবের অলরাউন্ড পারফরম্যান্স আর তামিমের দারুন ব্যাটিংয়ে বাংলাদেশ পেয়েছে ৮ উইকেটের দাপুটে জয়। ১৭১ রানের জয়ের লক্ষ্যে বাংলাদেশ পৌঁছে গেছে ২৮.৩ ওভার ব্যাটিং করেই।

দীর্ঘদিন পর জাতীয় দলের জার্সি গায়ে মাঠে নেমেছিলেন এনামুল হক বিজয়। শুরুটাও করেছিলেন দারুণভাবে। ঝড়ো ব্যাটিং করে সংগ্রহ করেছিলেন ১৯ রান।

কিন্তু ইনিংসটা লম্বা করতে পারেননি ডানহাতি এই ওপেনার। সাজঘরে ফিরে গেছেন চতুর্থ ওভারে। তবে তামিম ইকবাল ও সাকিব আল হাসানের ব্যাটে ভর করে জয়ের পথে অনেকখানি এগিয়ে গিয়েছিল বাংলাদেশ। দ্বিতীয় উইকেটে এই দুই ব্যাটসম্যান গড়েছিলেন ৭৮ রানের জুটি। ২০তম ওভারে সাকিব ৩৭ রান করে ফিরে গেলেও শেষপর্যন্ত উইকেটে থেকে দলকে জিতিয়েই মাঠ ছেড়েছেন তামিম। ৮৪ রানের দারুন ইনিংস খেলে অপরাজিত ছিলেন এই বাঁহাতি ওপেনার। ১৪ রানের ছোট্ট ইনিংস এসেছে মুশফিকুর রহিমের ব্যাট থেকে।

ইমরুল কায়েস ইনজুরির কবলে পড়ায় প্রায় তিন বছর পর আবার জাতীয় দলে জায়গা পেয়েছিলেন এনামুল। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ত্রিদেশীয় সিরিজের প্রথম ম্যাচে ওপেন করতে নেমেছিলেন তামিম ইকবালের সঙ্গে। চারটি চার মেরে শুরুটা ভালোভাবে করলেও খুব বেশিক্ষণ উইকেটে থাকতে পারেননি এনামুল। ফিরে গেছেন ১৯ রান করে।

এর আগে টস হেরে ব্যাট করতে নেমে সিকান্দার রাজার ৫২, পিজে মুরের ৩৩, ব্রেন্ডন টেলরের ২৪ রানের ইনিংসগুলোতে ভর করে স্কোরবোর্ডে ১৭০ রান জমা করতে পেরেছে জিম্বাবুয়ে।

বাংলাদেশের পক্ষে দারুণ বোলিং করে তিনটি উইকেট নিয়েছেন সাকিব। দুটি করে উইকেট গেছে মুস্তাফিজুর রহমান ও সানজামুল ইসলামের ঝুলিতে।