ঢাকা ০৮:৫৪ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ১৫ জুলাই ২০২৪, ৩১ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

জ্যাকসনকেও ছাড়িয়ে গেলেন টেইলর সুইফট

বিনোদন:

আমেরিকান মিউজিক অ্যাওয়ার্ড (এএমএ) প্রাপ্তিতে পপসম্রাট মাইকেল জ্যাকসনকেও ছাড়িয়ে গেলেন টেইলর সুইফট। এ বছর টেইলর সুইফট এ বছর ‘আর্টিস্ট অব দ্য ইয়ার’ ও ‘আর্টিস্ট অব দ্য ডিকেড’ বিভাগে পুরস্কার জিতেছেন। তার মোট এএমএ পুরস্কারের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২৯টিতে। অন্যদিকে এ পুরস্কারের মধ্য দিয়ে টেইলর সুইফট পপসম্রাট মাইকেল জ্যাকসনের ২৪টি পুরস্কারের রেকর্ড ছাড়িয়ে গেলেন।

যুক্তরাষ্ট্রের লস অ্যাঞ্জেলেসের মাইক্রোসফট থিয়েটারে রবিবার রাতে আমেরিকান মিউজিক অ্যাওয়ার্ড (এএমএ) ২০১৯ প্রদান করা হয়। সেখানেই জনপ্রিয় শিল্পী ড্রেক, আরিয়ানা গ্র্যান্ড, হালসি ও পোস্ট ম্যালোনকে পেছনে ফেললেন টেইলর সুইফট। তিনি বলেন, ‘বছরটা আমাকে সবচেয়ে আশ্চর্যজনক কিছু সময় উপহার দিয়েছিল, পাশাপাশি সেই সময়ে আমি আমার জীবনের কঠিনতম বিষয়গুলো পার করেছি।’

পুরস্কার গ্রহণের বক্তৃতায় সুইফট বলেন, ‘এ সম্মান ১০ বছর ধরে করা কঠোর পরিশ্রম, শিল্প, আনন্দ ও স্মৃতির উদযাপন। আমার কাছে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ স্মৃতি হলো, আমি আপনাদের সঙ্গে ছিলাম, আমি আমার ভক্তদের সঙ্গে ছিলাম।’

এর আগে সুইফট তার সর্বশেষ অ্যালবাম লাভার-এর জন্য প্রিয় পপ বা রক অ্যালবাম পুরস্কার জিতেছেন। এ জয় মাইকেল জ্যাকসনকে সিংহাসনচ্যুত করে তাকে এখন পর্যন্ত সবচেয়ে সফল এএমএ শিল্পী করে তুলেছে।

এই পপসংগীত তারকার জন্ম ১৯৮৯ সালের ১৩ ডিসেম্বর মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের পেনসিলভানিয়ায়। মাত্র ১৪ বছর বয়সে টেইলর সুইফট গান গাওয়া শুরু করেন। বিগ মেশিন রেকর্ডসের সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ হয়েছিলেন ২০০৩ সালে। সে সময় সর্বকনিষ্ঠ গীতিকার হিসেবে সনি মিউজিকের সঙ্গেও কাজ করেছেন তিনি।

সংগীতশিল্পী টেইলর সুইফটের প্রথম অ্যালবামটির নামও ছিল এই শিল্পীর নামেই। টেইলর সুইফট শিরোনামের এই অ্যালবামের সবগুলো গানই ছিল ‘কান্ট্রি সং’ ধাঁচের। প্রথম অ্যালবামটিই এই সংগীতশিল্পীকে দ্রুত তারকাখ্যাতি এনে দেয়।

ট্যাগস
আপলোডকারীর তথ্য

মুরাদনগরে হত্যা মামলায় যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত আসামী গ্রেফতার

জ্যাকসনকেও ছাড়িয়ে গেলেন টেইলর সুইফট

আপডেট সময় ০২:০৮:৫৬ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৮ নভেম্বর ২০১৯

বিনোদন:

আমেরিকান মিউজিক অ্যাওয়ার্ড (এএমএ) প্রাপ্তিতে পপসম্রাট মাইকেল জ্যাকসনকেও ছাড়িয়ে গেলেন টেইলর সুইফট। এ বছর টেইলর সুইফট এ বছর ‘আর্টিস্ট অব দ্য ইয়ার’ ও ‘আর্টিস্ট অব দ্য ডিকেড’ বিভাগে পুরস্কার জিতেছেন। তার মোট এএমএ পুরস্কারের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২৯টিতে। অন্যদিকে এ পুরস্কারের মধ্য দিয়ে টেইলর সুইফট পপসম্রাট মাইকেল জ্যাকসনের ২৪টি পুরস্কারের রেকর্ড ছাড়িয়ে গেলেন।

যুক্তরাষ্ট্রের লস অ্যাঞ্জেলেসের মাইক্রোসফট থিয়েটারে রবিবার রাতে আমেরিকান মিউজিক অ্যাওয়ার্ড (এএমএ) ২০১৯ প্রদান করা হয়। সেখানেই জনপ্রিয় শিল্পী ড্রেক, আরিয়ানা গ্র্যান্ড, হালসি ও পোস্ট ম্যালোনকে পেছনে ফেললেন টেইলর সুইফট। তিনি বলেন, ‘বছরটা আমাকে সবচেয়ে আশ্চর্যজনক কিছু সময় উপহার দিয়েছিল, পাশাপাশি সেই সময়ে আমি আমার জীবনের কঠিনতম বিষয়গুলো পার করেছি।’

পুরস্কার গ্রহণের বক্তৃতায় সুইফট বলেন, ‘এ সম্মান ১০ বছর ধরে করা কঠোর পরিশ্রম, শিল্প, আনন্দ ও স্মৃতির উদযাপন। আমার কাছে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ স্মৃতি হলো, আমি আপনাদের সঙ্গে ছিলাম, আমি আমার ভক্তদের সঙ্গে ছিলাম।’

এর আগে সুইফট তার সর্বশেষ অ্যালবাম লাভার-এর জন্য প্রিয় পপ বা রক অ্যালবাম পুরস্কার জিতেছেন। এ জয় মাইকেল জ্যাকসনকে সিংহাসনচ্যুত করে তাকে এখন পর্যন্ত সবচেয়ে সফল এএমএ শিল্পী করে তুলেছে।

এই পপসংগীত তারকার জন্ম ১৯৮৯ সালের ১৩ ডিসেম্বর মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের পেনসিলভানিয়ায়। মাত্র ১৪ বছর বয়সে টেইলর সুইফট গান গাওয়া শুরু করেন। বিগ মেশিন রেকর্ডসের সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ হয়েছিলেন ২০০৩ সালে। সে সময় সর্বকনিষ্ঠ গীতিকার হিসেবে সনি মিউজিকের সঙ্গেও কাজ করেছেন তিনি।

সংগীতশিল্পী টেইলর সুইফটের প্রথম অ্যালবামটির নামও ছিল এই শিল্পীর নামেই। টেইলর সুইফট শিরোনামের এই অ্যালবামের সবগুলো গানই ছিল ‘কান্ট্রি সং’ ধাঁচের। প্রথম অ্যালবামটিই এই সংগীতশিল্পীকে দ্রুত তারকাখ্যাতি এনে দেয়।