ঢাকা ১০:২৬ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৬ জুন ২০২৪, ২ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ডির্ভোসের কথা স্বীকার করলেন শাকিব

বিনোদন ডেস্কঃ

ঢাকাই চলচ্চিত্রের সুপারস্টার শাকিব খান স্ত্রী অপু বিশ্বাসকে ডিভোর্সের চিঠি পাঠিয়েছেন। বেশ কয়েকটি বেসরকারি স্যাটেলাইট টিভি চ্যানেল ডিভোর্স লেটার পাঠানোর খবরটি প্রচার করছে। এ ব্যাপারে শাকিবের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, হ্যাঁ অপুর কাছে ডিভোর্সের চিঠি পাঠিয়েছি।

শাকিব ডিভোর্স পেপার পাঠানোর বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, ঘটনা সত্য। আমি ভারতে আসার আগে ডিভোর্স পেপারে সাক্ষর করেছি। এর বেশি কিছু বলতে চাই না।

জানা গেছে, গত ৩০ নভেম্বর ভারতের হায়দরাবাদের যাওয়ার আগে ডিভোর্স পেপারে সাক্ষর করে গেছেন শাকিব খান। বিবাহ বিচ্ছেদের এর আইনজীবী ছিলেন রোকন উদ্দিন মাহমুদ।

শাকিব-অপু গোপনে বিয়ে করেন ২০০৮ সালের ১৮ এপ্রিল। বিয়ের ৮ বছরের মাথায় তাদের কোল জুড়ে আসে এক পুত্রসন্তান। তার নাম আব্রাহাম খান জয়।  ২০১৬ সালের ২৭ সেপ্টেম্বর কলকাতার একটি ক্লিনিকে সিজারের মাধ্যমে জয়ের জন্ম হয়।

অপু বিশ্বাস ২০০৪ সালে আমজাদ হোসেনের ‘কাল সকালে’ ছবির মাধ্যমে চলচ্চিত্রে পা রাখেন। এরপর ২০০৬ সালে পরিচালক এফ আই মানিক পরিচালিত ‘কোটি টাকার কাবিন’ ছবিতে নায়িকা হিসেবে শাকিব খানের বিপরীতে অভিনয় করেন তিনি।

২০০৬ থেকে ২০১৭ সাল পর্যন্ত টানা এই জুটি একাধারে ৭০টির মতো ছবিতে জুটি বাঁধেন। একসঙ্গে কাজ করতে গিয়ে একসময় পরস্পর প্রেমের বাঁধনে জড়িয়ে যান। এরপর ২০০৮ সালের ১৮ এপ্রিল বিয়ের পিঁড়িতে বসেছিলেন শাকিব-অপু। বিষয়টি গোপন ছিল।

এরপর এ বছরের ১০ এপ্রিল বিকেল ৪টায় দেশের একটি বেসরকারি টিভি চ্যানেলে সাক্ষাৎকার দিতে গিয়ে, একপ্রকার হাটে হাড়ি ভেঙে দেন অপু। বিষয়টি নিয়ে শাকিব নাখোশ ছিলেন প্রথম থেকেই। যার পরিণতি চূড়ান্ত বিচ্ছেদের পথেই হাঁটলো।

শাকিব খান বর্তমানে ভারতে নোলক ছবির শুটিং নিয়ে ব্যস্ত রয়েছেন বলে জানা গেছে।

ট্যাগস
আপলোডকারীর তথ্য

ডির্ভোসের কথা স্বীকার করলেন শাকিব

আপডেট সময় ১২:৫৪:০৪ অপরাহ্ন, সোমবার, ৪ ডিসেম্বর ২০১৭
বিনোদন ডেস্কঃ

ঢাকাই চলচ্চিত্রের সুপারস্টার শাকিব খান স্ত্রী অপু বিশ্বাসকে ডিভোর্সের চিঠি পাঠিয়েছেন। বেশ কয়েকটি বেসরকারি স্যাটেলাইট টিভি চ্যানেল ডিভোর্স লেটার পাঠানোর খবরটি প্রচার করছে। এ ব্যাপারে শাকিবের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, হ্যাঁ অপুর কাছে ডিভোর্সের চিঠি পাঠিয়েছি।

শাকিব ডিভোর্স পেপার পাঠানোর বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, ঘটনা সত্য। আমি ভারতে আসার আগে ডিভোর্স পেপারে সাক্ষর করেছি। এর বেশি কিছু বলতে চাই না।

জানা গেছে, গত ৩০ নভেম্বর ভারতের হায়দরাবাদের যাওয়ার আগে ডিভোর্স পেপারে সাক্ষর করে গেছেন শাকিব খান। বিবাহ বিচ্ছেদের এর আইনজীবী ছিলেন রোকন উদ্দিন মাহমুদ।

শাকিব-অপু গোপনে বিয়ে করেন ২০০৮ সালের ১৮ এপ্রিল। বিয়ের ৮ বছরের মাথায় তাদের কোল জুড়ে আসে এক পুত্রসন্তান। তার নাম আব্রাহাম খান জয়।  ২০১৬ সালের ২৭ সেপ্টেম্বর কলকাতার একটি ক্লিনিকে সিজারের মাধ্যমে জয়ের জন্ম হয়।

অপু বিশ্বাস ২০০৪ সালে আমজাদ হোসেনের ‘কাল সকালে’ ছবির মাধ্যমে চলচ্চিত্রে পা রাখেন। এরপর ২০০৬ সালে পরিচালক এফ আই মানিক পরিচালিত ‘কোটি টাকার কাবিন’ ছবিতে নায়িকা হিসেবে শাকিব খানের বিপরীতে অভিনয় করেন তিনি।

২০০৬ থেকে ২০১৭ সাল পর্যন্ত টানা এই জুটি একাধারে ৭০টির মতো ছবিতে জুটি বাঁধেন। একসঙ্গে কাজ করতে গিয়ে একসময় পরস্পর প্রেমের বাঁধনে জড়িয়ে যান। এরপর ২০০৮ সালের ১৮ এপ্রিল বিয়ের পিঁড়িতে বসেছিলেন শাকিব-অপু। বিষয়টি গোপন ছিল।

এরপর এ বছরের ১০ এপ্রিল বিকেল ৪টায় দেশের একটি বেসরকারি টিভি চ্যানেলে সাক্ষাৎকার দিতে গিয়ে, একপ্রকার হাটে হাড়ি ভেঙে দেন অপু। বিষয়টি নিয়ে শাকিব নাখোশ ছিলেন প্রথম থেকেই। যার পরিণতি চূড়ান্ত বিচ্ছেদের পথেই হাঁটলো।

শাকিব খান বর্তমানে ভারতে নোলক ছবির শুটিং নিয়ে ব্যস্ত রয়েছেন বলে জানা গেছে।