ঢাকা ০৭:৫৪ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২৪ মে ২০২৪, ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ঢাকা-সিলেট মহাসড়ক চারলেনে উন্নীত করা হবে: ওবায়দুল

জাতীয় ডেস্কঃ
সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ‘চীন সরকারেরর অর্থায়নে জি-টু-জি ভিত্তিতে ঢাকা-সিলেট মহাসড়ক উভয়পাশে পৃথক সার্ভিসলেনসহ চারলেনে উন্নীত করা হবে। এ প্রকল্প বাস্তবায়নে প্রাথমিক সম্ভাব্য ব্যয় ধরা হয়েছে ১৭ হাজার কোটি টাকা।’
রবিবার এ লক্ষ্যে চীন সরকারের মনোনীত প্রতিষ্ঠান চায়না হারবার ইঞ্জিনিয়ারিং কোম্পানি লি. এর সাথে সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তরের ফ্রেমওয়ার্ক এগ্রিমেন্ট সই হয়।
চুক্তিস্বাক্ষর অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের আরো বলেন, ‘কাঁচপুর থেকে সিলেট পর্যন্ত ২শ’ ২৬ কিলোমিটার দীর্ঘ মহাসড়ক চারলেনে উন্নীত করা হবে। এ প্রকল্প বাস্তবায়নে প্রাথমিক সম্ভাব্য ব্যয় ধরা হয়েছে ১৭ হাজার কোটি টাকা। তবে কারিগরি কমিটি পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে প্রকৃত ব্যয় নির্ধারণ করে।’
চুক্তিস্বাক্ষর অনুষ্ঠানে মন্ত্রী আরো বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা অনুযায়ী আগামীতে যতগুলো মহাসড়ক চারলেনে উন্নীত করা হবে তার সবগুলোর দু’পাশে ধীর গতির যানবাহন চলাচলের জন্য পৃথক সার্ভিসলেন থাকবে।’
অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মাঝে উপস্থিত ছিলেন সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগের সচিব এমএএন ছিদ্দিক, জাতিসংঘে নিযুক্ত বাংলাদেশের সাবেক স্থায়ী প্রতিনিধি অর্থনীতিবিদ এম এ মোমিন, সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তরের প্রধান প্রকৌশলী ইবনে আলম হাসান, চায়না হারবার ইঞ্জিনিয়ারিং কোম্পানি লি. এর প্রেসিডেন্ট মি. তাং শিয়াওলিয়াং।
চুক্তিতে সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তরের প্রধান প্রকৌশলী এবং চায়না হারবার ইঞ্জিনিয়ারিং কোম্পানি লি. এর প্রেসিডেন্ট নিজনিজ পক্ষে সই করেন। বাসস।
ট্যাগস
জনপ্রিয় সংবাদ

মুরাদনগর বাবুটিপাড়া ইউনিয়ন বিএনপি’র সভাপতির ইন্তেকাল

ঢাকা-সিলেট মহাসড়ক চারলেনে উন্নীত করা হবে: ওবায়দুল

আপডেট সময় ০২:১৪:০২ অপরাহ্ন, রবিবার, ৯ অক্টোবর ২০১৬
জাতীয় ডেস্কঃ
সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ‘চীন সরকারেরর অর্থায়নে জি-টু-জি ভিত্তিতে ঢাকা-সিলেট মহাসড়ক উভয়পাশে পৃথক সার্ভিসলেনসহ চারলেনে উন্নীত করা হবে। এ প্রকল্প বাস্তবায়নে প্রাথমিক সম্ভাব্য ব্যয় ধরা হয়েছে ১৭ হাজার কোটি টাকা।’
রবিবার এ লক্ষ্যে চীন সরকারের মনোনীত প্রতিষ্ঠান চায়না হারবার ইঞ্জিনিয়ারিং কোম্পানি লি. এর সাথে সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তরের ফ্রেমওয়ার্ক এগ্রিমেন্ট সই হয়।
চুক্তিস্বাক্ষর অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের আরো বলেন, ‘কাঁচপুর থেকে সিলেট পর্যন্ত ২শ’ ২৬ কিলোমিটার দীর্ঘ মহাসড়ক চারলেনে উন্নীত করা হবে। এ প্রকল্প বাস্তবায়নে প্রাথমিক সম্ভাব্য ব্যয় ধরা হয়েছে ১৭ হাজার কোটি টাকা। তবে কারিগরি কমিটি পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে প্রকৃত ব্যয় নির্ধারণ করে।’
চুক্তিস্বাক্ষর অনুষ্ঠানে মন্ত্রী আরো বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা অনুযায়ী আগামীতে যতগুলো মহাসড়ক চারলেনে উন্নীত করা হবে তার সবগুলোর দু’পাশে ধীর গতির যানবাহন চলাচলের জন্য পৃথক সার্ভিসলেন থাকবে।’
অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মাঝে উপস্থিত ছিলেন সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগের সচিব এমএএন ছিদ্দিক, জাতিসংঘে নিযুক্ত বাংলাদেশের সাবেক স্থায়ী প্রতিনিধি অর্থনীতিবিদ এম এ মোমিন, সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তরের প্রধান প্রকৌশলী ইবনে আলম হাসান, চায়না হারবার ইঞ্জিনিয়ারিং কোম্পানি লি. এর প্রেসিডেন্ট মি. তাং শিয়াওলিয়াং।
চুক্তিতে সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তরের প্রধান প্রকৌশলী এবং চায়না হারবার ইঞ্জিনিয়ারিং কোম্পানি লি. এর প্রেসিডেন্ট নিজনিজ পক্ষে সই করেন। বাসস।