ঢাকা ০৬:৫১ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২৪ মে ২০২৪, ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

তিতাসে অস্ত্রসহ শীর্ষ সন্ত্রাসী সাগর আটক

দেলোয়ার হোসেন, স্টাফ রির্পোটারঃ

জেলার তিতাস উপজেলার মজিদপুর গ্রামে সংখ্যালঘুর জায়গা জোরপূবর্ক ঘর দখর করার সময় শীর্ষ সন্ত্রাসী সাগর(২৮)কে আটক করেছে পুলিশ। এ সময় পুলিশ তার কাছ থেকে একটি বিদেশি পিস্তল ও ২ রাউন্ড গুলি উদ্ধার।

আটককৃত সাগর তিতাস উপজেলার মজিদপুর গ্রামের হাবুল মিয়ার ছেলে। তার বিরুদ্ধে হত্যা, চাঁদাবাজি, অস্ত্র, ডাকাতি, ছিনতাই ও নারী নির্যাতনসহ ২০টি মামলা রয়েছে।

পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, আজ বুধবার দুপুরে উপজেলার মজিদপুর ইউনিয়নের শান্তির বাজারের দক্ষিণ পাশে কুমোদ চন্দ্রের ছেলে কালা চান মিয়াকে বাড়ি থেকে উচ্ছেদ করে সন্ত্রাসীরা। এ সময় তারা কালা চান এর ঘর দখল করে সন্ত্রাসী কার্যকলাপে লিপ্ত থাকে। খবর পেয়ে পুলিশ সেই ঘর থেকে শীর্ষ সন্ত্রাসী সাগরকে অস্ত্রসহ ঝাপটে ধরেন। এ সময় অন্য সন্ত্রাসীরা পালিয়ে যায়।

এলাকাবাসী আরো জানায়, সন্ত্রাসী সাগরের ভয়ে আশেপাশের কয়েকটি হিন্দু পরিবার এলাকা থেকে পালিয়ে যায়। তার ভয়ে সাধারণ মানুষ মুখ খুলতে ভয় পায়।

এ ব্যাপারে কালা চান মিয়া বলেন, সন্ত্রাসী  সাগর ও তার সাঙ্গ-পাঙ্গুদের অত্যাচারে আমরা কয়েকটি পরিবার বাড়ি ছাড়া। জোরপূর্বক আমার ঘর দখল করে সন্ত্রাসীদের আশ্রয় কেন্দ্র পরিণত করে। আমরা ভয়ে মুখ খুলতে পারি না। তার অত্যাচারে সংখ্যালঘু পরিবারসহ সাধারণ ভয়ে আতঙ্কে রয়েছে।

এ ব্যাপারে উপ-পরিদর্শক মো. শহিদ উদ্দিন বলেন, সন্ত্রাসী সাগরের অত্যাচারে মজিদপুর শান্তির বাজারের কয়েকটি হিন্দু পরিবার এলাকাছাড়া। এক হিন্দু পরিবারের ঘর দখল করে সন্ত্রাসী কার্যকলাপ চালানোর সময় বিদেশি পিস্তলসহ হাতেনাতে তাকে (সাগর) আটক করেছি। তার বিরুদ্ধে তিতাস, দাউদকান্দি ও হোমনা থানায় বিভিন্ন অভিযোগে ২০টি মামলা রয়েছে। অস্ত্র আইনে থানায় আরও একটি মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

ট্যাগস
জনপ্রিয় সংবাদ

মুরাদনগর বাবুটিপাড়া ইউনিয়ন বিএনপি’র সভাপতির ইন্তেকাল

তিতাসে অস্ত্রসহ শীর্ষ সন্ত্রাসী সাগর আটক

আপডেট সময় ০৫:৩৭:০২ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৯ জুন ২০১৬
দেলোয়ার হোসেন, স্টাফ রির্পোটারঃ

জেলার তিতাস উপজেলার মজিদপুর গ্রামে সংখ্যালঘুর জায়গা জোরপূবর্ক ঘর দখর করার সময় শীর্ষ সন্ত্রাসী সাগর(২৮)কে আটক করেছে পুলিশ। এ সময় পুলিশ তার কাছ থেকে একটি বিদেশি পিস্তল ও ২ রাউন্ড গুলি উদ্ধার।

আটককৃত সাগর তিতাস উপজেলার মজিদপুর গ্রামের হাবুল মিয়ার ছেলে। তার বিরুদ্ধে হত্যা, চাঁদাবাজি, অস্ত্র, ডাকাতি, ছিনতাই ও নারী নির্যাতনসহ ২০টি মামলা রয়েছে।

পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, আজ বুধবার দুপুরে উপজেলার মজিদপুর ইউনিয়নের শান্তির বাজারের দক্ষিণ পাশে কুমোদ চন্দ্রের ছেলে কালা চান মিয়াকে বাড়ি থেকে উচ্ছেদ করে সন্ত্রাসীরা। এ সময় তারা কালা চান এর ঘর দখল করে সন্ত্রাসী কার্যকলাপে লিপ্ত থাকে। খবর পেয়ে পুলিশ সেই ঘর থেকে শীর্ষ সন্ত্রাসী সাগরকে অস্ত্রসহ ঝাপটে ধরেন। এ সময় অন্য সন্ত্রাসীরা পালিয়ে যায়।

এলাকাবাসী আরো জানায়, সন্ত্রাসী সাগরের ভয়ে আশেপাশের কয়েকটি হিন্দু পরিবার এলাকা থেকে পালিয়ে যায়। তার ভয়ে সাধারণ মানুষ মুখ খুলতে ভয় পায়।

এ ব্যাপারে কালা চান মিয়া বলেন, সন্ত্রাসী  সাগর ও তার সাঙ্গ-পাঙ্গুদের অত্যাচারে আমরা কয়েকটি পরিবার বাড়ি ছাড়া। জোরপূর্বক আমার ঘর দখল করে সন্ত্রাসীদের আশ্রয় কেন্দ্র পরিণত করে। আমরা ভয়ে মুখ খুলতে পারি না। তার অত্যাচারে সংখ্যালঘু পরিবারসহ সাধারণ ভয়ে আতঙ্কে রয়েছে।

এ ব্যাপারে উপ-পরিদর্শক মো. শহিদ উদ্দিন বলেন, সন্ত্রাসী সাগরের অত্যাচারে মজিদপুর শান্তির বাজারের কয়েকটি হিন্দু পরিবার এলাকাছাড়া। এক হিন্দু পরিবারের ঘর দখল করে সন্ত্রাসী কার্যকলাপ চালানোর সময় বিদেশি পিস্তলসহ হাতেনাতে তাকে (সাগর) আটক করেছি। তার বিরুদ্ধে তিতাস, দাউদকান্দি ও হোমনা থানায় বিভিন্ন অভিযোগে ২০টি মামলা রয়েছে। অস্ত্র আইনে থানায় আরও একটি মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।