ঢাকা ০৪:৪৬ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২১ জুন ২০২৪, ৬ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

তিতাসে গ্রেফতার আতংকে আত্মগোপনে বিএনপির নেতাকর্মীরা : আটক ৪

নাজমুল করিম ফারুক, তিতাস (কুমিল্লা) প্রতিনিধিঃ

বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার দুর্নীতি মামলা রায় ঘিরে উত্তেজনা নিয়ন্ত্রণে কুমিল্লার তিতাস থানা পুলিশের তৎপরতার কারণে গ্রেফতার থেকে বাঁচতে আত্মগোপনে রয়েছে বিএনপি ও জামায়াতের স্থানীয় নেতাকর্মীরা। থানা পুলিশ মঙ্গলবার রাতে অভিযান চালিয়ে ৪জন আটক করে বুধবার জেল হাজতে প্রেরণ করেছে।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, বেগম খালেদা জিয়ার রায় ঘিরে এলাকার নেতাকর্মীরা গত দু’দিন যাবৎ আত্মগোপনে রয়েছে। উপজেলার একাধিক দায়িত্বশীল নেতার মোবাইল ফোন বন্ধ পাওয়া যায়। যাদেরকে ফোনে পাওয়া যায় তারা তাদের অবস্থান নিশ্চিত করতে অনিহা প্রকাশ করে। নামপ্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক বিএনপি’র নেতা জানান, মুলত: পুলিশিং হয়রানীর থেকে বাঁচতে আত্মগোপনে রয়েছে।

এদিকে, থানা পুলিশ মঙ্গলবার রাতে অভিযান চালিয়ে উপজেলার বিভিন্ন স্থান থেকে ৪জনকে আটক করে। বুধবার নাশকতা ও সহিষ্ণুতা মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে তাদের কোর্টে প্রেরণ করা হয়। এজাহারনামীয় ১৬জন ও অজ্ঞাত নামা ৩৫/৪০জনকে আসামী করে তিতাস থানার এসআই মো. সেলিম সরদার বাদী হয়ে মামলাটি করেন। আটককৃতরা হলো- জগতপুর ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি আমিনুল ইসলাম মানিক, জিয়ারকান্দি ইউনিয়ন যুবদলের সাংগঠনিক সম্পাদক মনিরুল হক আখন, বলরামপুর ইউনিয়ন শ্রমিকদলের সভাপতি রফিকুল ইসলাম ও বলরামপুর ইউনিয়নের কালাইগোবিন্দপুর ওয়ার্ড বিএনপির সভাপতি মোস্তাক আহমেদ।

তিতাস থানার অফিসার ইনচার্জ মো. নুরুল আলম টিপু জানান, বেগম খালেদা জিয়ার দুর্নীতি মামলা রায় ঘিরে এলাকায় যেন কোন বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি না হয় এবং জান-মালের নিরাপত্তার স্বার্থে পুলিশের বিশেষ নজর রয়েছে।

ট্যাগস
আপলোডকারীর তথ্য

তিতাসে গ্রেফতার আতংকে আত্মগোপনে বিএনপির নেতাকর্মীরা : আটক ৪

আপডেট সময় ০১:২০:৩৮ অপরাহ্ন, বুধবার, ৭ ফেব্রুয়ারী ২০১৮
নাজমুল করিম ফারুক, তিতাস (কুমিল্লা) প্রতিনিধিঃ

বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার দুর্নীতি মামলা রায় ঘিরে উত্তেজনা নিয়ন্ত্রণে কুমিল্লার তিতাস থানা পুলিশের তৎপরতার কারণে গ্রেফতার থেকে বাঁচতে আত্মগোপনে রয়েছে বিএনপি ও জামায়াতের স্থানীয় নেতাকর্মীরা। থানা পুলিশ মঙ্গলবার রাতে অভিযান চালিয়ে ৪জন আটক করে বুধবার জেল হাজতে প্রেরণ করেছে।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, বেগম খালেদা জিয়ার রায় ঘিরে এলাকার নেতাকর্মীরা গত দু’দিন যাবৎ আত্মগোপনে রয়েছে। উপজেলার একাধিক দায়িত্বশীল নেতার মোবাইল ফোন বন্ধ পাওয়া যায়। যাদেরকে ফোনে পাওয়া যায় তারা তাদের অবস্থান নিশ্চিত করতে অনিহা প্রকাশ করে। নামপ্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক বিএনপি’র নেতা জানান, মুলত: পুলিশিং হয়রানীর থেকে বাঁচতে আত্মগোপনে রয়েছে।

এদিকে, থানা পুলিশ মঙ্গলবার রাতে অভিযান চালিয়ে উপজেলার বিভিন্ন স্থান থেকে ৪জনকে আটক করে। বুধবার নাশকতা ও সহিষ্ণুতা মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে তাদের কোর্টে প্রেরণ করা হয়। এজাহারনামীয় ১৬জন ও অজ্ঞাত নামা ৩৫/৪০জনকে আসামী করে তিতাস থানার এসআই মো. সেলিম সরদার বাদী হয়ে মামলাটি করেন। আটককৃতরা হলো- জগতপুর ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি আমিনুল ইসলাম মানিক, জিয়ারকান্দি ইউনিয়ন যুবদলের সাংগঠনিক সম্পাদক মনিরুল হক আখন, বলরামপুর ইউনিয়ন শ্রমিকদলের সভাপতি রফিকুল ইসলাম ও বলরামপুর ইউনিয়নের কালাইগোবিন্দপুর ওয়ার্ড বিএনপির সভাপতি মোস্তাক আহমেদ।

তিতাস থানার অফিসার ইনচার্জ মো. নুরুল আলম টিপু জানান, বেগম খালেদা জিয়ার দুর্নীতি মামলা রায় ঘিরে এলাকায় যেন কোন বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি না হয় এবং জান-মালের নিরাপত্তার স্বার্থে পুলিশের বিশেষ নজর রয়েছে।