ঢাকা ০৬:২৭ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২০ মে ২০২৪, ৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

তৃতীয় বিশ্বযুদ্ধ প্রায় নিশ্চিত!

প্রবাস ডেস্ক রির্পোটঃ

তৃতীয় বিশ্বযুদ্ধ প্রায় নিশ্চিত বলে জানিয়েছেন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের উচ্চ পর্যায়ের সেনা কর্মকর্তারা। অত্যন্ত মারাত্মক এই যুদ্ধ অতি শিগগিরই শুরু হয়ে যাবে বলেও উল্লেখ করেছেন তাঁরা। ওয়াশিংটনে ‘সামরিক বাহিনীর ভবিষ্যৎ’ শীর্ষক এক অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেছেন বাহিনীটির জেনারেলসহ বিভিন্ন নেতৃস্থানীয় কর্মকর্তারা।

যুক্তরাজ্যের সংবাদমাধ্যম ডেইলি সান জানিয়েছে, ভীষণ রকমের আক্রমণাত্মক জাতি-রাষ্ট্রের মধ্যে হতে যাওয়া এই যুদ্ধে অত্যাধুনিক অস্ত্র ও কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা ব্যবহার করা হবে। যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক প্রতিষ্ঠান ডিফেন্স ওয়ানের প্রতিবেদন অনুযায়ী, ওই অনুষ্ঠানে অংশ নিয়ে মেজর জেনারেল উইলিয়াম হিক্স বলেন, ‘অদূর ভবিষ্যতে একটি সামাজিক দ্বন্দ্ব মারাত্মক আকার ধারণ করবে। এবং এটা শেষ হওয়ার কোনো নির্দিষ্ট সময় থাকবে না। এই যুদ্ধের গতি নির্ভর করবে মানুষের ক্ষমতার ওপরে।’

হিক্স আরো বলেছেন, এই যুদ্ধের জন্য স্মরণকালের সবচেয়ে বেশি প্রস্তুতি নিচ্ছে মার্কিন সৈন্যরা। এ ছাড়া নতুন নতুন প্রযুক্তি নিয়ে প্রস্তুত হচ্ছে চীন ও রাশিয়াও।

জাতি-রাষ্ট্রের মধ্যে এই যুদ্ধ প্রায় নিশ্চিত বলে মন্তব্য করেন মার্কিন সেনাপ্রধান জেনারেল মার্ক এ মাইলি।

চীনকে ক্রমবর্ধমান হুমকি হিসেবে উল্লেখ করে ডিফেন্স ওয়ানের ওই প্রতিবেদনে আরো বলা হয়েছে, এ দুই শক্তি, অর্থাৎ চীন ও রাশিয়া ক্রমাগতভাবে প্রযুক্তিগত দিক থেকে শক্তিশালী সামরিক বাহিনী প্রস্তুত করছে। আর এর মাধ্যমে তাঁরা যুক্তরাষ্ট্রকেও যুদ্ধের জন্য ভাবতে বাধ্য করছে।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত সেনাসদস্যদের উদ্দেশে সেনাপ্রধান মাইলি বলেন, যুক্তরাষ্ট্রকে পরবর্তী সাইবার যুদ্ধের জন্যও প্রস্তুত থাকতে হবে। প্রয়োজনে গেরিলা পদ্ধতিতেও যুদ্ধ করতে হবে। তিনি বলেন, ‘এখন আমরা প্রস্তুত। আমাদের চ্যালেঞ্জ করা হয়েছে। আমাদের সেনাবাহিনী এবং গোটা জাতি এখন প্রস্তুত।’

এর আগে চলতি মাসের শুরুতে সিরিয়া নিয়ে সৃষ্ট উত্তেজক পরিস্থিতিতে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র রাশিয়ার ওপর হামলা চালাতে পারে বলে দেশটির কর্মকর্তা ও গণমাধ্যমকে সতর্ক করে দেওয়া হয়। সেইসঙ্গে তৃতীয় বিশ্বযুদ্ধে অংশ নিতে দেশটির নাগরিকদের সতর্কও করে দেয় রাশিয়ার কর্তৃপক্ষ।

ট্যাগস

তৃতীয় বিশ্বযুদ্ধ প্রায় নিশ্চিত!

আপডেট সময় ০৩:০৪:৪৬ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ৭ অক্টোবর ২০১৬
প্রবাস ডেস্ক রির্পোটঃ

তৃতীয় বিশ্বযুদ্ধ প্রায় নিশ্চিত বলে জানিয়েছেন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের উচ্চ পর্যায়ের সেনা কর্মকর্তারা। অত্যন্ত মারাত্মক এই যুদ্ধ অতি শিগগিরই শুরু হয়ে যাবে বলেও উল্লেখ করেছেন তাঁরা। ওয়াশিংটনে ‘সামরিক বাহিনীর ভবিষ্যৎ’ শীর্ষক এক অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেছেন বাহিনীটির জেনারেলসহ বিভিন্ন নেতৃস্থানীয় কর্মকর্তারা।

যুক্তরাজ্যের সংবাদমাধ্যম ডেইলি সান জানিয়েছে, ভীষণ রকমের আক্রমণাত্মক জাতি-রাষ্ট্রের মধ্যে হতে যাওয়া এই যুদ্ধে অত্যাধুনিক অস্ত্র ও কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা ব্যবহার করা হবে। যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক প্রতিষ্ঠান ডিফেন্স ওয়ানের প্রতিবেদন অনুযায়ী, ওই অনুষ্ঠানে অংশ নিয়ে মেজর জেনারেল উইলিয়াম হিক্স বলেন, ‘অদূর ভবিষ্যতে একটি সামাজিক দ্বন্দ্ব মারাত্মক আকার ধারণ করবে। এবং এটা শেষ হওয়ার কোনো নির্দিষ্ট সময় থাকবে না। এই যুদ্ধের গতি নির্ভর করবে মানুষের ক্ষমতার ওপরে।’

হিক্স আরো বলেছেন, এই যুদ্ধের জন্য স্মরণকালের সবচেয়ে বেশি প্রস্তুতি নিচ্ছে মার্কিন সৈন্যরা। এ ছাড়া নতুন নতুন প্রযুক্তি নিয়ে প্রস্তুত হচ্ছে চীন ও রাশিয়াও।

জাতি-রাষ্ট্রের মধ্যে এই যুদ্ধ প্রায় নিশ্চিত বলে মন্তব্য করেন মার্কিন সেনাপ্রধান জেনারেল মার্ক এ মাইলি।

চীনকে ক্রমবর্ধমান হুমকি হিসেবে উল্লেখ করে ডিফেন্স ওয়ানের ওই প্রতিবেদনে আরো বলা হয়েছে, এ দুই শক্তি, অর্থাৎ চীন ও রাশিয়া ক্রমাগতভাবে প্রযুক্তিগত দিক থেকে শক্তিশালী সামরিক বাহিনী প্রস্তুত করছে। আর এর মাধ্যমে তাঁরা যুক্তরাষ্ট্রকেও যুদ্ধের জন্য ভাবতে বাধ্য করছে।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত সেনাসদস্যদের উদ্দেশে সেনাপ্রধান মাইলি বলেন, যুক্তরাষ্ট্রকে পরবর্তী সাইবার যুদ্ধের জন্যও প্রস্তুত থাকতে হবে। প্রয়োজনে গেরিলা পদ্ধতিতেও যুদ্ধ করতে হবে। তিনি বলেন, ‘এখন আমরা প্রস্তুত। আমাদের চ্যালেঞ্জ করা হয়েছে। আমাদের সেনাবাহিনী এবং গোটা জাতি এখন প্রস্তুত।’

এর আগে চলতি মাসের শুরুতে সিরিয়া নিয়ে সৃষ্ট উত্তেজক পরিস্থিতিতে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র রাশিয়ার ওপর হামলা চালাতে পারে বলে দেশটির কর্মকর্তা ও গণমাধ্যমকে সতর্ক করে দেওয়া হয়। সেইসঙ্গে তৃতীয় বিশ্বযুদ্ধে অংশ নিতে দেশটির নাগরিকদের সতর্কও করে দেয় রাশিয়ার কর্তৃপক্ষ।