ঢাকা ০৯:২৪ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৬ জুন ২০২৪, ২ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ত্রিদেশীয় সিরিজ মিসের শঙ্কায় সাকিব

খেলাধূলা ডেস্কঃ

সাকিব আল হাসানকে প্রথম দুটি ম্যাচে না পাওয়ার মানসিক প্রস্তুতি ছিল দলের। তবে এখন অধিনায়ককে পুরো ত্রিদেশীয় সিরিজেই না পাওয়ার শঙ্কায় বাংলাদেশ। থাইল্যান্ডে কোনো সুখবর পাননি সাকিব। দেশে ফেরার পর এক সপ্তাহ বিসিবির চিকিৎসকদের পর্যবেক্ষণে থাকবেন এই অলরাউন্ডার।

দেশের মাটিতে গত ২৭ জানুয়ারি ত্রিদেশীয় ওয়ানডে সিরিজে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ফাইনালে আঙুলে চোট পান সাকিব। সেই চোট তাকে বাইরে রেখেছিল শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে টেস্ট ও টি-টোয়েন্টি সিরিজে। সেরে না উঠলেও ভারত, শ্রীলঙ্কা ও বাংলাদেশকে নিয়ে ত্রিদেশীয় টি-টোয়েন্টি সিরিজের দলে রাখা হয় এই অলরাউন্ডারকে।

সোমবার অর্থোপেডিক বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিতে থাইল্যান্ড যান সাকিব। সেখানে বিশ্বের অন্যতম সেরা অলরাউন্ডার জেনেছেন, দুই সপ্তাহ ফিজিওথেরাপি নিতে হবে তাকে।

বিসিবির প্রধান ক্রীড়া চিকিৎসক ডা.দেবাশীষ চৌধুরী জানান, বৃহস্পতিবার থাইল্যান্ডে একবার ফিজিওথেরাপি নিয়ে দেশে ফিরবেন সাকিব। এরপর ওকে আরও এক সপ্তাহ ফিজিওথেরাপি দেওয়া হবে। এরপর আমরা দেখব পরিস্থিতি কি। যদি অগ্রগতি হয় তাহলে এটা চলতে থাকবে, নয়তো আমাদের পরবর্তী পদক্ষেপ নিতে হবে।

চোট থেকে সেরে উঠার পর শুরু হবে সাকিবের পুনর্বাসন প্রক্রিয়া।

বৃহস্পতিবার রাতে দেশে ফিরবেন সাকিব। পরদিন শুরু হবে ত্রিদেশীয় সিরিজের জন্য বাংলাদেশের প্রস্তুতি। বিসিবির প্রধান নির্বাহী নিজাম উদ্দিন চৌধুরী জানান, সাকিবের সঙ্গে আলোচনা করে তার ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেবেন তারা।

“ও আগে দেশে ফিরুক। ওর সঙ্গে আমরা আলোচনা করি। এরপর ওর শ্রীলঙ্কা যাওয়া নিয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।”

ত্রিদেশীয় সিরিজে অংশ নিতে ৪ মার্চ কলম্বো যাবে বাংলাদেশ দল। সেখানে তাদের প্রথম ম্যাচ ৮ মার্চ।

ট্যাগস
আপলোডকারীর তথ্য

ত্রিদেশীয় সিরিজ মিসের শঙ্কায় সাকিব

আপডেট সময় ০২:০৫:১১ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০১৮
খেলাধূলা ডেস্কঃ

সাকিব আল হাসানকে প্রথম দুটি ম্যাচে না পাওয়ার মানসিক প্রস্তুতি ছিল দলের। তবে এখন অধিনায়ককে পুরো ত্রিদেশীয় সিরিজেই না পাওয়ার শঙ্কায় বাংলাদেশ। থাইল্যান্ডে কোনো সুখবর পাননি সাকিব। দেশে ফেরার পর এক সপ্তাহ বিসিবির চিকিৎসকদের পর্যবেক্ষণে থাকবেন এই অলরাউন্ডার।

দেশের মাটিতে গত ২৭ জানুয়ারি ত্রিদেশীয় ওয়ানডে সিরিজে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ফাইনালে আঙুলে চোট পান সাকিব। সেই চোট তাকে বাইরে রেখেছিল শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে টেস্ট ও টি-টোয়েন্টি সিরিজে। সেরে না উঠলেও ভারত, শ্রীলঙ্কা ও বাংলাদেশকে নিয়ে ত্রিদেশীয় টি-টোয়েন্টি সিরিজের দলে রাখা হয় এই অলরাউন্ডারকে।

সোমবার অর্থোপেডিক বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিতে থাইল্যান্ড যান সাকিব। সেখানে বিশ্বের অন্যতম সেরা অলরাউন্ডার জেনেছেন, দুই সপ্তাহ ফিজিওথেরাপি নিতে হবে তাকে।

বিসিবির প্রধান ক্রীড়া চিকিৎসক ডা.দেবাশীষ চৌধুরী জানান, বৃহস্পতিবার থাইল্যান্ডে একবার ফিজিওথেরাপি নিয়ে দেশে ফিরবেন সাকিব। এরপর ওকে আরও এক সপ্তাহ ফিজিওথেরাপি দেওয়া হবে। এরপর আমরা দেখব পরিস্থিতি কি। যদি অগ্রগতি হয় তাহলে এটা চলতে থাকবে, নয়তো আমাদের পরবর্তী পদক্ষেপ নিতে হবে।

চোট থেকে সেরে উঠার পর শুরু হবে সাকিবের পুনর্বাসন প্রক্রিয়া।

বৃহস্পতিবার রাতে দেশে ফিরবেন সাকিব। পরদিন শুরু হবে ত্রিদেশীয় সিরিজের জন্য বাংলাদেশের প্রস্তুতি। বিসিবির প্রধান নির্বাহী নিজাম উদ্দিন চৌধুরী জানান, সাকিবের সঙ্গে আলোচনা করে তার ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেবেন তারা।

“ও আগে দেশে ফিরুক। ওর সঙ্গে আমরা আলোচনা করি। এরপর ওর শ্রীলঙ্কা যাওয়া নিয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।”

ত্রিদেশীয় সিরিজে অংশ নিতে ৪ মার্চ কলম্বো যাবে বাংলাদেশ দল। সেখানে তাদের প্রথম ম্যাচ ৮ মার্চ।