ঢাকা ০৬:৩৮ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২৪ মে ২০২৪, ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

দেবিদ্বারে অজ্ঞাত যুবকের লাশ উদ্ধার

শাহিন আলম, দেবিদ্বার প্রতিনিধিঃ

রোজ শুক্রবার, ৩১ জুলাই ২০১৫ ইং (মুরাদনগর বার্তা ডটকম)ঃ

কুমিল্লা দেবিদ্বার উপজেলার জাফরগঞ্জ ইউনিয়নের চরবাকর নামক স্থান থেকে শুক্রবার সকালে গোমতী নদীর পানিতে ভেসে আসা অবস্থায় আজ্ঞাত(২২) এক যুবকের লাশ উদ্ধার করেছে দেবিদ্বার থানা পুলিশ।

স্থানীয় ও পুলিশ জানায়,শুক্রবার সকালে উপজেলার চরবাকর নামক এলাকার গোমতী নদীতে লাশ ভাসতে দেখে স্থানীয়রা পুলিশকে বিষয়টি জানালে দেবিদ্বার থানার উপ-পরিদর্শক এস আই মো: নূরুল ইসলাম ও মোঃ জাকির সিকদারের নেতৃত্বে একদল পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে গন্ধযুক্ত ফোলা আজ্ঞাত(২২) বছরের এক যুবকের লাশ উদ্ধার করে থানা নিয়ে আসে। যুবকের লাশ দুপুরে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে প্রেরন করা হয়।

দেবিদ্বার থানার অফিসার ইনচার্জ(ওসি) মোঃ মিজানুর রহমান জানান, গোমতী নদী থেকে উদ্ধার করা ওই যুবকরে পরিচয় পাওয়া যায়নি। তবে ময়না তদন্তের জন্য কুমেক হাসপাতাল মর্গে প্রেরন করা হয়েছে। লাশের ময়নাতদন্তের রিপোর্ট পেলে মৃত্যুর কারণ নিশ্চিত হয়ে পরবর্তীতে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

ট্যাগস
জনপ্রিয় সংবাদ

মুরাদনগর বাবুটিপাড়া ইউনিয়ন বিএনপি’র সভাপতির ইন্তেকাল

দেবিদ্বারে অজ্ঞাত যুবকের লাশ উদ্ধার

আপডেট সময় ০৯:৩৫:২৩ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ৩১ জুলাই ২০১৫

শাহিন আলম, দেবিদ্বার প্রতিনিধিঃ

রোজ শুক্রবার, ৩১ জুলাই ২০১৫ ইং (মুরাদনগর বার্তা ডটকম)ঃ

কুমিল্লা দেবিদ্বার উপজেলার জাফরগঞ্জ ইউনিয়নের চরবাকর নামক স্থান থেকে শুক্রবার সকালে গোমতী নদীর পানিতে ভেসে আসা অবস্থায় আজ্ঞাত(২২) এক যুবকের লাশ উদ্ধার করেছে দেবিদ্বার থানা পুলিশ।

স্থানীয় ও পুলিশ জানায়,শুক্রবার সকালে উপজেলার চরবাকর নামক এলাকার গোমতী নদীতে লাশ ভাসতে দেখে স্থানীয়রা পুলিশকে বিষয়টি জানালে দেবিদ্বার থানার উপ-পরিদর্শক এস আই মো: নূরুল ইসলাম ও মোঃ জাকির সিকদারের নেতৃত্বে একদল পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে গন্ধযুক্ত ফোলা আজ্ঞাত(২২) বছরের এক যুবকের লাশ উদ্ধার করে থানা নিয়ে আসে। যুবকের লাশ দুপুরে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে প্রেরন করা হয়।

দেবিদ্বার থানার অফিসার ইনচার্জ(ওসি) মোঃ মিজানুর রহমান জানান, গোমতী নদী থেকে উদ্ধার করা ওই যুবকরে পরিচয় পাওয়া যায়নি। তবে ময়না তদন্তের জন্য কুমেক হাসপাতাল মর্গে প্রেরন করা হয়েছে। লাশের ময়নাতদন্তের রিপোর্ট পেলে মৃত্যুর কারণ নিশ্চিত হয়ে পরবর্তীতে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।