ঢাকা ১১:৫৫ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২৪, ৫ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

দেবিদ্বারে জালনোট ও গাজাসহ আটক ৫

মো: জালাল উদ্দিন:

কুমিল্লা-সিলেট মহাসড়কের  দেবিদ্বার উপজেলার সংচাইল বাস ষ্ট্যান্ডে বিভিন্ন যানবাহনে তল্লাশি চালিয়ে ৬৬’হাজার টাকার জালনোট ও চার কেজি গাজাসহ পাচঁ জনকে আটক করেছে হাইওয়ে পুলিশ।

আটককৃতরা হলো, বি-বাড়িংয়া জেলার কসবা থানার বাহাদুরপুর গ্রামের মৃত আমির হোসেনের ছেলে স্বপন মিয়া (৩০), কুমিল্লা জেলার মুরাদনগর উপজেলার বাখরনগর গ্রামের মনির আহম্মেদের ছেলে রুহুল আমিন(৩০), একই গ্রামের হুমায়ুন কবিরের ছেলে সুমন(২৩), একই গ্রামের শাহ আলমের স্ত্রী শাহনাজ বেগম(৪৪) ও বি-বাড়িয়া জেলার কসবা উপজেলার মাইজখার গ্রামের মৃত মালন মিয়ার ছেলে ফরিদ মিয়া(২৭)।

শনিবার দুপুরে কুমিল্লা-সিলেট মহাসড়কের সংচাইল এলাকা থেকে তাদেও আটক করে।

পুুলিশ সূত্রে জানাযায়,  শনিবার দুপুরে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে মিরপুর হাইওয়ে পুলিশের এসআই আবু তাহের এর নেতৃত্বে একদল পুলিশ কুমিল্লা-সিলেট মহাসড়কে দেবিদ্বার থানাধীন সংচাইল বাস ষ্ট্যান্ডের সড়কের পূর্ব পার্শ্বে যানবাহন তল্লাসি করছিল। এমতা অবস্থায় পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে চার জন লোক দৌড়ে পালানোর চেষ্টা কালে পুলিশ স্বপন, রুহুল আমিন, সুমন ও শাহনাজ বেগমকে আটক করে। তাদের দেহ তল্লাসি করে ৬৬ হাজার টাকার জালনোট উদ্ধার করে। অপর দিকে একই স্থানে চার কেজি গাজাঁসহ ফরিদ মিয়াকে আটক করে।

দেবিদ্বার থানা অফিসার ইনচার্জ মিজানুর রহমান বলেন, হাইওয়ে পািলশের এসআই আবু তাহের বাদি হয়ে দেবিদ্বার থানায় পৃথক দুটি মামলা দায়ের করেছে। আটককৃতদের শনিবার বিকেলে কুমিল্লা আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরন করা হয়েছে।

ট্যাগস
আপলোডকারীর তথ্য

মুরাদনগর ভয়াবহ আগুন কয়ক কাটি টাকার ক্ষতি 

দেবিদ্বারে জালনোট ও গাজাসহ আটক ৫

আপডেট সময় ১২:০২:৪৩ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৭
মো: জালাল উদ্দিন:

কুমিল্লা-সিলেট মহাসড়কের  দেবিদ্বার উপজেলার সংচাইল বাস ষ্ট্যান্ডে বিভিন্ন যানবাহনে তল্লাশি চালিয়ে ৬৬’হাজার টাকার জালনোট ও চার কেজি গাজাসহ পাচঁ জনকে আটক করেছে হাইওয়ে পুলিশ।

আটককৃতরা হলো, বি-বাড়িংয়া জেলার কসবা থানার বাহাদুরপুর গ্রামের মৃত আমির হোসেনের ছেলে স্বপন মিয়া (৩০), কুমিল্লা জেলার মুরাদনগর উপজেলার বাখরনগর গ্রামের মনির আহম্মেদের ছেলে রুহুল আমিন(৩০), একই গ্রামের হুমায়ুন কবিরের ছেলে সুমন(২৩), একই গ্রামের শাহ আলমের স্ত্রী শাহনাজ বেগম(৪৪) ও বি-বাড়িয়া জেলার কসবা উপজেলার মাইজখার গ্রামের মৃত মালন মিয়ার ছেলে ফরিদ মিয়া(২৭)।

শনিবার দুপুরে কুমিল্লা-সিলেট মহাসড়কের সংচাইল এলাকা থেকে তাদেও আটক করে।

পুুলিশ সূত্রে জানাযায়,  শনিবার দুপুরে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে মিরপুর হাইওয়ে পুলিশের এসআই আবু তাহের এর নেতৃত্বে একদল পুলিশ কুমিল্লা-সিলেট মহাসড়কে দেবিদ্বার থানাধীন সংচাইল বাস ষ্ট্যান্ডের সড়কের পূর্ব পার্শ্বে যানবাহন তল্লাসি করছিল। এমতা অবস্থায় পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে চার জন লোক দৌড়ে পালানোর চেষ্টা কালে পুলিশ স্বপন, রুহুল আমিন, সুমন ও শাহনাজ বেগমকে আটক করে। তাদের দেহ তল্লাসি করে ৬৬ হাজার টাকার জালনোট উদ্ধার করে। অপর দিকে একই স্থানে চার কেজি গাজাঁসহ ফরিদ মিয়াকে আটক করে।

দেবিদ্বার থানা অফিসার ইনচার্জ মিজানুর রহমান বলেন, হাইওয়ে পািলশের এসআই আবু তাহের বাদি হয়ে দেবিদ্বার থানায় পৃথক দুটি মামলা দায়ের করেছে। আটককৃতদের শনিবার বিকেলে কুমিল্লা আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরন করা হয়েছে।