ঢাকা ১১:৫১ অপরাহ্ন, সোমবার, ২০ মে ২০২৪, ৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

দেবিদ্বারে পবিত্র আশুরা উপলক্ষে মিলাদ মাহফিল

শাহীন আলম, দেবিদ্বার প্রতিনিধিঃ

রোজ মঙ্গলবার, ২৭ অক্টোবর ২০১৫ ইং (মুরাদনগর বার্তা ডটকম)ঃ

কুমিল্লার দেবিদ্বার বানিয়াপাড়া গ্রামের কদম আলীর জ্যেষ্ঠ পুত্র বিশিষ্ট্য ব্যবসায়ী আলী আহম্মেদ’র নিজস্ব অর্থায়নে নিজ বাড়িতে গ্রামবাসীর স্বত:স্পত অংশগ্রহনে প্রতি বছরের ন্যায় এবারও বিশাল আয়োজনে পবিত্র আশুরা উপলক্ষে  মিলাদ মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। মিলাদ মাহফিল শেষে তাবারুক বিতরণ করা হয়।

১৯৮০ ইং থেকে ২০১৫ইং টানা ৩৫ বছর এ মিলাদ মাহফিল ও তাবারুক বিতরণ অনুষ্ঠান চলে আসছে।

এ আয়োজনের উদ্যোগতা আলী আহম্মেদ বলেন, রাসুল (সা:)’র দৌহিত্র ইমাম হোসাইন (রা:)’র সহ পরিবার এজিদ সৈন্যবাহিনীর হাতে নির্মম নির্যাতন সয্য করে কারবালার ময়দানে যে আত্মত্যাগের দৃষ্টান্ত স্থাপন করে গেছেন এটি নি:সন্দেহে মুসলিম বিশ্বের ইতিহাসে সবচেয়ে হৃদয় বিদারক ঘটনা। এ শাহাদাতের ন্যায় এত র্দীঘস্থায়ী শোক, কান্না, আহাজারি  মুসলিম জাতি আর কোন শাহাদাতের জন্য করেনি। ফোরাত নদীর তীরে এক ফোটা পানিও জোটেনি ইমাম হোসাইন পরিবারের জন্য যার ধরুন শিশুপুত্র আলী আজগরসহ পরিবারবর্গ শহীদ হন।

মিথ্যার কাছে পরাজিত না হয়ে সত্যেকে ভালোবেসে যে ত্যাগ স্বীকার করেছেন সেই প্রেরণা ও তার পরিবারকে উতসর্গ করে প্রতিবছরের মত এ সামান্য আয়োজন করে সমাজবাসী, গরীব দু:খী, এতিম শিশুসহ সবার জন্য এ তাবারুক উম্মুক্ত। আমি যত দিন বেঁচে থাকব এ অনুষ্ঠানটি চালিয়ে যাবো ইনশাআল্লাহ।

দোয়া অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন মাও : বিল্লাল হোসেন, দেবিদ্বার সেবা হসপিটালের ভাইস চেয়ারম্যান মো: সোহেল রানা, ডিএমডি অপূর্ব কর গোপাল, হসপিটাল ইনচার্জ ও নির্বাহী সদস্য এ এস মামুনসহ স্থানীয় এলাকাসী।

ট্যাগস
জনপ্রিয় সংবাদ

দেবিদ্বারে পবিত্র আশুরা উপলক্ষে মিলাদ মাহফিল

আপডেট সময় ০৬:০০:৫২ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৭ অক্টোবর ২০১৫

শাহীন আলম, দেবিদ্বার প্রতিনিধিঃ

রোজ মঙ্গলবার, ২৭ অক্টোবর ২০১৫ ইং (মুরাদনগর বার্তা ডটকম)ঃ

কুমিল্লার দেবিদ্বার বানিয়াপাড়া গ্রামের কদম আলীর জ্যেষ্ঠ পুত্র বিশিষ্ট্য ব্যবসায়ী আলী আহম্মেদ’র নিজস্ব অর্থায়নে নিজ বাড়িতে গ্রামবাসীর স্বত:স্পত অংশগ্রহনে প্রতি বছরের ন্যায় এবারও বিশাল আয়োজনে পবিত্র আশুরা উপলক্ষে  মিলাদ মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। মিলাদ মাহফিল শেষে তাবারুক বিতরণ করা হয়।

১৯৮০ ইং থেকে ২০১৫ইং টানা ৩৫ বছর এ মিলাদ মাহফিল ও তাবারুক বিতরণ অনুষ্ঠান চলে আসছে।

এ আয়োজনের উদ্যোগতা আলী আহম্মেদ বলেন, রাসুল (সা:)’র দৌহিত্র ইমাম হোসাইন (রা:)’র সহ পরিবার এজিদ সৈন্যবাহিনীর হাতে নির্মম নির্যাতন সয্য করে কারবালার ময়দানে যে আত্মত্যাগের দৃষ্টান্ত স্থাপন করে গেছেন এটি নি:সন্দেহে মুসলিম বিশ্বের ইতিহাসে সবচেয়ে হৃদয় বিদারক ঘটনা। এ শাহাদাতের ন্যায় এত র্দীঘস্থায়ী শোক, কান্না, আহাজারি  মুসলিম জাতি আর কোন শাহাদাতের জন্য করেনি। ফোরাত নদীর তীরে এক ফোটা পানিও জোটেনি ইমাম হোসাইন পরিবারের জন্য যার ধরুন শিশুপুত্র আলী আজগরসহ পরিবারবর্গ শহীদ হন।

মিথ্যার কাছে পরাজিত না হয়ে সত্যেকে ভালোবেসে যে ত্যাগ স্বীকার করেছেন সেই প্রেরণা ও তার পরিবারকে উতসর্গ করে প্রতিবছরের মত এ সামান্য আয়োজন করে সমাজবাসী, গরীব দু:খী, এতিম শিশুসহ সবার জন্য এ তাবারুক উম্মুক্ত। আমি যত দিন বেঁচে থাকব এ অনুষ্ঠানটি চালিয়ে যাবো ইনশাআল্লাহ।

দোয়া অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন মাও : বিল্লাল হোসেন, দেবিদ্বার সেবা হসপিটালের ভাইস চেয়ারম্যান মো: সোহেল রানা, ডিএমডি অপূর্ব কর গোপাল, হসপিটাল ইনচার্জ ও নির্বাহী সদস্য এ এস মামুনসহ স্থানীয় এলাকাসী।