ঢাকা ০১:৩৫ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৩ জুন ২০২৪, ৯ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

দৌলতপুরে উৎসবমূখর পরিবেশে দুই দিনব্যাপী নজরুল জন্মবার্ষিকীর অনুষ্ঠানমালা উদ্বোধন

মুরাদনগর বার্তা ডেস্কঃ
কুমিল্লার মুরাদনগর উপজেলার কবিতীর্থ দৌলতপুরে দুই দিনব্যাপী জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের ১১৯তম জন্মবার্ষিকী শুক্রবার সকালে উৎসবমূখর পরিবেশে শুরু হয়েছে। ‘দৌলতপুরে নজরুল’ শীর্ষক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন উপজেলা চেয়ারম্যান আলহাজ্ব সৈয়দ আবদুল কাইয়ুম খসরু।
 
উপজেলা নির্বাহী অফিসার মিতু মরিয়মের সভাপতিত্বে নজরুল মঞ্চে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলাম সরকার। উপজেলা সমাজ সেবা কর্মকর্তা কবির আহামেদের উপস্থাপনায় উক্ত অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন সহকারী কমিশনার (ভূমি) রায়হান মেহেবুব, বাংলাদেশ প্রাথমিক শিক্ষক সমিতি কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক গাজীউল হক চৌধুরী।
 
আলোচনার শুরুতে কোরআন তেলাওয়াত করেন স্থানীয় জামে মসজিদের খতিব মাওলানা বাছির মিয়া। অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে আরো উপস্থিত ছিলেন উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা সফিউল আলম তালুকদার, সহকারী পল্লী উন্নয়ন কর্মকর্তা গোলাম মোস্তফা, সহকারী উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা নাজমুল হক শিকদার, উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা সুফি আহমেদ, উপজেলা স্কাউটসের সাধারণ সম্পাদক ফরিদ উদ্দিন আহাম্মদ, দৌলতপুর রহমানিয়া আলিম মাদরাসার অধ্যক্ষ মাওলানা নাইমুর রহমান, নার্গিস-নজরুল বিদ্যা নিকেতনের প্রধান শিক্ষক জহিরুল ইসলাম, কবি পত্নী নার্গিস বংশের উত্তরসূরী বাবলু আলী খান, নার্গিস-নজরুল শিল্পকলা একাডেমির পরিচালক নুরুল ইসলাম মাষ্টার প্রমুখ।
 
প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপজেলা চেয়ারম্যান আলহাজ্ব সৈয়দ আবদুল কাইয়ুম খসরু বলেন, কবি নজরুল যে কত বড় মনের মানুষ ছিলেন, নজরুল প্রেমী ভক্তবৃন্দ দৌলতপুরে না এলে তা কেউ অনুধাবন করতে পারবেন না। দৌলতপুর আগের চেয়ে অনেক বেশী গ্রহনযোগ্যতা ও স্মৃতিধন্য হয়েছে। ১৯২১ সালের দৌলতপুর আর এখনকার দৌলতপুর অনেক পরিবর্তন হয়েছে। তিনি বলেন, কবি নজরুলের দ্বিতীয় জন্ম মুরাদনগর উপজেলার দৌলতপুর থেকে শুরু। যখন তিনি যৌবনপ্রাপ্ত হয়ে নিজের ভাব ও চেতনাকে সাধারণ মানুষের সাথে যুক্ত করেছেন। তাঁর পরিপূর্ণ বিকাশ লাভ করেছে মাত্র ২৩ বছর সাহিত্য জীবনে। কবির দ্রোহ, প্রেম, ভালবাসা, ব্যর্থতাসহ সবকিছু নিয়ে দৌলতপুরের প্রেক্ষাপট অনেক গুরুত্বের দাবিদার। তিনি আরো বলেন, নজরুলের গান, কবিতা সকল অন্যায় অত্যাচারের বিরুদ্ধে মানুষকে জাগ্রত করেছেন। তিনি অবিভক্ত বাংলা কিংবা ভারতের কবি নন, তিনি বিশ্ব কবি। তিনি তার লেখায় বিশ্ব বিবেককে নাড়া দিয়েছেন।
 
২৬মে (শনিবার) সকাল ১০টায় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও পুরস্কার বিতরণ ছাড়াও ‘নজরুল ও নার্গিস : প্রেম ও বিচ্ছেদের উপাখ্যান’ শীর্ষক আলোচনা সভা। ১১টায় উপজেলা শিল্পকলা একাডেমি ও নার্গিস-নজরুল শিল্পকলা একাডেমির পরিবেশনায় রয়েছে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। এতে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখবেন এফবিসিসিআই’র সাবেক সভাপতি আলহাজ্ব ইউসুফ আবদুল্লাহ হারুন এমপি। জেলা প্রশাসক মো: আবুল ফজল মীর-এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি রয়েছে উপজেলা চেয়ারম্যান আলহাজ্ব সৈয়দ আবদুল কাইয়ুম খসরু। এতে স্বাগত বক্তব্য রাখবেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার মিতু মরিয়ম।
ট্যাগস
আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

দৌলতপুরে উৎসবমূখর পরিবেশে দুই দিনব্যাপী নজরুল জন্মবার্ষিকীর অনুষ্ঠানমালা উদ্বোধন

আপডেট সময় ০৯:৪৯:৩১ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২৫ মে ২০১৮
মুরাদনগর বার্তা ডেস্কঃ
কুমিল্লার মুরাদনগর উপজেলার কবিতীর্থ দৌলতপুরে দুই দিনব্যাপী জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের ১১৯তম জন্মবার্ষিকী শুক্রবার সকালে উৎসবমূখর পরিবেশে শুরু হয়েছে। ‘দৌলতপুরে নজরুল’ শীর্ষক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন উপজেলা চেয়ারম্যান আলহাজ্ব সৈয়দ আবদুল কাইয়ুম খসরু।
 
উপজেলা নির্বাহী অফিসার মিতু মরিয়মের সভাপতিত্বে নজরুল মঞ্চে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলাম সরকার। উপজেলা সমাজ সেবা কর্মকর্তা কবির আহামেদের উপস্থাপনায় উক্ত অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন সহকারী কমিশনার (ভূমি) রায়হান মেহেবুব, বাংলাদেশ প্রাথমিক শিক্ষক সমিতি কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক গাজীউল হক চৌধুরী।
 
আলোচনার শুরুতে কোরআন তেলাওয়াত করেন স্থানীয় জামে মসজিদের খতিব মাওলানা বাছির মিয়া। অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে আরো উপস্থিত ছিলেন উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা সফিউল আলম তালুকদার, সহকারী পল্লী উন্নয়ন কর্মকর্তা গোলাম মোস্তফা, সহকারী উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা নাজমুল হক শিকদার, উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা সুফি আহমেদ, উপজেলা স্কাউটসের সাধারণ সম্পাদক ফরিদ উদ্দিন আহাম্মদ, দৌলতপুর রহমানিয়া আলিম মাদরাসার অধ্যক্ষ মাওলানা নাইমুর রহমান, নার্গিস-নজরুল বিদ্যা নিকেতনের প্রধান শিক্ষক জহিরুল ইসলাম, কবি পত্নী নার্গিস বংশের উত্তরসূরী বাবলু আলী খান, নার্গিস-নজরুল শিল্পকলা একাডেমির পরিচালক নুরুল ইসলাম মাষ্টার প্রমুখ।
 
প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপজেলা চেয়ারম্যান আলহাজ্ব সৈয়দ আবদুল কাইয়ুম খসরু বলেন, কবি নজরুল যে কত বড় মনের মানুষ ছিলেন, নজরুল প্রেমী ভক্তবৃন্দ দৌলতপুরে না এলে তা কেউ অনুধাবন করতে পারবেন না। দৌলতপুর আগের চেয়ে অনেক বেশী গ্রহনযোগ্যতা ও স্মৃতিধন্য হয়েছে। ১৯২১ সালের দৌলতপুর আর এখনকার দৌলতপুর অনেক পরিবর্তন হয়েছে। তিনি বলেন, কবি নজরুলের দ্বিতীয় জন্ম মুরাদনগর উপজেলার দৌলতপুর থেকে শুরু। যখন তিনি যৌবনপ্রাপ্ত হয়ে নিজের ভাব ও চেতনাকে সাধারণ মানুষের সাথে যুক্ত করেছেন। তাঁর পরিপূর্ণ বিকাশ লাভ করেছে মাত্র ২৩ বছর সাহিত্য জীবনে। কবির দ্রোহ, প্রেম, ভালবাসা, ব্যর্থতাসহ সবকিছু নিয়ে দৌলতপুরের প্রেক্ষাপট অনেক গুরুত্বের দাবিদার। তিনি আরো বলেন, নজরুলের গান, কবিতা সকল অন্যায় অত্যাচারের বিরুদ্ধে মানুষকে জাগ্রত করেছেন। তিনি অবিভক্ত বাংলা কিংবা ভারতের কবি নন, তিনি বিশ্ব কবি। তিনি তার লেখায় বিশ্ব বিবেককে নাড়া দিয়েছেন।
 
২৬মে (শনিবার) সকাল ১০টায় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও পুরস্কার বিতরণ ছাড়াও ‘নজরুল ও নার্গিস : প্রেম ও বিচ্ছেদের উপাখ্যান’ শীর্ষক আলোচনা সভা। ১১টায় উপজেলা শিল্পকলা একাডেমি ও নার্গিস-নজরুল শিল্পকলা একাডেমির পরিবেশনায় রয়েছে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। এতে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখবেন এফবিসিসিআই’র সাবেক সভাপতি আলহাজ্ব ইউসুফ আবদুল্লাহ হারুন এমপি। জেলা প্রশাসক মো: আবুল ফজল মীর-এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি রয়েছে উপজেলা চেয়ারম্যান আলহাজ্ব সৈয়দ আবদুল কাইয়ুম খসরু। এতে স্বাগত বক্তব্য রাখবেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার মিতু মরিয়ম।