ঢাকা ১১:৫৫ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল ২০২৪, ৬ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

নাইজেরিয়ায় নৌকা ডুবে ৩৩ জনের মৃত্যু

অন্তর্জাতিক ডেস্কঃ
নাইজেরিয়ার উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলে নাইজার নদীতে অতিরিক্ত যাত্রী বোঝাই একটি নৌকাডুবে শিশুসহ অন্তত ৩৩ জনের মৃত্যু হয়েছে বলে জানিয়েছে দেশটির জরুরি বিভাগ। নৌকাটিতে মোট ১৫০ জন যাত্রী ছিল এবং তাদের মধ্যে ৮৪ জনকে উদ্ধার করা গেলেও আরো ৩৩ জন নিখোঁজ রয়েছেন বলে জানিয়েছেন জরুরি বিভাগের কর্মকর্তারা।
নৌকাটি ডুবে যাওয়ার জন্য ধারণক্ষমতার অতিরিক্ত যাত্রী বহনকে দায়ী করেছেন তারা। নৌকাটি নাইজেরিয়ার প্রতিবেশী দেশ নাইজার থেকে রওনা হয়েছিল। বুধবার সকালে নাইজেরিয়ার কেব্বি রাজ্যের প্রত্যন্ত লোলো গ্রাম এলাকার কাছে এ ঘটনা ঘটলেও শুক্রবার ঘটনার বিস্তারিত প্রকাশ পেতে শুরু করে। নৌকাটি নাইজারের ডোসো অঞ্চলের সীমান্তবর্তী গায়া থেকে ব্যাপারীদের নিয়ে নাইজেরিয়ার একটি গ্রামীণ বাজারের উদ্দেশে রওনা হয়েছিল।
নাইজেরিয়ার জাতীয় জরুরি ব্যবস্থাপনা  বিভাগের (এনইএমএ) কর্মকর্তা সুলেইমান মোহাম্মদ করিম জানিয়েছেন, ৭০ জন যাত্রী ধারণক্ষমতার নৌকাটিতে দেড়শ জন যাত্রী ও তাদের মালামাল তোলা হয়েছিল বলে অভিযোগ করেছেন উদ্ধার পাওয়া যাত্রীরা।  যারা এখনও নিখোঁজ রয়েছেন তাদের সম্পর্কে তিনি বলেন, “দুই দিন ধরে আমরা নদীতে আছি, তারা মারা গেছেন বলেই ধারণা করছি।” অতিরিক্ত যাত্রী বহনের কারণে নাইজেরিয়ায় প্রায়ই প্রাণঘাতী নৌদুর্ঘটনা ঘটে।
ট্যাগস
আপলোডকারীর তথ্য

মুরাদনগর ভয়াবহ আগুন কয়ক কাটি টাকার ক্ষতি 

নাইজেরিয়ায় নৌকা ডুবে ৩৩ জনের মৃত্যু

আপডেট সময় ০২:১১:১৮ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৭
অন্তর্জাতিক ডেস্কঃ
নাইজেরিয়ার উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলে নাইজার নদীতে অতিরিক্ত যাত্রী বোঝাই একটি নৌকাডুবে শিশুসহ অন্তত ৩৩ জনের মৃত্যু হয়েছে বলে জানিয়েছে দেশটির জরুরি বিভাগ। নৌকাটিতে মোট ১৫০ জন যাত্রী ছিল এবং তাদের মধ্যে ৮৪ জনকে উদ্ধার করা গেলেও আরো ৩৩ জন নিখোঁজ রয়েছেন বলে জানিয়েছেন জরুরি বিভাগের কর্মকর্তারা।
নৌকাটি ডুবে যাওয়ার জন্য ধারণক্ষমতার অতিরিক্ত যাত্রী বহনকে দায়ী করেছেন তারা। নৌকাটি নাইজেরিয়ার প্রতিবেশী দেশ নাইজার থেকে রওনা হয়েছিল। বুধবার সকালে নাইজেরিয়ার কেব্বি রাজ্যের প্রত্যন্ত লোলো গ্রাম এলাকার কাছে এ ঘটনা ঘটলেও শুক্রবার ঘটনার বিস্তারিত প্রকাশ পেতে শুরু করে। নৌকাটি নাইজারের ডোসো অঞ্চলের সীমান্তবর্তী গায়া থেকে ব্যাপারীদের নিয়ে নাইজেরিয়ার একটি গ্রামীণ বাজারের উদ্দেশে রওনা হয়েছিল।
নাইজেরিয়ার জাতীয় জরুরি ব্যবস্থাপনা  বিভাগের (এনইএমএ) কর্মকর্তা সুলেইমান মোহাম্মদ করিম জানিয়েছেন, ৭০ জন যাত্রী ধারণক্ষমতার নৌকাটিতে দেড়শ জন যাত্রী ও তাদের মালামাল তোলা হয়েছিল বলে অভিযোগ করেছেন উদ্ধার পাওয়া যাত্রীরা।  যারা এখনও নিখোঁজ রয়েছেন তাদের সম্পর্কে তিনি বলেন, “দুই দিন ধরে আমরা নদীতে আছি, তারা মারা গেছেন বলেই ধারণা করছি।” অতিরিক্ত যাত্রী বহনের কারণে নাইজেরিয়ায় প্রায়ই প্রাণঘাতী নৌদুর্ঘটনা ঘটে।