ঢাকা ০৯:৩৬ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ১৩ এপ্রিল ২০২৪, ৩০ চৈত্র ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

নির্দিষ্ট স্থানে, ১৮ বছরের নিচে কুরবানী করতে না পারার সিদ্ধান্ত ইসলামবিরোধী -ইসলামী আন্দোলন

জাতীয় ডেস্কঃ

ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ-এর মহাসচিব অধ্যক্ষ মাওলানা ইউনুছ আহমদ বলেছেন, ১৮ বছরের আগে কোন ব্যক্তি কুরবানী দিতে পারবে না এবং নির্ধারিত জায়গায় কুরবানীর পশু জবাই করার সিদ্ধান্ত মুসলিম চিন্তাচেতনা বিরোধী সিদ্ধান্ত বলে অভিহিত করে তিনি বলেন, এধরণের চিন্তা, চেতনা মুসলিম উম্মাহর ভিতরে প্রতিবাদের আগুন জ্বলে উঠবে। যাদের সামর্থ আছে তারা কুরবানী করবে কিন্তু ১৮ বছরের কম বয়সি কোন ব্যক্তি কুরবানী করতে পারবে না এধরণের সিদ্ধান্ত ইসলামবিরোধী। এধরণের সিদ্ধান্ত নিলে সর্বত্র প্রতিবাদের আগুন জ্বলে উঠলে সরকারের জন্য কল্যাণকর হবে না।

তিনি একই জায়গায় কুরবানীর পশু জবাইয়ের সিদ্ধান্তও বাতিল করার আহ্বান জানান। কেননা ঢাকার শহরে আড়াই কোটি লোকের বসবাস। এতে করে নির্ধারিত জায়গায় কুরবানী করতে হলে দিন শেষ হয়ে যাবে তারপরও কুরবানীর পশু জবাই করার সুযোগ হবে না।

তিনি বলেন, আমরা মনে করি সরকারের ভিতরে ঘাপটি মেরে থাকা নাস্তিক-মুরতাদরা এধরণের কল্পনাপ্রসূত চিন্তা করে মুসলিম উম্মাহর মধ্যে বিভেদ সৃষ্টি করে ঘোলাপানিতে মাছ শিকার করতে চায়। এদেরকে চিহ্নিত করে বিচারের আওতায় আনতে না পারলে সরকারকে কঠোর মাশুল দিতে হতে পারে।

মঙ্গলবার বিকেলে পুরানা পল্টনস্থ কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত এক মতবিনিময়কালে তিনি একথা বলেন।

সভায় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন অধ্যাপক আশরাফ আলী আকন, যুগ্ম মহাসচিব- অধ্যাপক মাওলানা এটিএম হেমায়েত উদ্দিন, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক কে এম আতিকুর রহমান, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক মাওলানা আহমদ আবদুল কাইয়ুম, সহ প্রচার সম্পাদক মাওলানা নেছার উদ্দিন, দফতর সম্পাদক মাওলানা লোকমান হোসাইন জাফরী, অর্থ সম্পাদক আলহাজ্ব হারুনুর রশীদ, সহ-অর্থ সম্পাদক ইঞ্জিনিয়ার শরীফুল ইসলাম তালুকদার, মাওলানা আতাউর রহমান আরেফী, মাাওলানা দেলাওয়ার হোসাইন সাকী প্রমুখ।

ট্যাগস

মুরাদনগর ভয়াবহ আগুন কয়ক কাটি টাকার ক্ষতি 

নির্দিষ্ট স্থানে, ১৮ বছরের নিচে কুরবানী করতে না পারার সিদ্ধান্ত ইসলামবিরোধী -ইসলামী আন্দোলন

আপডেট সময় ০৩:১০:৪৮ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৬ অগাস্ট ২০১৬
জাতীয় ডেস্কঃ

ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ-এর মহাসচিব অধ্যক্ষ মাওলানা ইউনুছ আহমদ বলেছেন, ১৮ বছরের আগে কোন ব্যক্তি কুরবানী দিতে পারবে না এবং নির্ধারিত জায়গায় কুরবানীর পশু জবাই করার সিদ্ধান্ত মুসলিম চিন্তাচেতনা বিরোধী সিদ্ধান্ত বলে অভিহিত করে তিনি বলেন, এধরণের চিন্তা, চেতনা মুসলিম উম্মাহর ভিতরে প্রতিবাদের আগুন জ্বলে উঠবে। যাদের সামর্থ আছে তারা কুরবানী করবে কিন্তু ১৮ বছরের কম বয়সি কোন ব্যক্তি কুরবানী করতে পারবে না এধরণের সিদ্ধান্ত ইসলামবিরোধী। এধরণের সিদ্ধান্ত নিলে সর্বত্র প্রতিবাদের আগুন জ্বলে উঠলে সরকারের জন্য কল্যাণকর হবে না।

তিনি একই জায়গায় কুরবানীর পশু জবাইয়ের সিদ্ধান্তও বাতিল করার আহ্বান জানান। কেননা ঢাকার শহরে আড়াই কোটি লোকের বসবাস। এতে করে নির্ধারিত জায়গায় কুরবানী করতে হলে দিন শেষ হয়ে যাবে তারপরও কুরবানীর পশু জবাই করার সুযোগ হবে না।

তিনি বলেন, আমরা মনে করি সরকারের ভিতরে ঘাপটি মেরে থাকা নাস্তিক-মুরতাদরা এধরণের কল্পনাপ্রসূত চিন্তা করে মুসলিম উম্মাহর মধ্যে বিভেদ সৃষ্টি করে ঘোলাপানিতে মাছ শিকার করতে চায়। এদেরকে চিহ্নিত করে বিচারের আওতায় আনতে না পারলে সরকারকে কঠোর মাশুল দিতে হতে পারে।

মঙ্গলবার বিকেলে পুরানা পল্টনস্থ কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত এক মতবিনিময়কালে তিনি একথা বলেন।

সভায় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন অধ্যাপক আশরাফ আলী আকন, যুগ্ম মহাসচিব- অধ্যাপক মাওলানা এটিএম হেমায়েত উদ্দিন, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক কে এম আতিকুর রহমান, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক মাওলানা আহমদ আবদুল কাইয়ুম, সহ প্রচার সম্পাদক মাওলানা নেছার উদ্দিন, দফতর সম্পাদক মাওলানা লোকমান হোসাইন জাফরী, অর্থ সম্পাদক আলহাজ্ব হারুনুর রশীদ, সহ-অর্থ সম্পাদক ইঞ্জিনিয়ার শরীফুল ইসলাম তালুকদার, মাওলানা আতাউর রহমান আরেফী, মাাওলানা দেলাওয়ার হোসাইন সাকী প্রমুখ।