ঢাকা ০১:৪৪ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৬ এপ্রিল ২০২৪, ৩ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

নির্বাচনকালীন সহায়ক সরকারের রূপরেখা শিগগিরই : মির্জা ফখরুল

জাতীয় ডেস্ক:
নির্বাচনের জন্য লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড তৈরির দাবি জানিয়ে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, এ সরকারের অধীনে কোনো নির্বাচন সুষ্ঠু হবে না। নির্বাচনকালীন সহায়ক সরকারের রূপরেখা দ্রুত জনগণের সামনে তুলে ধরবে বিএনপি।
আজ শনিবার দুপুরে নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এসব কথা বলেন।
বিএনপির নির্বাচনে অংশগ্রহণ করা নিয়ে মির্জা ফখরুল সাংবাদিকদের বলেন, বিএনপি নির্বাচনে তখনই যাবে যখন সরকার নির্বাচনের পরিবেশ তৈরি করবে। বিএনপির নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে মামলা-হামলা বন্ধ করতে হবে। সব নেতাকর্মীকে মুক্তি দিতে হবে। একইসঙ্গে নির্বাচনকালীন সহায়ক সরকার, নিরপেক্ষ নির্বাচন কমিশনের অধীনে নির্বাচন হতে হবে।
হাওর অঞ্চলকে দুর্গত এলাকা ঘোষণা করতে অাবারও সরকারের প্রতি অাহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, জনগণের সঙ্গে সরকারের কোনো সম্পর্ক নেই, তারা জনগণ থেকে বিচ্ছিন্ন, তাই সুনামগঞ্জসহ হাওর অঞ্চলের মানুষের জন্য ভাবছে না সরকার।
সরকারের ভারত সফরের কথা উল্লেখ করে বিএনপির মহাসচিব বলেন, ভারতে গিয়ে এ সরকার দিয়ে এসেছে কিছু আনতে পারেনি। আমাদের ন্যায্য অধিকার তিস্তার পানিসহ অভিন্ন ৫৪টি নদীর পানির চুক্তি ভারতের সঙ্গে করতে পারেনি। কারণ এ সরকারের জনগণের কোনো ভিত্তি নেই। ভারতকে খুশি করতেই রামপাল বিদ্যুৎকেন্দ্র তৈরি করছে সরকার। জনগণের প্রতি দায়বদ্ধতা নেই বলেই এমন সিদ্ধান্ত নিতে পেরেছেন তারা।
ট্যাগস
আপলোডকারীর তথ্য

মুরাদনগর ভয়াবহ আগুন কয়ক কাটি টাকার ক্ষতি 

নির্বাচনকালীন সহায়ক সরকারের রূপরেখা শিগগিরই : মির্জা ফখরুল

আপডেট সময় ০৩:০১:৪১ অপরাহ্ন, শনিবার, ২২ এপ্রিল ২০১৭
জাতীয় ডেস্ক:
নির্বাচনের জন্য লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড তৈরির দাবি জানিয়ে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, এ সরকারের অধীনে কোনো নির্বাচন সুষ্ঠু হবে না। নির্বাচনকালীন সহায়ক সরকারের রূপরেখা দ্রুত জনগণের সামনে তুলে ধরবে বিএনপি।
আজ শনিবার দুপুরে নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এসব কথা বলেন।
বিএনপির নির্বাচনে অংশগ্রহণ করা নিয়ে মির্জা ফখরুল সাংবাদিকদের বলেন, বিএনপি নির্বাচনে তখনই যাবে যখন সরকার নির্বাচনের পরিবেশ তৈরি করবে। বিএনপির নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে মামলা-হামলা বন্ধ করতে হবে। সব নেতাকর্মীকে মুক্তি দিতে হবে। একইসঙ্গে নির্বাচনকালীন সহায়ক সরকার, নিরপেক্ষ নির্বাচন কমিশনের অধীনে নির্বাচন হতে হবে।
হাওর অঞ্চলকে দুর্গত এলাকা ঘোষণা করতে অাবারও সরকারের প্রতি অাহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, জনগণের সঙ্গে সরকারের কোনো সম্পর্ক নেই, তারা জনগণ থেকে বিচ্ছিন্ন, তাই সুনামগঞ্জসহ হাওর অঞ্চলের মানুষের জন্য ভাবছে না সরকার।
সরকারের ভারত সফরের কথা উল্লেখ করে বিএনপির মহাসচিব বলেন, ভারতে গিয়ে এ সরকার দিয়ে এসেছে কিছু আনতে পারেনি। আমাদের ন্যায্য অধিকার তিস্তার পানিসহ অভিন্ন ৫৪টি নদীর পানির চুক্তি ভারতের সঙ্গে করতে পারেনি। কারণ এ সরকারের জনগণের কোনো ভিত্তি নেই। ভারতকে খুশি করতেই রামপাল বিদ্যুৎকেন্দ্র তৈরি করছে সরকার। জনগণের প্রতি দায়বদ্ধতা নেই বলেই এমন সিদ্ধান্ত নিতে পেরেছেন তারা।