ঢাকা ১০:৫৮ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২১ এপ্রিল ২০২৪, ৮ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

নির্বাচন কমিশনের সংলাপ লোক দেখানো : মির্জা ফখরুল

জাতীয় ডেস্কঃ
নির্বাচন কমিশন সুষ্ঠু নির্বাচনের আয়োজন করতে পারবে কি না তা নিয়ে সন্দেহ প্রকাশ করে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, ইসি দুই মাস ধরে যে সংলাপ করেছে সেটি ছিলো লোক দেখানো।সংলাপে অংশ নেওয়া সবাই বলেছেন যে, নির্বাচনকালীন নিরপেক্ষ সরকার ছাড়া সুষ্ঠু নির্বাচন সম্ভব নয়। এখন জাতি তাকিয়ে আছে ইসি কী করে? কিন্তু ইসি কিছুই করতে পারবে না। কারণ সরকারের বাইরে গিয়ে তাদের বিরুদ্ধে কাজ করার শক্তি নেই। এরপরও আমরা পর্যবেক্ষণ করছি, তারা নিরপেক্ষ নির্বাচনের ব্যবস্থা করে কি না, যাতে মানুষ নির্ভয়ে ভোট দিতে পারে।
বুধবার বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া ও সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারির প্রতিবাদে আয়োজিত সমাবেশে এ কথা বলেন তিনি। রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইনিস্টিটিউটে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপির উদ্যোগে এ প্রতিবাদ সমাবেশের আয়োজন করা হয়।
মির্জা ফখরুল বলেন, বর্তমান সরকারের সময় ঘনিয়ে এসেছে, শেষ হয়ে এসেছে। এখন তারা যতই জলকামান নিয়ে সামনে আসুক, এ দিয়ে কাজ হবে না।
মির্জা ফখরুল, নির্বাচনের আগে মিথ্যা মামলার রায় ঘোষণার উদ্দেশ্য হচ্ছে- সাজা দিয়ে নির্বাচন থেকে দূরে রাখা। তাদের এই অপকৌশল রুখতে হবে।
মির্জা ফখরুল সরকারকে ইতিবাচক রাজনীতি করার আহ্বান জানিয়ে বলেন, দেশের স্বার্থে বিরোধী দলগুলোর সঙ্গে আলোচনা করে একটি রাস্তা বের করুন, যাতে দেশে একটি গ্রহণযোগ্য নির্বাচন করা যায়। সে নির্বাচনে মানুষ যেন ভোট দিতে পারে।
নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসের দাম বৃদ্ধিতে চরম ক্ষোভ প্রকাশ করে তিনি বলেন, বাজারে এমন কোনো সবজি নেই, যা মানুষের ক্রয়ক্ষমতার ভেতরে আছে। সরকার গ্যাস, পানি ও বিদ্যুতের দাম বাড়াচ্ছে। তারা জনগণের পকেট খালি করছে আর নিজেদের পকেট ভরছে। ইতিহাস বলে, মানুষ দীর্ঘদিন এসব সহ্য করবে না। তখন কামান দিয়ে কিছু হবে না।
আওয়ামী লীগ সরকারের ‘উন্নয়ন’ চিত্র তুলে ধরে তিনি বলেন, এ সরকারের সময় এত উন্নয়ন হয়েছে যে, রাস্তায় গাড়ি চলাচল সম্ভব নয়। এরা মেগাপ্রকল্পের নামে মেগাচুরি করছে।
প্রতিবাদ সমাবেশে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপির সভাপতি হাবিব-উন-নবী খান সোহেলের সভাপতিত্বে আরও বক্তব্য রাখেন চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আব্দুস সালাম, ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সাধারণ সম্পাদক কাজী আবুল বাশার, কেন্দ্রীয় ও অঙ্গ সংগঠনের নেতা মীর শরফত আলী সপু, শফিউল বারী বাবু, আবদুল কাদির ভূঁইয়া জুয়েল, মোরতাজুল করিম বাদরু, আকরামুল হাসান, তানভীর আহমেদ রবিন প্রমুখ।
ট্যাগস
আপলোডকারীর তথ্য

নির্বাচন কমিশনের সংলাপ লোক দেখানো : মির্জা ফখরুল

আপডেট সময় ০১:৪৮:০৯ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৫ অক্টোবর ২০১৭
জাতীয় ডেস্কঃ
নির্বাচন কমিশন সুষ্ঠু নির্বাচনের আয়োজন করতে পারবে কি না তা নিয়ে সন্দেহ প্রকাশ করে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, ইসি দুই মাস ধরে যে সংলাপ করেছে সেটি ছিলো লোক দেখানো।সংলাপে অংশ নেওয়া সবাই বলেছেন যে, নির্বাচনকালীন নিরপেক্ষ সরকার ছাড়া সুষ্ঠু নির্বাচন সম্ভব নয়। এখন জাতি তাকিয়ে আছে ইসি কী করে? কিন্তু ইসি কিছুই করতে পারবে না। কারণ সরকারের বাইরে গিয়ে তাদের বিরুদ্ধে কাজ করার শক্তি নেই। এরপরও আমরা পর্যবেক্ষণ করছি, তারা নিরপেক্ষ নির্বাচনের ব্যবস্থা করে কি না, যাতে মানুষ নির্ভয়ে ভোট দিতে পারে।
বুধবার বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া ও সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারির প্রতিবাদে আয়োজিত সমাবেশে এ কথা বলেন তিনি। রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইনিস্টিটিউটে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপির উদ্যোগে এ প্রতিবাদ সমাবেশের আয়োজন করা হয়।
মির্জা ফখরুল বলেন, বর্তমান সরকারের সময় ঘনিয়ে এসেছে, শেষ হয়ে এসেছে। এখন তারা যতই জলকামান নিয়ে সামনে আসুক, এ দিয়ে কাজ হবে না।
মির্জা ফখরুল, নির্বাচনের আগে মিথ্যা মামলার রায় ঘোষণার উদ্দেশ্য হচ্ছে- সাজা দিয়ে নির্বাচন থেকে দূরে রাখা। তাদের এই অপকৌশল রুখতে হবে।
মির্জা ফখরুল সরকারকে ইতিবাচক রাজনীতি করার আহ্বান জানিয়ে বলেন, দেশের স্বার্থে বিরোধী দলগুলোর সঙ্গে আলোচনা করে একটি রাস্তা বের করুন, যাতে দেশে একটি গ্রহণযোগ্য নির্বাচন করা যায়। সে নির্বাচনে মানুষ যেন ভোট দিতে পারে।
নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসের দাম বৃদ্ধিতে চরম ক্ষোভ প্রকাশ করে তিনি বলেন, বাজারে এমন কোনো সবজি নেই, যা মানুষের ক্রয়ক্ষমতার ভেতরে আছে। সরকার গ্যাস, পানি ও বিদ্যুতের দাম বাড়াচ্ছে। তারা জনগণের পকেট খালি করছে আর নিজেদের পকেট ভরছে। ইতিহাস বলে, মানুষ দীর্ঘদিন এসব সহ্য করবে না। তখন কামান দিয়ে কিছু হবে না।
আওয়ামী লীগ সরকারের ‘উন্নয়ন’ চিত্র তুলে ধরে তিনি বলেন, এ সরকারের সময় এত উন্নয়ন হয়েছে যে, রাস্তায় গাড়ি চলাচল সম্ভব নয়। এরা মেগাপ্রকল্পের নামে মেগাচুরি করছে।
প্রতিবাদ সমাবেশে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপির সভাপতি হাবিব-উন-নবী খান সোহেলের সভাপতিত্বে আরও বক্তব্য রাখেন চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আব্দুস সালাম, ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সাধারণ সম্পাদক কাজী আবুল বাশার, কেন্দ্রীয় ও অঙ্গ সংগঠনের নেতা মীর শরফত আলী সপু, শফিউল বারী বাবু, আবদুল কাদির ভূঁইয়া জুয়েল, মোরতাজুল করিম বাদরু, আকরামুল হাসান, তানভীর আহমেদ রবিন প্রমুখ।