ঢাকা ১১:৩৪ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৫ জুলাই ২০২৪, ৩১ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

প্যারিস পুলিশ দপ্তরে হামলার জেরে মসজিদের ইমামসহ গ্রেফতার ৫

আন্তর্জাতিক:

ফ্রান্সের রাজধানী প্যারিসের পুলিশ সদর দপ্তরে হামলার ঘটনায় সোমবার দেশটির একটি মসজিদের ইমামসহ ৫ জনকে গ্রেফতার করেছে ফ্রেঞ্চ পুলিশ। গত ৩ অক্টোবর সদর দপ্তরে ছুরিকা হামলা চালিয়ে মাইকেল হারপন নামে একজন পুলিশ কর্মকর্তা তার চারজন সহকর্মীকে হত্যা করেন। এছাড়া একজন পুলিশ কর্মকর্তা গুরুতর আহত হয়েছিলেন সেই হামলায়। ঘটনার দিনই অন্য একজন কর্মকর্তার গুলিতে নিহত হন হারপন। এরপর থেকেই এ ঘটনার তদন্ত শুরু করে দেশটির পুলিশ।

তদন্ত কর্মকর্তারা জানান, মাইকেল হারপন ১০ বছর আগে ধর্মান্তরিত হয়ে ইসলাম গ্রহণ করেন। ধর্মান্তরিত হবার পর তিনি সালাফি মতধারায় বিশ্বাসী হয়ে উঠেছিলেন। এই মতধারাটি সুন্নী মুসলানদের একটি কট্টরপন্থী মতবাদ হিসেবে গণ্য হয়ে থাকে।

নিরাপত্তার স্বার্থে গ্রেফতারকৃত ওই ইমামের নাম প্রকাশ করেনি ফ্রেঞ্চ পুলিশ। তবে, পুলিশ জানিয়েছে, হারপন প্রায়ই গনিসে শহরের ওই ইমামের সাথে দেখা করতে যেতেন। এছাড়া আরও চারজনকে জড়িত সন্দেহে গ্রেফতার করা হয়েছে। তাদের পরিচয়ও গোপন রেখেছে পুলিশ।

এদিকে ফ্রান্সের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ক্রিস্টোফ কাস্টেনার এ ঘটনায় বেশ অস্বস্তিতে আছেন। কীভাবে একজন পুলিশের কর্মকর্তা উগ্রপন্থীতে পরিণত হয়েছেন এবং কেন হয়েছেন, এজন্য জবাবদিহি করতে হচ্ছে তাকে। এখন পর্যন্ত এর কোন সদুত্তর তিনি বা তার কর্মকর্তারা দিতে পারেননি।

ট্যাগস
আপলোডকারীর তথ্য

মুরাদনগরে হত্যা মামলায় যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত আসামী গ্রেফতার

প্যারিস পুলিশ দপ্তরে হামলার জেরে মসজিদের ইমামসহ গ্রেফতার ৫

আপডেট সময় ০৪:২৭:১৩ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৪ অক্টোবর ২০১৯
আন্তর্জাতিক:

ফ্রান্সের রাজধানী প্যারিসের পুলিশ সদর দপ্তরে হামলার ঘটনায় সোমবার দেশটির একটি মসজিদের ইমামসহ ৫ জনকে গ্রেফতার করেছে ফ্রেঞ্চ পুলিশ। গত ৩ অক্টোবর সদর দপ্তরে ছুরিকা হামলা চালিয়ে মাইকেল হারপন নামে একজন পুলিশ কর্মকর্তা তার চারজন সহকর্মীকে হত্যা করেন। এছাড়া একজন পুলিশ কর্মকর্তা গুরুতর আহত হয়েছিলেন সেই হামলায়। ঘটনার দিনই অন্য একজন কর্মকর্তার গুলিতে নিহত হন হারপন। এরপর থেকেই এ ঘটনার তদন্ত শুরু করে দেশটির পুলিশ।

তদন্ত কর্মকর্তারা জানান, মাইকেল হারপন ১০ বছর আগে ধর্মান্তরিত হয়ে ইসলাম গ্রহণ করেন। ধর্মান্তরিত হবার পর তিনি সালাফি মতধারায় বিশ্বাসী হয়ে উঠেছিলেন। এই মতধারাটি সুন্নী মুসলানদের একটি কট্টরপন্থী মতবাদ হিসেবে গণ্য হয়ে থাকে।

নিরাপত্তার স্বার্থে গ্রেফতারকৃত ওই ইমামের নাম প্রকাশ করেনি ফ্রেঞ্চ পুলিশ। তবে, পুলিশ জানিয়েছে, হারপন প্রায়ই গনিসে শহরের ওই ইমামের সাথে দেখা করতে যেতেন। এছাড়া আরও চারজনকে জড়িত সন্দেহে গ্রেফতার করা হয়েছে। তাদের পরিচয়ও গোপন রেখেছে পুলিশ।

এদিকে ফ্রান্সের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ক্রিস্টোফ কাস্টেনার এ ঘটনায় বেশ অস্বস্তিতে আছেন। কীভাবে একজন পুলিশের কর্মকর্তা উগ্রপন্থীতে পরিণত হয়েছেন এবং কেন হয়েছেন, এজন্য জবাবদিহি করতে হচ্ছে তাকে। এখন পর্যন্ত এর কোন সদুত্তর তিনি বা তার কর্মকর্তারা দিতে পারেননি।