ঢাকা ০৫:৩৯ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই ২০২৪, ৩ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

প্রধানমন্ত্রীর ভারত সফরের আগে চুক্তিগুলো প্রকাশের দাবি বিএনপির

জাতীয় ডেস্কঃ
প্রধানমন্ত্রীর আসন্ন ভারত সফরে যেসব চুক্তি ও সমঝোতা স্মারক সই হবে তার সবকটি সেখানে যাওয়ার আগে জনগণের সামনে প্রকাশের দাবি জানিয়ে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, জনগণ দেশের মালিক। তাই তাদের স্বার্থসংশ্লিষ্ট চুক্তি ও সমঝোতা স্মারক সম্পর্কে জানা এবং এতে মতামত দেয়ার অধিকার রয়েছে। কিন্তু জনগণকে পাশ কাটিয়ে সার্বভৌমত্ব, জনস্বার্থ, নিরাপত্তা ও রাষ্ট্রবিরোধী কোনো চুক্তি বা সমঝোতা স্মারক জনগণ মেনে নেবে না।
মঙ্গলবার বিকেলে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এ আহ্বান জানান। সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন- বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য তরিকুল ইসলাম, মওদুদ আহমেদ, গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরী, নিতাই রায় চৌধুরী, ভাইস চেয়ারম্যান চৌধুরী কামাল ইবনে ইউসুফ, আলতাফ হোসেন চৌধুরী, অ্যাডভোকেট আহমদ আজম খান, বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আতাউর রহমান ঢালী, সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী, দলের নেতা অ্যাডভোকেট আবদুস সালাম আজাদ প্রমুখ।
মির্জা ফখরুল ইসলাম বলেন, প্রধানমন্ত্রীর সফর গুরুত্বপূর্ণ। সফরে কিছু সমঝোতা স্মারক সই হবে এ নিয়ে আলোচনা চলছে। কিন্তু প্রস্তাবিত চুক্তি সম্পর্কে কোনো কিছুই জানা যায়নি। তবে ভারতের গণমাধ্যম ও বিশিষ্ট কলামিস্টদের লেখা থেকে জানতে পেরেছি কিছু চুক্তি সই হবে। তিনি বলেন, দেশ এবং জনগণের স্বার্থ সংশ্লিষ্ট সকল চুক্তি ও সমঝোতা স্মারকের বিষয়বস্তু সম্পর্কে জানার ও মতামত প্রকাশ করার অধিকার তাদের রয়েছে। জনগণকে পাশ কাটিয়ে দেশের স্বার্বভৌমত্ব নিরাপত্তা, জনস্বার্থ ও রাষ্ট্রবিরোধী কোন চুক্তি অথবা সমঝোতা স্মারক জনগণ মেনে নেবে না।
ট্যাগস
আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

শিক্ষার্থীদের উপর হামলার প্রতিবাদে মুরাদনগরে বিক্ষোভ ও সড়ক অবরোধ

প্রধানমন্ত্রীর ভারত সফরের আগে চুক্তিগুলো প্রকাশের দাবি বিএনপির

আপডেট সময় ০৩:২৪:১৮ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ৪ এপ্রিল ২০১৭
জাতীয় ডেস্কঃ
প্রধানমন্ত্রীর আসন্ন ভারত সফরে যেসব চুক্তি ও সমঝোতা স্মারক সই হবে তার সবকটি সেখানে যাওয়ার আগে জনগণের সামনে প্রকাশের দাবি জানিয়ে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, জনগণ দেশের মালিক। তাই তাদের স্বার্থসংশ্লিষ্ট চুক্তি ও সমঝোতা স্মারক সম্পর্কে জানা এবং এতে মতামত দেয়ার অধিকার রয়েছে। কিন্তু জনগণকে পাশ কাটিয়ে সার্বভৌমত্ব, জনস্বার্থ, নিরাপত্তা ও রাষ্ট্রবিরোধী কোনো চুক্তি বা সমঝোতা স্মারক জনগণ মেনে নেবে না।
মঙ্গলবার বিকেলে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এ আহ্বান জানান। সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন- বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য তরিকুল ইসলাম, মওদুদ আহমেদ, গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরী, নিতাই রায় চৌধুরী, ভাইস চেয়ারম্যান চৌধুরী কামাল ইবনে ইউসুফ, আলতাফ হোসেন চৌধুরী, অ্যাডভোকেট আহমদ আজম খান, বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আতাউর রহমান ঢালী, সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী, দলের নেতা অ্যাডভোকেট আবদুস সালাম আজাদ প্রমুখ।
মির্জা ফখরুল ইসলাম বলেন, প্রধানমন্ত্রীর সফর গুরুত্বপূর্ণ। সফরে কিছু সমঝোতা স্মারক সই হবে এ নিয়ে আলোচনা চলছে। কিন্তু প্রস্তাবিত চুক্তি সম্পর্কে কোনো কিছুই জানা যায়নি। তবে ভারতের গণমাধ্যম ও বিশিষ্ট কলামিস্টদের লেখা থেকে জানতে পেরেছি কিছু চুক্তি সই হবে। তিনি বলেন, দেশ এবং জনগণের স্বার্থ সংশ্লিষ্ট সকল চুক্তি ও সমঝোতা স্মারকের বিষয়বস্তু সম্পর্কে জানার ও মতামত প্রকাশ করার অধিকার তাদের রয়েছে। জনগণকে পাশ কাটিয়ে দেশের স্বার্বভৌমত্ব নিরাপত্তা, জনস্বার্থ ও রাষ্ট্রবিরোধী কোন চুক্তি অথবা সমঝোতা স্মারক জনগণ মেনে নেবে না।