ঢাকা ০৮:২৮ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৯ জুলাই ২০২৪, ৪ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বাঞ্ছারামপুরে নকলে সহায়তা করায় শিক্ষক গ্রেফতার

ফয়সল আহমেদ খান,বাঞ্ছারামপুর ( ব্রাহ্মণবাড়িয়া ) প্রতিনিধি :

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বাঞ্ছারামপুর উপজেলায় দাখিল পরীক্ষার্থীদের নৈর্ব্যক্তিকের উত্তর সরবরাহের দায়ে এক শিক্ষককে দুই বছর কারাদণ্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।

মঙ্গলবার দুপুরে বাঞ্ছারামপুর সোবহানিয়া ইসলামিয়া ফাজিল (ডিগ্রি) মাদ্রাসায় গণিত পরীক্ষার কেন্দ্র পরিদর্শনে যান উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি) নাফিজা নাজ নীরা। 

দণ্ডিত আবু নাছের (৩৬) লক্ষ্মীপুর উপজেলার পূর্ব সৈয়দপুর গ্রামের সামসু উদ্দিন মিয়ার ছেলে।বাঞ্ছারামপুর সোবহানিয়া ইসলামিয়া ফাজিল (ডিগ্রি) মাদ্রাসার অধ্যক্ষকে কেন্দ্র থেকে অব্যাহত দেওয়া হয়।

ভ্রাম্যমাণ আদালত সূত্রে জানা গেছে, পরীক্ষা শেষ হওয়ার পর কেন্দ্র সচিবের পাশের রুমে দণ্ডপ্রাপ্ত ব্যক্তি নৈর্ব্যক্তিকের উত্তর পত্র নিজে লেখে আগের গুলো সরিয়ে নতুন নৈর্ব্যক্তিক উত্তরপত্র ১০ টি জমা দেওয়ার সময় হাতেনাতে ধরে ফেলেন কেন্দ্র পরিদর্শক কাজী সোহেল।

ঘটনায় ধরা পড়ার পর তাদেরকে ভ্রাম্যমাণ আদালতে তোলা হলে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও সহকারি কমিশনার (ভূমি) নাফিজা নাজ নীরা তাকে দুই বছরের কারাদণ্ড ও ১০ হাজার টাকা অর্থদণ্ড দেন। ইউএনও মো. নাসির উদ্দিন সরোয়ার বিষয়টি সাংবাদিকদের নিশ্চিত করেছেন।

ট্যাগস
আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

শিক্ষার্থীদের উপর হামলার প্রতিবাদে মুরাদনগরে বিক্ষোভ ও সড়ক অবরোধ

বাঞ্ছারামপুরে নকলে সহায়তা করায় শিক্ষক গ্রেফতার

আপডেট সময় ০৩:৩০:৩৩ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১১ ফেব্রুয়ারী ২০২০

ফয়সল আহমেদ খান,বাঞ্ছারামপুর ( ব্রাহ্মণবাড়িয়া ) প্রতিনিধি :

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বাঞ্ছারামপুর উপজেলায় দাখিল পরীক্ষার্থীদের নৈর্ব্যক্তিকের উত্তর সরবরাহের দায়ে এক শিক্ষককে দুই বছর কারাদণ্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।

মঙ্গলবার দুপুরে বাঞ্ছারামপুর সোবহানিয়া ইসলামিয়া ফাজিল (ডিগ্রি) মাদ্রাসায় গণিত পরীক্ষার কেন্দ্র পরিদর্শনে যান উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি) নাফিজা নাজ নীরা। 

দণ্ডিত আবু নাছের (৩৬) লক্ষ্মীপুর উপজেলার পূর্ব সৈয়দপুর গ্রামের সামসু উদ্দিন মিয়ার ছেলে।বাঞ্ছারামপুর সোবহানিয়া ইসলামিয়া ফাজিল (ডিগ্রি) মাদ্রাসার অধ্যক্ষকে কেন্দ্র থেকে অব্যাহত দেওয়া হয়।

ভ্রাম্যমাণ আদালত সূত্রে জানা গেছে, পরীক্ষা শেষ হওয়ার পর কেন্দ্র সচিবের পাশের রুমে দণ্ডপ্রাপ্ত ব্যক্তি নৈর্ব্যক্তিকের উত্তর পত্র নিজে লেখে আগের গুলো সরিয়ে নতুন নৈর্ব্যক্তিক উত্তরপত্র ১০ টি জমা দেওয়ার সময় হাতেনাতে ধরে ফেলেন কেন্দ্র পরিদর্শক কাজী সোহেল।

ঘটনায় ধরা পড়ার পর তাদেরকে ভ্রাম্যমাণ আদালতে তোলা হলে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও সহকারি কমিশনার (ভূমি) নাফিজা নাজ নীরা তাকে দুই বছরের কারাদণ্ড ও ১০ হাজার টাকা অর্থদণ্ড দেন। ইউএনও মো. নাসির উদ্দিন সরোয়ার বিষয়টি সাংবাদিকদের নিশ্চিত করেছেন।