ঢাকা ০৭:৪২ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই ২০২৪, ৩ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বিএনপির ‘রূপকল্প ২০৩০’ বাস্তবায়নের পদ্ধতি স্পষ্ট নয়: প্রধানমন্ত্রী

জাতীয় ডেস্কঃ
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ‘‘বিএনপি ঘোষিত ‘রূপকল্প ২০৩০’ কিভাবে কোন পদ্ধতিতে বাস্তবায়ন করা হবে, কিভাবে অর্থায়ন হবে, তা স্পষ্ট নয়। আর এই রূপকল্পের অধিকাংশই বর্তমান সরকার পূরণ করেছে।’’
বুধবার জাতীয় সংসদে নির্ধারিত প্রশ্নোত্তর পর্বে সরকারি দলের বেগম ফজিলাতুন নেসা বাপ্পির এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন।
শেখ হাসিনা বলেন, ২০৩০ সালের মধ্যে বাংলাদেশকে একটি আধুনিক, গণতান্ত্রিক উচ্চ-মধ্যম আয়ের দেশে পরিণত করার লক্ষ্যে একটি রূপকল্প ২০৩০ ঘোষণা করেছেন বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া। রাষ্ট্র পরিচালনায় গেলে ২০৩০ সালের মধ্যে কি কি বিষয় অগ্রাধিকার দিতে চান, তা উপস্থাপনের চেষ্টা করেছেন।
তিনি বলেন, বিএনপি চেয়ারপারসন উপস্থাপিত রূপকল্পটিতে তারা ক্ষমতায় গেলে কি কি করা হবে তার দীর্ঘ ফর্দ দেয়া হলেও কিভাবে কোন পদ্ধতিতে এটা বাস্তবায়ন করা হবে, কিভাবে অর্থায়ন হবে, তা স্পষ্ট নয়।
প্রধানমন্ত্রী বলেন, এটা অনেকটা নির্বাচনী ইশতেহারের মতোই হয়ে গেছে। এই ইশতেহার বাস্তবায়ন করতে হলে তাদের আগে ক্ষমতায় যেতে হবে। শুধু তাই নয়, পার্লামেন্টারি পদ্ধতি ও গণভোট পদ্ধতির পরিবর্তনসহ আরো যেসব মৌল পরিবর্তন তারা আনতে চাচ্ছেন, তার জন্য তো সংসদে দুই-তৃতীয়াংশ ভোট লাগবে।
শেখ হাসিনা বলেন, তাদের শাসনামলে অনিয়ম-দুর্নীতি, জঙ্গি পৃষ্ঠপোষকতার যে দৃষ্টান্ত রেখেছেন, এরপর ক্ষমতার বাইরে থেকে জ্বালাও-পোড়াওসহ অনিয়মতান্ত্রিক তত্পরতা দিয়ে যে নেতিবাচক ইমেজ তৈরি করেছেন তা কাটিয়ে উঠে এতটা জনআস্থা অর্জন তাদের জন্য যে কঠিন চ্যালেঞ্জ তা বলাই বাহুল্য।

ইত্তেফাক

ট্যাগস
আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

শিক্ষার্থীদের উপর হামলার প্রতিবাদে মুরাদনগরে বিক্ষোভ ও সড়ক অবরোধ

বিএনপির ‘রূপকল্প ২০৩০’ বাস্তবায়নের পদ্ধতি স্পষ্ট নয়: প্রধানমন্ত্রী

আপডেট সময় ০২:১৯:১৪ অপরাহ্ন, বুধবার, ৭ জুন ২০১৭
জাতীয় ডেস্কঃ
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ‘‘বিএনপি ঘোষিত ‘রূপকল্প ২০৩০’ কিভাবে কোন পদ্ধতিতে বাস্তবায়ন করা হবে, কিভাবে অর্থায়ন হবে, তা স্পষ্ট নয়। আর এই রূপকল্পের অধিকাংশই বর্তমান সরকার পূরণ করেছে।’’
বুধবার জাতীয় সংসদে নির্ধারিত প্রশ্নোত্তর পর্বে সরকারি দলের বেগম ফজিলাতুন নেসা বাপ্পির এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন।
শেখ হাসিনা বলেন, ২০৩০ সালের মধ্যে বাংলাদেশকে একটি আধুনিক, গণতান্ত্রিক উচ্চ-মধ্যম আয়ের দেশে পরিণত করার লক্ষ্যে একটি রূপকল্প ২০৩০ ঘোষণা করেছেন বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া। রাষ্ট্র পরিচালনায় গেলে ২০৩০ সালের মধ্যে কি কি বিষয় অগ্রাধিকার দিতে চান, তা উপস্থাপনের চেষ্টা করেছেন।
তিনি বলেন, বিএনপি চেয়ারপারসন উপস্থাপিত রূপকল্পটিতে তারা ক্ষমতায় গেলে কি কি করা হবে তার দীর্ঘ ফর্দ দেয়া হলেও কিভাবে কোন পদ্ধতিতে এটা বাস্তবায়ন করা হবে, কিভাবে অর্থায়ন হবে, তা স্পষ্ট নয়।
প্রধানমন্ত্রী বলেন, এটা অনেকটা নির্বাচনী ইশতেহারের মতোই হয়ে গেছে। এই ইশতেহার বাস্তবায়ন করতে হলে তাদের আগে ক্ষমতায় যেতে হবে। শুধু তাই নয়, পার্লামেন্টারি পদ্ধতি ও গণভোট পদ্ধতির পরিবর্তনসহ আরো যেসব মৌল পরিবর্তন তারা আনতে চাচ্ছেন, তার জন্য তো সংসদে দুই-তৃতীয়াংশ ভোট লাগবে।
শেখ হাসিনা বলেন, তাদের শাসনামলে অনিয়ম-দুর্নীতি, জঙ্গি পৃষ্ঠপোষকতার যে দৃষ্টান্ত রেখেছেন, এরপর ক্ষমতার বাইরে থেকে জ্বালাও-পোড়াওসহ অনিয়মতান্ত্রিক তত্পরতা দিয়ে যে নেতিবাচক ইমেজ তৈরি করেছেন তা কাটিয়ে উঠে এতটা জনআস্থা অর্জন তাদের জন্য যে কঠিন চ্যালেঞ্জ তা বলাই বাহুল্য।

ইত্তেফাক