ঢাকা ১০:৫৭ অপরাহ্ন, শনিবার, ২০ এপ্রিল ২০২৪, ৭ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বিচারপতি খায়রুল হকের বক্তব্যকে ধিক্কার জানাই : ফখরুল

জাতীয় ডেস্কঃ
সংবিধানের ষোড়শ সংশোধনী বাতিলের রায় ও আপিল বিভাগের পর্যবেক্ষণ নিয়ে আইন কমিশনের চেয়ারম্যান বিচারপতি এবিএম খায়রুল হকের বক্তব্যকে ‘আওয়ামী লীগ ও অন্যায়ের পক্ষে সাফাই’বলে আখ্যায়িত করেছে বিএনপি। সাবেক এই প্রধান বিচারপতির বক্তব্যে ‘ধিক্কার’জানিয়েছে দলটি।
বৃহস্পতিবার রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে দলের পক্ষে এই প্রতিক্রিয়া তুলে ধরেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। এই রায় ও পর্যবেক্ষণকে কেন্দ্র করে বিচারবিভাগের অবস্থান, সরকার-আওয়ামী লীগের বক্তব্য ও চলমান পরিস্থিতি বিষয়ে বিএনপির অবস্থান তুলে ধরেন তিনি।
মির্জা ফখরুল বলেন, আওয়ামী লীগের নেতা-মন্ত্রীদের বক্তব্য ও সাবেক প্রধান বিচারপতি খায়রুল হকের বক্তব্যের মধ্যে কোনো অমিল নেই। খাইরুলের বক্তব্যই আওয়ামী লীগের বক্তব্য। খায়রুল হক নিজের কৃতকর্মের জন্য কোনো অনুশোচনা তো করেননি বরং একটি অন্যায়ের পক্ষে সাফাই গেয়েছেন, তিনি বিচারবিভাগের স্বাধীনতা ও গণতান্ত্রিক শাসন ব্যবস্থার বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়েছেন।
বিচারপতি খায়রুল হকের সমালোচনা করে বিএনপি মহাসচিব বলেন, অত্যন্ত পরিতাপের সঙ্গে লক্ষ্য করলাম যে, সরকার বা সরকারি দল আওয়ামী লীগ কোনো আনুষ্ঠানিক প্রতিক্রিয়া দেয়ার আগেই আইন কমিশন চেয়ারম্যান বিচারপতি খায়রুল হক রায়ের বিরুদ্ধে বিষোদগার করলেন। মনে হলো, এই রায়ের ফলে তার গাত্রদাহ শুরু হয়েছে। আইন কমিশনের আসনে বসে সুপ্রিম কোর্টের রায় সম্পর্কে এবং প্রধান বিচারপতি সম্পর্কে তিনি যেসব উক্তি করেছেন তা শুধু অশালীনই নয়, তা রীতিমত আদালত অবমাননার সামিল।
ট্যাগস
আপলোডকারীর তথ্য

বিচারপতি খায়রুল হকের বক্তব্যকে ধিক্কার জানাই : ফখরুল

আপডেট সময় ০১:১৬:০৫ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১১ অগাস্ট ২০১৭
জাতীয় ডেস্কঃ
সংবিধানের ষোড়শ সংশোধনী বাতিলের রায় ও আপিল বিভাগের পর্যবেক্ষণ নিয়ে আইন কমিশনের চেয়ারম্যান বিচারপতি এবিএম খায়রুল হকের বক্তব্যকে ‘আওয়ামী লীগ ও অন্যায়ের পক্ষে সাফাই’বলে আখ্যায়িত করেছে বিএনপি। সাবেক এই প্রধান বিচারপতির বক্তব্যে ‘ধিক্কার’জানিয়েছে দলটি।
বৃহস্পতিবার রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে দলের পক্ষে এই প্রতিক্রিয়া তুলে ধরেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। এই রায় ও পর্যবেক্ষণকে কেন্দ্র করে বিচারবিভাগের অবস্থান, সরকার-আওয়ামী লীগের বক্তব্য ও চলমান পরিস্থিতি বিষয়ে বিএনপির অবস্থান তুলে ধরেন তিনি।
মির্জা ফখরুল বলেন, আওয়ামী লীগের নেতা-মন্ত্রীদের বক্তব্য ও সাবেক প্রধান বিচারপতি খায়রুল হকের বক্তব্যের মধ্যে কোনো অমিল নেই। খাইরুলের বক্তব্যই আওয়ামী লীগের বক্তব্য। খায়রুল হক নিজের কৃতকর্মের জন্য কোনো অনুশোচনা তো করেননি বরং একটি অন্যায়ের পক্ষে সাফাই গেয়েছেন, তিনি বিচারবিভাগের স্বাধীনতা ও গণতান্ত্রিক শাসন ব্যবস্থার বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়েছেন।
বিচারপতি খায়রুল হকের সমালোচনা করে বিএনপি মহাসচিব বলেন, অত্যন্ত পরিতাপের সঙ্গে লক্ষ্য করলাম যে, সরকার বা সরকারি দল আওয়ামী লীগ কোনো আনুষ্ঠানিক প্রতিক্রিয়া দেয়ার আগেই আইন কমিশন চেয়ারম্যান বিচারপতি খায়রুল হক রায়ের বিরুদ্ধে বিষোদগার করলেন। মনে হলো, এই রায়ের ফলে তার গাত্রদাহ শুরু হয়েছে। আইন কমিশনের আসনে বসে সুপ্রিম কোর্টের রায় সম্পর্কে এবং প্রধান বিচারপতি সম্পর্কে তিনি যেসব উক্তি করেছেন তা শুধু অশালীনই নয়, তা রীতিমত আদালত অবমাননার সামিল।