ঢাকা ১০:৫৫ অপরাহ্ন, বুধবার, ২২ মে ২০২৪, ৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ভারতকে ১০ উইকেটে হারিয়ে সিরিজ সমতায় অস্ট্রেলিয়া

খেলাধূলা ডেস্কঃ

ভিসাকপাটনামে অনুষ্ঠিত সিরিজের দ্বিতীয় ওয়ানডেতে স্বাগতিক ভারতকে ১০ উইকেটের বড় ব্যবধানে হারিয়ে সিরিজ সমতায় ফিরেছে অস্ট্রেলিয়া। ম্যাচের শুরুতে ব্যাট করতে নেমে সবকটি উইকেট হারিয়ে মাত্র ১১৭ রানে অলআউট হয় ভারত। জবাবে ব্যাট করতে নেমে ১০ উইকেট ও ২৩৪ বল হাতে রেখেই জয় পেয়ে যায় অজিরা।

ম্যাচের শুরুতে টস জিতে ভারতকে ব্যাট করার আমন্ত্রণ জানান অস্ট্রেলিয়ান দলনেতা স্টিভেন স্মিথ। ব্যাট করতে নেমে মিচেল স্টার্কের গতির কাছে শুরুতেই নাস্তানাবুদ ভারত। প্রথম পাঁচ ওভারে ৩ উইকেট হারানোর পর দশ ওভার শেষ হতে না হতেই সাজঘরে ফিরেছেন মোট পাঁচজন ব্যাটার।

প্রথম ওভারে শূন্যরানে ফেরেন ওপেনার শুভমান গিল। রোহিতের ব্যাট থেকে এসেছে ১৩ রান। আর রানের খাতায় খুলতে পারেননি দুর্দান্ত ফর্মে থাকা সূর্যকুমার যাদব। আসা যাওয়ার মিছিয়ে রাহুল ৯ ও পান্ডিয়া করেন ১ রান।

এরপর কোহলি-প্যাটেল-জাদেজার ব্যাটে কোনোমতে একশর ঘর অতিক্রম করে স্বাগতিকরা। দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ৩১ রানের ইনিংসটি খেলেন বিরাট কোহলি। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ২৯ রান আসে অক্ষরের ব্যাট থেকে। আর জাদেজা করেন ১৬ রান। এছাড়া কুলদ্বীপ ৪ ও সামি-সিরাজ শূন্যরানে আউট হন।

অস্ট্রেলিয়ার পক্ষে ৫৩ রানের খরচায় সর্বোচ্চ পাঁচটি উইকেট নেন বাঁ-হাতি পেসার মিচেল স্টার্ক। এছাড়া তিনটি উইকেট নেন শেন অ্যাবর্ট। নাথান অ্যালিস নেন দুটি উইকেট।

রান তাড়া করতে নেমে ব্যাট হাতে ক্রিজে ঝড় তোলেন দুই অজি ওপেনার মিচেল মার্শ ও ট্রেভিস হেড। জোড়া ফিফটিতেই মাত্র ১১ ওভারেই ১২১ রান তোলে সফরকারীরা। মাত্র ৩৬ বলে ৬৬ রানে অপরাজিত থাকেন মিচেল মার্শ। আর ফিফটি পূরণের পর হেড অপরাজিত থাকেন ৩০ বলে ৫১ রানে।

মিচেল স্টার্ক ম্যাচ সেরা নির্বাচিত হন। আর সিরিজ নির্ধারণী তৃতীয় ও শেষ ওয়ানডে ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হবে আগামী বুধবার।

ট্যাগস
আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

মুরাদনগর বাবুটিপাড়া ইউনিয়ন বিএনপি’র সভাপতির ইন্তেকাল

ভারতকে ১০ উইকেটে হারিয়ে সিরিজ সমতায় অস্ট্রেলিয়া

আপডেট সময় ০১:২৮:৩৬ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৯ মার্চ ২০২৩

খেলাধূলা ডেস্কঃ

ভিসাকপাটনামে অনুষ্ঠিত সিরিজের দ্বিতীয় ওয়ানডেতে স্বাগতিক ভারতকে ১০ উইকেটের বড় ব্যবধানে হারিয়ে সিরিজ সমতায় ফিরেছে অস্ট্রেলিয়া। ম্যাচের শুরুতে ব্যাট করতে নেমে সবকটি উইকেট হারিয়ে মাত্র ১১৭ রানে অলআউট হয় ভারত। জবাবে ব্যাট করতে নেমে ১০ উইকেট ও ২৩৪ বল হাতে রেখেই জয় পেয়ে যায় অজিরা।

ম্যাচের শুরুতে টস জিতে ভারতকে ব্যাট করার আমন্ত্রণ জানান অস্ট্রেলিয়ান দলনেতা স্টিভেন স্মিথ। ব্যাট করতে নেমে মিচেল স্টার্কের গতির কাছে শুরুতেই নাস্তানাবুদ ভারত। প্রথম পাঁচ ওভারে ৩ উইকেট হারানোর পর দশ ওভার শেষ হতে না হতেই সাজঘরে ফিরেছেন মোট পাঁচজন ব্যাটার।

প্রথম ওভারে শূন্যরানে ফেরেন ওপেনার শুভমান গিল। রোহিতের ব্যাট থেকে এসেছে ১৩ রান। আর রানের খাতায় খুলতে পারেননি দুর্দান্ত ফর্মে থাকা সূর্যকুমার যাদব। আসা যাওয়ার মিছিয়ে রাহুল ৯ ও পান্ডিয়া করেন ১ রান।

এরপর কোহলি-প্যাটেল-জাদেজার ব্যাটে কোনোমতে একশর ঘর অতিক্রম করে স্বাগতিকরা। দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ৩১ রানের ইনিংসটি খেলেন বিরাট কোহলি। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ২৯ রান আসে অক্ষরের ব্যাট থেকে। আর জাদেজা করেন ১৬ রান। এছাড়া কুলদ্বীপ ৪ ও সামি-সিরাজ শূন্যরানে আউট হন।

অস্ট্রেলিয়ার পক্ষে ৫৩ রানের খরচায় সর্বোচ্চ পাঁচটি উইকেট নেন বাঁ-হাতি পেসার মিচেল স্টার্ক। এছাড়া তিনটি উইকেট নেন শেন অ্যাবর্ট। নাথান অ্যালিস নেন দুটি উইকেট।

রান তাড়া করতে নেমে ব্যাট হাতে ক্রিজে ঝড় তোলেন দুই অজি ওপেনার মিচেল মার্শ ও ট্রেভিস হেড। জোড়া ফিফটিতেই মাত্র ১১ ওভারেই ১২১ রান তোলে সফরকারীরা। মাত্র ৩৬ বলে ৬৬ রানে অপরাজিত থাকেন মিচেল মার্শ। আর ফিফটি পূরণের পর হেড অপরাজিত থাকেন ৩০ বলে ৫১ রানে।

মিচেল স্টার্ক ম্যাচ সেরা নির্বাচিত হন। আর সিরিজ নির্ধারণী তৃতীয় ও শেষ ওয়ানডে ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হবে আগামী বুধবার।