ঢাকা ০১:৪৪ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন ২০২৪, ২৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ভারতের আয়োজনে ১৬ দেশের যৌথ নৌ-মহড়া থেকে সরে দাঁড়ালো মালদ্বীপ

 অন্তর্জাতিক ডেস্কঃ
ভারতের আয়োজনে ১৬ দেশের যৌথ নৌ-মহড়া থেকে সরে দাঁড়ালো মালদ্বীপ। এর আগে, জরুরি অবস্থা প্রত্যাহার করে রাজনৈতিক বন্দিদের মুক্তি দিতে নয়াদিল্লীর পরামর্শও মানেননি মালদ্বীপের প্রেসিডেন্ট আবদুল্লা ইয়ামিন। খবর এনডিটিভির।
যে নৌ-মহড়ার জন্য ভারত আমন্ত্রণ জানিয়েছিল মালদ্বীপকে, ‘মিলন’ নামের সেই মহড়াটি দু’বছরে এক বার হয়। এ বছর আন্দামান ও নিকোবর সংলগ্ন এলাকায় আয়োজিত হয়েছে মহড়াটি। ৬ মার্চ শুরু হয়ে তা পরবর্তী ৮ দিন চলবে। অস্ট্রেলিয়া, মালয়েশিয়া, মিয়ানমার, মরিশাস, ওমান, নিউজিল্যান্ডের মতো মালদ্বীপও ভারতকে জানিয়েছিল, মহড়ায় তারা যোগ দিচ্ছে। কিন্তু প্রায় শেষ মুহূর্তে এসে মালদ্বীপ মহড়া থেকে সরে দাঁড়িয়েছে।
ভারতের নৌসেনা প্রধান অ্যাডমিরাল সুনীল লানবা মঙ্গলবার নিজেই জানিয়েছেন যে, মালদ্বীপ এবারের ‘মিলন’ এ যোগ দিচ্ছে না। ‘এই সিদ্ধান্ত তারা কেন নিল, সে কথা মালদ্বীপ জানায়নি’ বলেছেন অ্যাডমিরাল লানবা। ভারত মহাসাগরের নানা অংশে যেভাবে গতিবিধি বাড়াচ্ছে চীনা নৌসেনা, তার প্রেক্ষিতে তৎপরতা বাড়ানোর নীতি নিয়েছে ভারতীয় নৌসেনাও।
শুধু ভারত মহাসাগরে নয়, গোটা ইন্দো-প্যাসিফিক অঞ্চলেই হাত মিলিয়ে তৎপরতা বাড়িয়েছে ভারত-জাপান-অস্ট্রেলিয়া। তবে এ মহড়া থেকে মালদ্বীপের সরে দাঁড়ানোর পেছনে চীনের হাত রয়েছে বলে ধারণা করছেন ভারতীয় বিশেষজ্ঞরা। এনডিটিভি।
ট্যাগস
আপলোডকারীর তথ্য

ভারতের আয়োজনে ১৬ দেশের যৌথ নৌ-মহড়া থেকে সরে দাঁড়ালো মালদ্বীপ

আপডেট সময় ০২:১৪:৩২ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০১৮
 অন্তর্জাতিক ডেস্কঃ
ভারতের আয়োজনে ১৬ দেশের যৌথ নৌ-মহড়া থেকে সরে দাঁড়ালো মালদ্বীপ। এর আগে, জরুরি অবস্থা প্রত্যাহার করে রাজনৈতিক বন্দিদের মুক্তি দিতে নয়াদিল্লীর পরামর্শও মানেননি মালদ্বীপের প্রেসিডেন্ট আবদুল্লা ইয়ামিন। খবর এনডিটিভির।
যে নৌ-মহড়ার জন্য ভারত আমন্ত্রণ জানিয়েছিল মালদ্বীপকে, ‘মিলন’ নামের সেই মহড়াটি দু’বছরে এক বার হয়। এ বছর আন্দামান ও নিকোবর সংলগ্ন এলাকায় আয়োজিত হয়েছে মহড়াটি। ৬ মার্চ শুরু হয়ে তা পরবর্তী ৮ দিন চলবে। অস্ট্রেলিয়া, মালয়েশিয়া, মিয়ানমার, মরিশাস, ওমান, নিউজিল্যান্ডের মতো মালদ্বীপও ভারতকে জানিয়েছিল, মহড়ায় তারা যোগ দিচ্ছে। কিন্তু প্রায় শেষ মুহূর্তে এসে মালদ্বীপ মহড়া থেকে সরে দাঁড়িয়েছে।
ভারতের নৌসেনা প্রধান অ্যাডমিরাল সুনীল লানবা মঙ্গলবার নিজেই জানিয়েছেন যে, মালদ্বীপ এবারের ‘মিলন’ এ যোগ দিচ্ছে না। ‘এই সিদ্ধান্ত তারা কেন নিল, সে কথা মালদ্বীপ জানায়নি’ বলেছেন অ্যাডমিরাল লানবা। ভারত মহাসাগরের নানা অংশে যেভাবে গতিবিধি বাড়াচ্ছে চীনা নৌসেনা, তার প্রেক্ষিতে তৎপরতা বাড়ানোর নীতি নিয়েছে ভারতীয় নৌসেনাও।
শুধু ভারত মহাসাগরে নয়, গোটা ইন্দো-প্যাসিফিক অঞ্চলেই হাত মিলিয়ে তৎপরতা বাড়িয়েছে ভারত-জাপান-অস্ট্রেলিয়া। তবে এ মহড়া থেকে মালদ্বীপের সরে দাঁড়ানোর পেছনে চীনের হাত রয়েছে বলে ধারণা করছেন ভারতীয় বিশেষজ্ঞরা। এনডিটিভি।