ঢাকা ০২:২৯ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ১৫ এপ্রিল ২০২৪, ১ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

মালয়েশিয়ায় ভূমি ধসে নিহত ৩, বাংলাদেশিসহ নিখোঁজ ১১

 অন্তর্জাতিক ডেস্কঃ

মালয়েশিয়ার উত্তরপূর্বাঞ্চলের পেনাং রাজ্যের রাজধানী জর্জ টাউন এলাকায় ৪৯ তলা বিশিষ্ট দুটি কনডমিনিয়াম টাওয়ারের নির্মাণস্থলে ভূমিধসে তিন বিদেশি শ্রমিক নিহত হয়েছে। এ ঘটনায় বেশ কয়েকজন বাংলাদেশি শ্রমিকসহ মোট ১১ জন শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত নিখোঁজ রয়েছেন।
শনিবার কনডমিনিয়াম টাওয়ার কর্তৃপক্ষের বরাত দিয়ে বার্তা সংস্থা রয়টার্স এ খবর প্রকাশ করে।
কর্তৃপক্ষের দেয়া তথ্যানুযায়ী, নিহত তিন শ্রমিকের মধ্যে ২ জন ইন্দোনেশিয়ান এবং ১ জন মায়ানমারের নাগরিক রয়েছেন। ওই ভবন নির্মাণে নিয়োজিত কর্মকর্তারা বলেন, ঘটনাস্থল থেকে আরো ২ শ্রমিক অনেকটা আঘাত প্রাপ্ত হয়ে ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে গেছেন।
পেনাং ফায়ার সার্ভিস বিভাগের পরিচালক সাধুন মোখতার বলেন, ভূমিধসের ঘটনায় যারা আটকা পড়েছেন তারা ইন্দোনেশিয়া, বাংলাদেশ ও মিয়ানমারের নাগরিক।

পেনাং আইল্যান্ড সিটি কাউন্সিল মেয়র দাতুক মাইমুনা বলেছেন, কি কারণে ভূমিধসের ঘটনা ঘটলো তা বুঝতে পারছিনা। গত কয়েকদিন ধরে বৃষ্টিপাতও নেই যে ভূমিধস হবে।

এদিকে ভূমিধসের ঘটনার পর উদ্ধার অভিযান শেষ না হওয়া পর্যন্ত ওই কনস্ট্রাকশন সাইটের কাজ বন্ধ রাখার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

সাধুন মোখতার বলেন, এখানে কর্মরত বেশির ভাগ শ্রমিকই ইন্দোনেশিয়া, বাংলাদেশি ও বাংলাদেশ থেকে আসা রোহিঙ্গারা।
সম্পূর্ণ ঘটনাটির সূত্রপাত জানতে এখনো কাজ করে যাচ্ছে কর্তৃপক্ষ। এবং ঘটনার কারণ এখনো নির্ণয় করা যায়নি।

ট্যাগস
আপলোডকারীর তথ্য

মুরাদনগর ভয়াবহ আগুন কয়ক কাটি টাকার ক্ষতি 

মালয়েশিয়ায় ভূমি ধসে নিহত ৩, বাংলাদেশিসহ নিখোঁজ ১১

আপডেট সময় ০২:৫১:৪০ অপরাহ্ন, শনিবার, ২১ অক্টোবর ২০১৭
 অন্তর্জাতিক ডেস্কঃ

মালয়েশিয়ার উত্তরপূর্বাঞ্চলের পেনাং রাজ্যের রাজধানী জর্জ টাউন এলাকায় ৪৯ তলা বিশিষ্ট দুটি কনডমিনিয়াম টাওয়ারের নির্মাণস্থলে ভূমিধসে তিন বিদেশি শ্রমিক নিহত হয়েছে। এ ঘটনায় বেশ কয়েকজন বাংলাদেশি শ্রমিকসহ মোট ১১ জন শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত নিখোঁজ রয়েছেন।
শনিবার কনডমিনিয়াম টাওয়ার কর্তৃপক্ষের বরাত দিয়ে বার্তা সংস্থা রয়টার্স এ খবর প্রকাশ করে।
কর্তৃপক্ষের দেয়া তথ্যানুযায়ী, নিহত তিন শ্রমিকের মধ্যে ২ জন ইন্দোনেশিয়ান এবং ১ জন মায়ানমারের নাগরিক রয়েছেন। ওই ভবন নির্মাণে নিয়োজিত কর্মকর্তারা বলেন, ঘটনাস্থল থেকে আরো ২ শ্রমিক অনেকটা আঘাত প্রাপ্ত হয়ে ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে গেছেন।
পেনাং ফায়ার সার্ভিস বিভাগের পরিচালক সাধুন মোখতার বলেন, ভূমিধসের ঘটনায় যারা আটকা পড়েছেন তারা ইন্দোনেশিয়া, বাংলাদেশ ও মিয়ানমারের নাগরিক।

পেনাং আইল্যান্ড সিটি কাউন্সিল মেয়র দাতুক মাইমুনা বলেছেন, কি কারণে ভূমিধসের ঘটনা ঘটলো তা বুঝতে পারছিনা। গত কয়েকদিন ধরে বৃষ্টিপাতও নেই যে ভূমিধস হবে।

এদিকে ভূমিধসের ঘটনার পর উদ্ধার অভিযান শেষ না হওয়া পর্যন্ত ওই কনস্ট্রাকশন সাইটের কাজ বন্ধ রাখার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

সাধুন মোখতার বলেন, এখানে কর্মরত বেশির ভাগ শ্রমিকই ইন্দোনেশিয়া, বাংলাদেশি ও বাংলাদেশ থেকে আসা রোহিঙ্গারা।
সম্পূর্ণ ঘটনাটির সূত্রপাত জানতে এখনো কাজ করে যাচ্ছে কর্তৃপক্ষ। এবং ঘটনার কারণ এখনো নির্ণয় করা যায়নি।