ঢাকা ০৩:১১ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৩ জুন ২০২৪, ৯ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

মুক্তি পেলেন সালমান খান

বিনোদন ডেস্ক:

২ দিন জেল খাটার পর অবশেষে জামিন পেয়ে কারাগার থেকে মুক্ত হলেন ভাইজান খ্যাত বলিউড তারকা সালমান খান। আজ শনিবার স্থানীয় সময় বিকেল ৫টা ৩৫ মিনিটে তাকে যোধপুর কেন্দ্রীয় কারাগার থেকে মুক্তি দেওয়া হয়।

কড়া পুলিশি নিরাপত্তায় কারাগার থেকে তিনি সরাসরি যোধপুর বিমানবন্দরের পৌঁছান। এই সময় সঙ্গে ছিলেন তার বোন আলভিরা ও অর্পিতা খান শর্মা। এছাড়াও রয়েছেন ৩ জন আইনজীবীসহ ৭ দেহরক্ষী। আজই সবাই মুম্বাই উদ্দেশ্যে রওনা হবেন।

এর আগে কৃষ্ণসার হরিণ শিকার মামলায় বৃহস্পতিবার সালমানকে ৫ বছরের সাজা দিয়েছেন আদালত। এর পরিপ্রেক্ষিতে টাইগারকে যোধপুর কেন্দ্রীয় কারাগারে ২ রাত কাটাতে হয়। সালমানের সাজার রায়ের পর বৃহস্পতিবারই জামিন আবেদন করে তার আইনজীবী।

আজ সকালে রাজস্থান রাজ্যের যোধপুরের বিচারিক আদালতে ৫২ বছর বয়সী এই অভিনেতার জামিন আবেদনের শুনানি হয়। এরপর বিকেল ৩টায় বিচারক রবীন্দ্র কুমার যোশী জামিন আবেদন মঞ্জুর করেন।

তবে উচ্চ আদালতের অনুমতি ব্যতীত সালমানের ভারত থেকে অন্য দেশে যাওয়ার ব্যাপারে নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়েছে। অবশ্য আগামী ৭ মে এই মামলার পরবর্তী শুনানি হবে।

ট্যাগস
আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

মুক্তি পেলেন সালমান খান

আপডেট সময় ০৩:১২:৩১ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ৮ এপ্রিল ২০১৮
বিনোদন ডেস্ক:

২ দিন জেল খাটার পর অবশেষে জামিন পেয়ে কারাগার থেকে মুক্ত হলেন ভাইজান খ্যাত বলিউড তারকা সালমান খান। আজ শনিবার স্থানীয় সময় বিকেল ৫টা ৩৫ মিনিটে তাকে যোধপুর কেন্দ্রীয় কারাগার থেকে মুক্তি দেওয়া হয়।

কড়া পুলিশি নিরাপত্তায় কারাগার থেকে তিনি সরাসরি যোধপুর বিমানবন্দরের পৌঁছান। এই সময় সঙ্গে ছিলেন তার বোন আলভিরা ও অর্পিতা খান শর্মা। এছাড়াও রয়েছেন ৩ জন আইনজীবীসহ ৭ দেহরক্ষী। আজই সবাই মুম্বাই উদ্দেশ্যে রওনা হবেন।

এর আগে কৃষ্ণসার হরিণ শিকার মামলায় বৃহস্পতিবার সালমানকে ৫ বছরের সাজা দিয়েছেন আদালত। এর পরিপ্রেক্ষিতে টাইগারকে যোধপুর কেন্দ্রীয় কারাগারে ২ রাত কাটাতে হয়। সালমানের সাজার রায়ের পর বৃহস্পতিবারই জামিন আবেদন করে তার আইনজীবী।

আজ সকালে রাজস্থান রাজ্যের যোধপুরের বিচারিক আদালতে ৫২ বছর বয়সী এই অভিনেতার জামিন আবেদনের শুনানি হয়। এরপর বিকেল ৩টায় বিচারক রবীন্দ্র কুমার যোশী জামিন আবেদন মঞ্জুর করেন।

তবে উচ্চ আদালতের অনুমতি ব্যতীত সালমানের ভারত থেকে অন্য দেশে যাওয়ার ব্যাপারে নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়েছে। অবশ্য আগামী ৭ মে এই মামলার পরবর্তী শুনানি হবে।