ঢাকা ০৭:৫৫ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই ২০২৪, ৩ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

মুরাদনগরে ইমাম কর্তৃক কিশোরী ধর্ষণ: থানায় মামলা

মো: ইমন সরকার, পূর্বধইর পূর্ব ইউনিয়র প্রতিনিধিঃ

১৩ সেপ্টম্বর ২০১৫ ইং (মুরাদনগর বার্তা ডটকম):

কুমিল্লার মুরাদনগর উপজেলার কোরবানপুরে ইমাম কর্তৃক কিশোরীকে ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। ধর্ষণের অভিযোগে ফয়জুল্লাহ চৌধুরী নামে ওই ইমামকে শনিবার রাত সাড়ে ১২টার দিকে কোরবানপুর বায়তুল আমান জামে মসজিদ সংলগ্ন ইমাম কক্ষ থেকে আটক করার পর রোববার সকালে  মুরাদনগর থানা পুলিশের হাতে সোপর্দ করা হয়। এ ঘটনায় রোববার বিকেলে ধর্ষিতা নিজে বাদী হয়ে ধর্ষণের অভিযোগে থানায় ওই ইমামের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছে।

আটক ইমাম ফয়জুল্লাহ চৌধুরী ব্রাহ্মণবাড়ীয়া জেলার সুলতানপুর উপজেলার দ: জনৎসার গ্রামের আবু নুর চৌধুরীর ছেলে।

মামলার অভিযোগে জানা যায়, কোরবানপুর গ্রামের বায়তুল আমান জামে মসজিদের ইমাম ফয়জুল্লাহ চৌধুরী(৩০) বিয়ে প্রলোভন দেখিয়ে মসজিদের পাশের বাড়ীর এক তরুনীকে গভীর রাতে ফুঁসলিয়ে মসজিদ সংলগ্ন ইমামের কক্ষে এনে ধর্ষণ করে। ধর্ষণকালে ওই কিশোরী চিৎকার করলে আশপাশের লোকজন এসে তাকে উদ্ধার করে ইমামকে হাতে নাতে আটক করে। পরে খবর পেয়ে গতকাল সকালে থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে অভিযুক্ত ইমাম ফয়জুল্লাহকে আটক করে।

এ বিষয়ে মুরাদনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মিজানুর রহমান বলেন, অভিযুক্ত ইমামের বিরুদ্ধে নারী শিশু ধর্ষণ আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে। তিনি বলেন, ভিকটিমকে ডাক্তারী পরিক্ষা শেষে আদালতে প্রতিবেদন দেয়া হবে। সোমবার তাকে জেল হাজতে প্রেরণ করা হবে। ঘটনার সতত্য স্বীকার করে আটক ইমাম ফয়জুল্লাহ চৌধুরী বলেন, আমি যেকোন শর্তে ওই কিশোরীকে বিয়ে করতে রাজী আছি।

ট্যাগস
জনপ্রিয় সংবাদ

শিক্ষার্থীদের উপর হামলার প্রতিবাদে মুরাদনগরে বিক্ষোভ ও সড়ক অবরোধ

মুরাদনগরে ইমাম কর্তৃক কিশোরী ধর্ষণ: থানায় মামলা

আপডেট সময় ০৫:০৯:২৫ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৩ সেপ্টেম্বর ২০১৫

মো: ইমন সরকার, পূর্বধইর পূর্ব ইউনিয়র প্রতিনিধিঃ

১৩ সেপ্টম্বর ২০১৫ ইং (মুরাদনগর বার্তা ডটকম):

কুমিল্লার মুরাদনগর উপজেলার কোরবানপুরে ইমাম কর্তৃক কিশোরীকে ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। ধর্ষণের অভিযোগে ফয়জুল্লাহ চৌধুরী নামে ওই ইমামকে শনিবার রাত সাড়ে ১২টার দিকে কোরবানপুর বায়তুল আমান জামে মসজিদ সংলগ্ন ইমাম কক্ষ থেকে আটক করার পর রোববার সকালে  মুরাদনগর থানা পুলিশের হাতে সোপর্দ করা হয়। এ ঘটনায় রোববার বিকেলে ধর্ষিতা নিজে বাদী হয়ে ধর্ষণের অভিযোগে থানায় ওই ইমামের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছে।

আটক ইমাম ফয়জুল্লাহ চৌধুরী ব্রাহ্মণবাড়ীয়া জেলার সুলতানপুর উপজেলার দ: জনৎসার গ্রামের আবু নুর চৌধুরীর ছেলে।

মামলার অভিযোগে জানা যায়, কোরবানপুর গ্রামের বায়তুল আমান জামে মসজিদের ইমাম ফয়জুল্লাহ চৌধুরী(৩০) বিয়ে প্রলোভন দেখিয়ে মসজিদের পাশের বাড়ীর এক তরুনীকে গভীর রাতে ফুঁসলিয়ে মসজিদ সংলগ্ন ইমামের কক্ষে এনে ধর্ষণ করে। ধর্ষণকালে ওই কিশোরী চিৎকার করলে আশপাশের লোকজন এসে তাকে উদ্ধার করে ইমামকে হাতে নাতে আটক করে। পরে খবর পেয়ে গতকাল সকালে থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে অভিযুক্ত ইমাম ফয়জুল্লাহকে আটক করে।

এ বিষয়ে মুরাদনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মিজানুর রহমান বলেন, অভিযুক্ত ইমামের বিরুদ্ধে নারী শিশু ধর্ষণ আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে। তিনি বলেন, ভিকটিমকে ডাক্তারী পরিক্ষা শেষে আদালতে প্রতিবেদন দেয়া হবে। সোমবার তাকে জেল হাজতে প্রেরণ করা হবে। ঘটনার সতত্য স্বীকার করে আটক ইমাম ফয়জুল্লাহ চৌধুরী বলেন, আমি যেকোন শর্তে ওই কিশোরীকে বিয়ে করতে রাজী আছি।