ঢাকা ১২:৫১ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৩ জুন ২০২৪, ৯ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

মুরাদনগরে গৃহবধূকে জবাই করে হত্যার অভিযোগ

আজিজুর রহমান রনি, বিশেষ প্রতিনিধি:

কুমিল্লার মুরাদনগর উপজেলায় শিল্পী আক্তার (২১) নামের এক গৃহবধুকে গলা কেটে হত্যার অভিযোগ উঠেছে স্বামীর বিরুদ্ধে। ঘটনার পর থেকে স্বামী মো.গিয়াস উদ্দিন (২৮) পলাতক রয়েছে।

সোমবার (২৯ এপ্রিল) সকাল দশটার দিকে মুরাদনগরে উপজেলার সদর ইউনিয়নের মধ্যনগর গ্রামের কেন্দ্রীয় জামে মসজিদ সংলগ্ন গিয়াস উদ্দিনের ঘরে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত শিল্পী আক্তার উপজেলার টনকি ইউনিয়নের রুক্কু মিয়ার মেয়ে।

নিহতের মা সুরাইয়া বেগম (৫৭) কন্না জড়িত কন্ঠে বলেন, ‘গত দশ মাস আগে পারিবারিক ভাবে গিয়াস উদ্দিনের সাথে আমার মেয়ে শিল্পীর বিয়ে হয় এবং সে চার মাসের গর্ভবতি। বিয়ের পর মেয়েকে প্রায় সময় বিভিন্ন অজুহাতে মারধর করতো গিয়াস। কিন্তু মূল বিষয় ছিলো বাপের বাড়ি থেকে তাকে টাকা এনে দেয়া। আমি যদি জানতাম এই ডাকাত আমার মেয়েকে গলা কেটে হত্যা করবে তাইলে আমার কলিজার টুকরাকে তার সংসারে দিতাম না।’

এ ব্যাপারে মুরাদনগর থানার ওসি প্রভাষ চন্দ্র ধর বলেন, স্বামী স্ত্রীর মধ্যে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে ঝগড়ায় জড়ান তারা। এরপর ঘরের দরজা বন্ধ করে স্ত্রীর গলা কেটে হত্যা করেন স্বামী। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে রক্তাক্ত অবস্থায় শিল্পী আক্তারকে উদ্ধার করে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ (কুমেক) হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। ঘাতক স্বামী পলাতক। তাকে গ্রেফতারের চেষ্টা অব্যাহত।

ট্যাগস
আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

মুরাদনগরে গৃহবধূকে জবাই করে হত্যার অভিযোগ

আপডেট সময় ১০:২২:৫৮ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২৯ এপ্রিল ২০২৪

আজিজুর রহমান রনি, বিশেষ প্রতিনিধি:

কুমিল্লার মুরাদনগর উপজেলায় শিল্পী আক্তার (২১) নামের এক গৃহবধুকে গলা কেটে হত্যার অভিযোগ উঠেছে স্বামীর বিরুদ্ধে। ঘটনার পর থেকে স্বামী মো.গিয়াস উদ্দিন (২৮) পলাতক রয়েছে।

সোমবার (২৯ এপ্রিল) সকাল দশটার দিকে মুরাদনগরে উপজেলার সদর ইউনিয়নের মধ্যনগর গ্রামের কেন্দ্রীয় জামে মসজিদ সংলগ্ন গিয়াস উদ্দিনের ঘরে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত শিল্পী আক্তার উপজেলার টনকি ইউনিয়নের রুক্কু মিয়ার মেয়ে।

নিহতের মা সুরাইয়া বেগম (৫৭) কন্না জড়িত কন্ঠে বলেন, ‘গত দশ মাস আগে পারিবারিক ভাবে গিয়াস উদ্দিনের সাথে আমার মেয়ে শিল্পীর বিয়ে হয় এবং সে চার মাসের গর্ভবতি। বিয়ের পর মেয়েকে প্রায় সময় বিভিন্ন অজুহাতে মারধর করতো গিয়াস। কিন্তু মূল বিষয় ছিলো বাপের বাড়ি থেকে তাকে টাকা এনে দেয়া। আমি যদি জানতাম এই ডাকাত আমার মেয়েকে গলা কেটে হত্যা করবে তাইলে আমার কলিজার টুকরাকে তার সংসারে দিতাম না।’

এ ব্যাপারে মুরাদনগর থানার ওসি প্রভাষ চন্দ্র ধর বলেন, স্বামী স্ত্রীর মধ্যে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে ঝগড়ায় জড়ান তারা। এরপর ঘরের দরজা বন্ধ করে স্ত্রীর গলা কেটে হত্যা করেন স্বামী। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে রক্তাক্ত অবস্থায় শিল্পী আক্তারকে উদ্ধার করে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ (কুমেক) হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। ঘাতক স্বামী পলাতক। তাকে গ্রেফতারের চেষ্টা অব্যাহত।