ঢাকা ০২:২০ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ১৫ এপ্রিল ২০২৪, ১ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

মুরাদনগরে চুরির ঘটনায় থানায় অভিযোগ করায় পরিবারের সদস্যদের হত্যার হুমকি

মুরাদনগর প্রতিনিধিঃ

কুমিল্লার মুরাদনগর উপজেলার নবীপুর পশ্চিম ইউনিয়নের পদুয়া গ্রামে সন্তানের নিজ ব্যবসায়ী প্রতিষ্ঠানে চুরির ঘটনায় মা মোসা: হাসেনা বেগম মুরাদনগর থানায় সাধারন ডায়রি করলে একটি চোরাই সিন্ডিকেট সদস্যরা ঐ পরিবারটিকে মারদরসহ হত্যার হুমকি দেওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, উপজেলার পদুয়া গ্রামের মো: জারু মিয়ার ছেলে কামরুল হাছান জুয়েলের  নিজ গ্রামের ব্রীজের পাশের নিজ ব্যবসায়ী প্রতিষ্ঠানের শাটার কেটে গত মঙ্গলবার রাতে চুরি করে ফ্রিজ, টেলিভিশন, নগদ অর্থসহ দোকানে তাকা বিভিন্ন মালামাল লুটকরে নিয়ে যায়। এতে স্থানীয়দের কাছে অভিযোগ করায় পদুয়া গ্রামের মৃত খোরশিদ মিয়ার ছেলে রুকু মিয়ার নেতৃত্বে  ঐ চোরাই সিন্ডিকেটের ২/৩ জন সদস্য জুয়েলের ভাই সোহাগকে তার দোকানে মারদর করতে যায় ও এ চুরির বিষয়েটি নিয়ে থানা পুলিশ হলে হত্যার হুমকি প্রদান করে। এর পরদিন বুধবার দুপুরে ব্যবসায়ী জুয়েলের মা হাসেনা বেগম মুরাদনগর থানায় এ বিষয়ে একটি অভিযোগ করে। এ বিষয়ে থানার এএসআই শরিফুল ইসলামের নেতৃত্বে একদল পুলিশ ঘটনার স্থল পরিদর্শন করে অভিযোক্ত রুকু মিয়াকে আটক করে। এবং রাতেই তাকে পুলিশ ছেরে দিলে এ র পর থেকে ঐ পরিবারটির উপর আর হুমকির প্রবাহ বেড়ে যায়।

এ বিষয়ে ব্যবসায়ীর মা হাসেনা বেগম বলেন, ঐ চোরাই সিন্ডিকেটরা আমার ছেলের দোকানে চুরি করে ও আমার ছেলে মারদরসহ প্রকাশ্যে হুমকি দিয়ে যাচ্ছে।

এ ব্যাপারে আভিযোগের তদন্তকারি কর্মকর্তা ও মুরাদনগর থানার এসআই শরিফুল ইসলাম বলেন,
হুমকির বিষয়টির আমর জানা নেই। বিষয়টি সুষ্ঠতদন্ত শেষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

ট্যাগস
আপলোডকারীর তথ্য

মুরাদনগর ভয়াবহ আগুন কয়ক কাটি টাকার ক্ষতি 

মুরাদনগরে চুরির ঘটনায় থানায় অভিযোগ করায় পরিবারের সদস্যদের হত্যার হুমকি

আপডেট সময় ০৫:০৯:০৪ অপরাহ্ন, রবিবার, ৩০ এপ্রিল ২০১৭
মুরাদনগর প্রতিনিধিঃ

কুমিল্লার মুরাদনগর উপজেলার নবীপুর পশ্চিম ইউনিয়নের পদুয়া গ্রামে সন্তানের নিজ ব্যবসায়ী প্রতিষ্ঠানে চুরির ঘটনায় মা মোসা: হাসেনা বেগম মুরাদনগর থানায় সাধারন ডায়রি করলে একটি চোরাই সিন্ডিকেট সদস্যরা ঐ পরিবারটিকে মারদরসহ হত্যার হুমকি দেওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, উপজেলার পদুয়া গ্রামের মো: জারু মিয়ার ছেলে কামরুল হাছান জুয়েলের  নিজ গ্রামের ব্রীজের পাশের নিজ ব্যবসায়ী প্রতিষ্ঠানের শাটার কেটে গত মঙ্গলবার রাতে চুরি করে ফ্রিজ, টেলিভিশন, নগদ অর্থসহ দোকানে তাকা বিভিন্ন মালামাল লুটকরে নিয়ে যায়। এতে স্থানীয়দের কাছে অভিযোগ করায় পদুয়া গ্রামের মৃত খোরশিদ মিয়ার ছেলে রুকু মিয়ার নেতৃত্বে  ঐ চোরাই সিন্ডিকেটের ২/৩ জন সদস্য জুয়েলের ভাই সোহাগকে তার দোকানে মারদর করতে যায় ও এ চুরির বিষয়েটি নিয়ে থানা পুলিশ হলে হত্যার হুমকি প্রদান করে। এর পরদিন বুধবার দুপুরে ব্যবসায়ী জুয়েলের মা হাসেনা বেগম মুরাদনগর থানায় এ বিষয়ে একটি অভিযোগ করে। এ বিষয়ে থানার এএসআই শরিফুল ইসলামের নেতৃত্বে একদল পুলিশ ঘটনার স্থল পরিদর্শন করে অভিযোক্ত রুকু মিয়াকে আটক করে। এবং রাতেই তাকে পুলিশ ছেরে দিলে এ র পর থেকে ঐ পরিবারটির উপর আর হুমকির প্রবাহ বেড়ে যায়।

এ বিষয়ে ব্যবসায়ীর মা হাসেনা বেগম বলেন, ঐ চোরাই সিন্ডিকেটরা আমার ছেলের দোকানে চুরি করে ও আমার ছেলে মারদরসহ প্রকাশ্যে হুমকি দিয়ে যাচ্ছে।

এ ব্যাপারে আভিযোগের তদন্তকারি কর্মকর্তা ও মুরাদনগর থানার এসআই শরিফুল ইসলাম বলেন,
হুমকির বিষয়টির আমর জানা নেই। বিষয়টি সুষ্ঠতদন্ত শেষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।